সন্ত্রাসবাদের আঁতুরঘর পাকিস্তানে নিষিদ্ধ হতে চলেছে এই অস্ত্র, লাগু হচ্ছে নয়া নিয়ম

  • Posted By:
Subscribe to Oneindia News
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS
For Daily Alerts

    স্বয়ংক্রিয় অস্ত্র এবার নিষিদ্ধ হতে চলেছে সন্ত্রাসের আঁতুরঘর পাকিস্তানে। আগামী বছরের জানুয়ারি থেকেই সেদেশে স্বয়ংক্রিয় যন্ত্রের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি হতে চলেছে। পাকিস্তানের প্রাইমমিনিস্টার শাহিদ খাকন আব্বাসি তাঁর শপথের সময় থেকেই জানিয়েছেন যে তাঁর সরকার কিছুতেই সেদেশে মারণ অস্ত্রকে বৈধতা দেবে না।

    সন্ত্রাসবাদের আঁতুরঘর পাকিস্তানে নিষিদ্ধ হতে চলেছে এই অস্ত্র, লাগু হচ্ছে অস্ত্র সংক্রান্ত নয়া নিয়ম

    পাক প্রাইমিনিস্টারের প্রতিশ্রুতি মতোই স্বয়ংক্রিয় অস্ত্র নিষিদ্ধ হতে চলেছে পাকিস্তানে। পাকিস্তানের নতুন আইনি পদক্ষেপ অনুযায়ী যে সমস্ত স্বয়ংক্রিয় অস্ত্র আপাতত নাগরিকদের কাছে বৈধভাবে রয়েছে, তাকে আধা-স্বয়ংক্রিয় করে দিতে হবে। তা না হলে , ৫০, ০০০ টাকা দিয়ে সারেন্ডার করতে হবে স্বয়ংক্রিয় অস্ত্র।

    ২০১৮ সালের জানুয়ারি মাসের ১৫ তারিখের মধ্যেই এই কাজ করতে হবে বলে নতুন নির্দেশিকায় জানিয়েছে পাকিস্তান সরকার। প্রসঙ্গত, গোটা পাকিস্তান জুড়ে একের পর এক জঙ্গি শিবির ও অপরাধের ঘটনা আগাছার মতো বেড়ে চলায় কার্যত বারুদের স্তূপে পরিণত হয়েছে সেদেশে। আর সেই ভয়াবহতা থেকে দেশকে রক্ষা করতেই পাক প্রাইমমিনিস্টার খাকনের এই নয়া পদক্ষেপ।

    English summary
    Pakistan has suspended licences for all automatic weapons as part of a commitment by Prime Minister Shahid Khaqan Abbasi to ban deadly firearms in the country by January. Abbasi in his inaugural speech in Parliament after assuming office in August had promised that he would outlaw all deadly weapons. An official of interior ministry said the ministry through a notification on November 7 has suspended all licences for automatic weapons.

    Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
    সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.

    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more