• search
হোম
 » 
রাজনীতিকরা
 » 
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

জীবনি

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী ও তৃণমূল কংগ্রেস প্রধান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উত্থান অন্যান্য রাজনীতিবিদদের থেকে একটু আলাদা। কোনও রাজনৈতিক পরিমণ্ডল নয়, সাধারণ মধ্যবিত্ত পরিবারের মেয়ে মমতার রাজনীতিতে হাতেখড়ি কলেজ জীবন থেকেই। এই সময়েই তাঁর কংগ্রেসে যোগদান। ১৯৮৪-তে মমতার প্রথম লোকসভা জয়। ওই বছরে তিনি দক্ষিণ কলকাতা থেকে প্রার্থী হিসেবে দাঁড়িয়েছিলেন। যদিও এই জয় তিনি ধরে রাখতে পারেননি। ১৯৮৯-এর নির্বাচনে একই এলাকা থেকে দাঁড়িয়েও পরাজিত হয়েছিলেন মমতা। ১৯৯১-এর লোকসভা নির্বাচন হারানো আসন ফিরিয়ে দিয়েছিল তাঁকে। জয়ের এই ধারাবাহিকতা তিনি ধরে রেখেছিলেন ২০০৯-এর সাধারণ নির্বাচন পর্যন্ত। রাজনৈতিক জীবনের একেবারে গোড়ায় মমতা ছিলেন কট্টর কংগ্রেস সমর্থক। ১৯৯৭-এ সেই ভাবমূর্তিতে কিছুটা বদল আনেন। ওই বছরই বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী কংগ্রেস থেকে বেরিয়ে পৃথক দল গঠন করেন। নাম দেন তৃণমূল কংগ্রেস। এছাড়াও তিনি দু’বার দক্ষতার সঙ্গে রেলমন্ত্রীর কুর্শিও সামলেছেন। এরই পাশাপাশি মমতা জোট বেঁধেছেন এনডিএ এবং ইউপিএ-র সঙ্গে। তবে নন্দীগ্রাম ও সিঙ্গুর আন্দোলনে সক্রিয় অংশগ্রহণ তাঁকে রাজ্য-রাজনীতির কেন্দ্রবিন্দুতে নিয়ে আসে। রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে, এই আন্দোলনই রাজ্যে ততকালীন শাসকদল সিপিআইএমের শক্ত ভিত নাড়িয়ে দিয়েছিল। এই আন্দোলনের হাত ধরেই পালাবদল ঘটেছিল পশ্চিমবঙ্গের রাজনীতিতে। ২০১১-য় ৩৫ বছর ধরে বাংলায় চলতে থাকা একছত্র বাম জমানার অবসান ঘটিয়ে বাংলায় প্রথম মহিলা মুখ্যমন্ত্রী নির্বাচিত হন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ২০১৬-র বিধানসভা নির্বাচনও বিমুখ করেনি তাঁকে। এই নির্বাচনে জয় আরও পোক্ত করেছে মমতা ও তাঁর দল তৃণমূল কংগ্রেসের একাধিপত্য।

ব্যক্তিগত জীবন

পুরো নাম মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।
জন্ম-তারিখ 05 Jan 1955 (বয়স 64)
জন্মস্থান কলকাতা
রাজনৈতিক দলের নাম All India Trinamool Congress
শিক্ষা Post Graduate
পেশা রাজনীতিবিদ, সমাজসেবী
পিতৃ পরিচয় প্রমীলেশ্বর বন্দ্যোপাধ্যায়
মাতৃ পরিচয় গায়ত্রী বন্দ্যোপাধ্যায়

যোগাযোগ

স্থায়ী ঠিকানা আর/ও ৩০ বি, হরিশ চ্যাটার্জি স্ট্রিট, কলকাতা-৭০০০২৬
বর্তমান ঠিকানা আর/ও ৩০ বি, হরিশ চ্যাটার্জি স্ট্রিট, কলকাতা-৭০০০২৬
যোগাযোগ নম্বর 9073348620, 09831159772
ইমেল cm@wb.gov.in
ওয়েবসাইট https://wb.gov.in/portal/web/guest/meet-the-chief-minister
সোশ্যাল মিডিয়া

আকর্ষণীয় তথ্য

বাংলার বর্তমান দোর্দণ্ডপ্রতাপ মুখ্যমন্ত্রী কিন্তু আট থেকে আশির আদরের ‘দিদি’। রাজনীতির পাশাপাশি মমতা ইতিহাসে স্নাতক, ইসলামিক ইতিহাসে স্নাতকোত্তর। এছাড়া, আইন ও এডুকেশনেও তিনি স্নাতক। অবসরে কবিতা লেখেন, ছবি আঁকেন। এখনও পর্যন্ত তাঁর ৩০০-রও বেশি ছবি বিক্রি হয়েছে। নিজের রাজ্য তো বটেই, অন্যান্য রাজ্যের রাজনীতিবিদেরাও চাইছেন, এবার মোদির জায়গায় ‘দিদি’ আসুন।

রাজনৈতিিক টাইম-লাইন

  • 2016
    ২০১৬-র নির্বাচনেও সংখ্যাগরিষ্ঠতা লাভ করেছিল তণমূল। বাম-কংগ্রেস জোটের বিরুদ্ধে ২১১টি আসনে জিতে দিদি দ্বিতীয়বার রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী।
  • 2012
    ইউপিএ থেকে সমর্থন প্রত্যাহার করেন পশ্চিমবঙ্গের মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী।
  • 2011
    তৃণমূল-কংগ্রেস জোট ২৯৪টি আসনের মধ্যে ২২৭টি আসনে জিতে পশ্চিমবঙ্গের ৮ম মুখ্যমন্ত্রীর তখতে বসায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। মমতার হাত ধরে অবসান হল ৩৪ বছরের বাম জমানার।
  • 2009
    লোকসভা নির্বাচনের ঠিক আগে, তিনি কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন ইউপিএতে যোগ দিয়ে জিতেছিলেন। একইসঙ্গে মমতা কলকাতার দক্ষিণ কেন্দ্র থেকে তাঁর পঞ্চম জয়ের ধারা অব্যাহত রাখেন। এবং রেলমন্ত্রী হিসাবে মন্ত্রিসভায় তাঁকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়। রেলমন্ত্রী হিসেবে এটি তাঁর দ্বিতীয় মেয়াদ ছিল।
  • 2006
    পুরসভা নির্বাচনে পরাজিত হওয়ার পর, মমতা তাঁর গড়া দলকে আরও শক্তিশালী করে গড়ে তোলার দিকে বেশি মনোযোগ দিতে শুরু করেন।
  • 2006
    ৪ আগস্ট ২০০৬-এ রেলমন্ত্রীর পদ থেকে ইস্তফা দেন মমতা। পদত্যাগপত্র তুলে দেন লোকসভা ডেপুটি স্পিকার চরঞ্জিত সিং আতওয়ালের হাতে।
  • 2006
    রাজ্যে প্রস্তাবিত টাটা মোটর গাড়ি প্রকল্পের বিরোধিতা করে রাজ্য জুড়ে বেনজির বন্ধ ডাকেন মমতা। বিধানসভায় ভাঙচুর চালিয়ে বিক্ষোভ দেখান তৃণমূলীয় বিধায়করা।
  • 2005
    ততকালীন রাজ্য সরকারের গায়ের জোরে ভূমি অধিগ্রহণের বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছিলেন মমতা। সেদিন মমতার পাশে ছিল বাংলার কয়েক লক্ষেরও বেশি কৃষক।
  • 2004
    মমতা রবিন দেবকে পরাজিত করে তাঁর জয় ধরে রেখেছিলেন।
  • 1999
    আবার জয়ী হন কলকাতার সেই দক্ষিণ কেন্দ্র থেকেই। এবার তিনি সিপিআই (এম) এর শুভঙ্কর চক্রবর্তীকে পরাজিত করেছিলেন।
  • 1999
    মমতার দল এবছরেই যোগ দেয় জাতীয় গণতান্ত্রিক জোট (এনডিএ) সরকারে । ওই বছরই তিনি কেন্দ্রীয় রেলমন্ত্রী হয়ে প্রথম রেলওয়ের বাজেট পেশ করেন। তিনি ২০০০-২০০১ অর্থ বছরে ১৯টি নতুন ট্রেন চালু করেছিলেন।
  • 1998
    এবছর সাধারণ নির্বাচনে মমতার ভোটের হার বেড়ে দাঁড়ায় ৫৯%। তিনি একই কেন্দ্র থেকে সিপিআই (এম) এর প্রশান্ত কুমার শূরকে হারিয়ে ২২,০,০৮১ ভোটে জিতেছিলেন।
  • 1997
    মমতা কংগ্রেসের ছেড়ে বেরিয়ে আসেন। তাঁর হাত ধরে জন্ম নেয় অল ইন্ডিয়া তৃণমূল কংগ্রেস, যা টিএমসি বা তৃণমূল কংগ্রেস নামে বেশি পরিচিত। দিদি তার মধ্যমণি। দেখতে দেখতে দিদির দল রাজ্যের শক্তিশালী বিরোধী দল হয়ে ওঠে।
  • 1996
    এবছরেও কলকাতার দক্ষিণের আসন ধরে রেখেছেন মমতা। নির্বাচনে তিনি পেয়েছিলেন ১০৩,২৬১টি ভোট। এভাবেই বিপুল ভোটের ব্যবধানে পরাজিত করেন সিপিআই (এম)-এর ভারতী মুখার্জিকে।
  • 1991
    লোকসভা নির্বাচনে আবার প্রার্থী মমতা। প্রতিপক্ষকে গুঁড়িয়ে ৩,৬৭,৮৯৬ রেকর্ড ভোট পেয়ে আবারও স্বমহিমায় মমতা।
  • 1991
    এবছরেই তাঁকে রাজ্যের মানব সম্পদ উন্নয়ন, যুবা ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব দেওয়া হয়। ওই বছরেই নরসিমা রাও সরকার নারী ও শিশু কল্যাণ মন্ত্রক সামলাতে দেয় মমতাকে। যদিও ১৯৯৩-এ তিনি এই দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়।
  • 1989
    রাজ্য জুড়ে কংগ্রেস বিরোধী হাওয়া। ফলে, কেন্দ্র মমতাকে রাজনীতির প্রথম সারিতে নিয়ে এসেছিল সেখানেই পরাজিত হন তিনি।
  • 1984
    বামপন্থী নেতা সোমনাথ চট্টোপাধ্যায়কে হারিয়ে যাদবপুর কেন্দ্র থেকে প্রথম নির্বাচিত হন মমতা। সে সময়ে তিনি ছিলেন সবচেয়ে কমবয়সী সাংসদ।
  • 1976
    মমতা রাজ্যের মহিলা কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পান। টানা চার বছর দক্ষতার সঙ্গে এই দায়িত্ব পালন করেছিলেন তিনি।
  • 1974
    রাজনৈতিক জীবনের প্রথম পর্যায়ে তৃণমূল দলনেত্রী মমতা জেলা কংগ্রেস কার্যালয়ের একজন কর্মী ছিলেন ।
  • ????
    এই বছরের মাঝামাঝি তিনি ভারতীয় যুব কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক নিযুক্ত হন।

আগের ইতিহাস

  • 1970
    যোগমায়া দেবী কলেজে পড়ার সময় মমতা ছাত্র পরিষদের প্রতিষ্ঠা করেন। এটি ছিল কংগ্রেসের ছাত্র সংগঠন (আই)। তাঁর প্রতিষ্ঠিত ছাত্র পরিষদ ভারতের সমাজতান্ত্রিক ঐক্য কেন্দ্রের ডেমোক্র্যাটিক স্টুডেন্টস।
মোট সম্পদ মূল্য30.45 LAKHS
সম্পদ30.45 LAKHS
দায়বদ্ধতাN/A

Disclaimer: The information relating to the candidate is an archive based on the self-declared affidavit filed at the time of elections. The current status may be different. For the latest on the candidate kindly refer to the affidavit filed by the candidate with the Election Commission of India in the recent election.

সোশ্যাল

অ্যালবাম

চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X
We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more