• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

গ্রেফতার বালিয়া হত্যা মামলার মূল অভিযুক্ত! জাতীয় নিরাপত্তা আইনে মামলা বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে

  • |

অবশেষে গ্রেফতার বলিয়া হত্যা মামলার মূল অভিযুক্ত তথা বিজেপি নেতা ধীরেন্দ্র সিং। বিজেপি বিধায়ক সুরেন্দ্র সিংয়ের অনুগামী হিসাবেই এলাকায় বিশেষ পরিচিতি ছিল ধীরেন্দ্রর। এদিকে গুলিচালনার ঘটনায় অন্যতম ইন্ধনকারী হিসাবে আগে ই নাম উঠে এসেছে সুরেন্দ্র সিংয়ের।

এসটিএফ-র হাতে গ্রেফতার বিজেপি নেতা ধীরেন্দ্র সিং

এসটিএফ-র হাতে গ্রেফতার বিজেপি নেতা ধীরেন্দ্র সিং

সূত্রের খবর, বিবার লখনউয়ের জনেশ্বর মিশ্র পার্কের কাছ থেকে ধীরেন্দ্র সিংকে গ্রেফতার করে উত্তর প্রদেশ পুলিশের স্পেশাল টাস্ক ফোর্স। যদিও ধীরেন্দ্র সিং আদালতে দ্রুত আত্মসমর্পণের কথা ভাবছিল বলেও শোনা যাচ্ছে বিভিন্ন মহল থেকে। এদিকে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ইতিমধ্যেই জাতীয় নিরাপত্তা আইন ও দুষ্কৃতী বিরোধী আইনে মামলা রুজু করেছে পুলিশ।

রেশনের ডিলারশিপ বণ্টন নিয়ে গোষ্ঠী সংঘর্ষ

রেশনের ডিলারশিপ বণ্টন নিয়ে গোষ্ঠী সংঘর্ষ

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার প্রশাসনিক কর্তাদের তত্ত্বাবধানে রেশনের ডিলারশিপ বণ্টন নিয়ে বৈঠক চলাকালীন দুই গোষ্ঠী আচমকাই বিবাদে জড়িয়ে পড়ে। পরবর্তীতে তা হাতাহাতি পর্যন্তও গড়ায়। তখনই হঠাৎ বন্দু উুঁচিয়ে তেড়ে আসে ধীরেন্দ্র। পুলিশের উপস্থিতিতেই জয় প্রকাশ (৪৬) নামে এক ব্যক্তিকে লক্ষ্য করে গুলি চালালে ঘটনাস্থলে মৃত্যু হয় তার।

আত্মরক্ষার্থেই গুলি চালনা ?

আত্মরক্ষার্থেই গুলি চালনা ?

এদিকে বিজেপি বিধায়ক ঘনিষ্ট গেরুয়া শিবিরের নামজাদা নেতার এই আস্ফালনে তুমুল বিতর্ক তৈরি হয় রাজ্য রাজনীতিতে। যদিও ধীরেন্দ্রের দাবি, আত্মরক্ষার্থেই নাকি তিনিগুলি চালিয়েছিলেন। এমনকী একটি ভিডিয়োতে আবার ধীরেন্দ্র সিংহকে বলতে শোনা গিয়েছে, অশান্তির পূর্বাভাস পেয়ে তিনি পুলিশ-প্রশাসনকে আগেই অনুরোধ করেছিলেন বৈঠকের জন্য বাড়তি পুলিশকর্মী মোতায়েন করতে। কিন্তু তাতে নাকি কর্ণপাত করেনি প্রশাসন। উল্টে জয় প্রকাশের দলবল তাকে ও তার পরিবারকে আক্রমণ করার চেষ্টা করলে গুলি চালাতে বাধ্য হন তিনি।

 ধীরেন্দ্র সিংয়ে প্রকাশ্যেই সমর্থন বিজেপি বিধায়কের

ধীরেন্দ্র সিংয়ে প্রকাশ্যেই সমর্থন বিজেপি বিধায়কের

এদিকে ধীরেন্দ্র সিংহের ঘনিষ্ঠ মহল সূত্রে খবর, এর আগেই বলিয়া জেলা আদালতে আত্মসমর্পণের জন্য একটি আবেদন পাঠিয়েছিলেন তিনি। যদিও, আদালত এখনও পর্যন্ত সংশ্লিষ্ট থানা থেকে এ ধরনের কোনও আবেদন পায়নি বলেই জানা যাচ্ছে। অন্যদিকে ধীরেন্দ্র সিংয়ে প্রকাশ্যে সমর্থন করতে দেখা গেছে বিজেপি বিধায়ক সুরেন্দ্র সিংকে। তিনি আবার উল্টে মৃত জয় প্রকাশের সঙ্গীদের বিরুদ্ধেই এফআইআর করার দাবিও করেছেন।

কলকাতাঃ রাজনৈতিক হত্যা অমিত শাহ ভালোই বোঝেন,মন্তব্য ডেরেকের

সরকার সংবিধান অনুযায়ী পরিচালিত হচ্ছে না! পুলিশি হেফাজতে বিজেপি কর্মীর মৃত্যুতে বিস্ফোরক রাজ্যপাল

English summary
main accused in the Balia murder case arrested by the STF, case against the BJP leader under the National Security Act
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X