পিএনবি-তেই থেমে নেই চোকসির দুর্নীতি, প্রকাশ্যে এবার আরও ৫২৮০ কোটি টাকার দুর্নীতি

Subscribe to Oneindia News

পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্কে ১২ হাজার কোটি টাকার ঋণ দুর্নীতিতে সংবাদ শিরোনামে এসেছেন হিরে ব্যবসায়ী নীরব মোদী ও তার মামা মেহুল চোকসি। দুজনেই এখন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে আত্মগোপন করে রয়েছেন। ভারত সরকার তাদের দেশে ফেরার চেষ্টা চালাচ্ছে। এরই মধ্যে সামনে এল আরও এক দুর্নীতির খবর।

প্রকাশ্যে এবার চোকসির আরও ৫২৮০ কোটি টাকার দুর্নীতি

এবার অভিযোগ, আইসিআইসিআই ব্যাঙ্ক সহ ৩১টি প্রাইভেট ও পাবলিক সেক্টর ব্যাঙ্কের কনসর্টিয়াম চোকসিকে ৫২৮০ কোটি টাকা ঋণ দেয়। এই পরিমাণ টাকাই ঋণখেলাপির অভিযোগ উঠেছে। ঘটনার তদন্তে নেমেছে সিবিআই।

আইসিআইসিআই ব্যাঙ্কের নেতৃত্বে ঋণ দেওয়া হয়েছে। আইসিআইসিআই ব্যাঙ্ক নিজে ঋণ দিয়েছে ৪০৫ কোটি টাকা যা সুদে-আসলে দাঁড়িয়েছে ৭৭৩ কোটি টাকায়। ২০১৬ সালের অক্টোবরে এই ঋণ চোকসিকে দেওয়া হয়। আইসিআইসিআই ছাড়াও কর্পোরেশন ব্যাঙ্ক, ব্যাঙ্ক অব বরোদা, সেন্ট্রাল ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া, দেনা ব্যাঙ্ক, আইডিবিআই সহ একাধিক ব্যাঙ্ক ঋণ দেওয়ায় জড়িয়ে রয়েছে।

সিবিআই জানিয়েছে, পিএনবি-র তরফে ১৫ ফেব্রুয়ারি যে অভিযোগ দায়ের হয়েছিল, তার মধ্যে ধরেই এই ৫২৮০ কোটি টাকার দুর্নীতির তদন্ত চলছে। আলাদা করে মামলা করা হয়নি।

জানা গিয়েছে, মেহুল চোকসি, তার গ্রুপ অব কোম্পানিস, দশজন কোম্পানি ডিরেক্টর ও কয়েকজন অজ্ঞাত ব্যাঙ্ক আধিকারিক মিলে ১৪৩টি লেটার অব আন্ডারটেকিং ও ২২৪টি ফরেন লেটার অব ক্রেডিট ভারতীয় ব্যাঙ্কের বিদেশি শাখা থেকে জোগাড় করে এই ঋণ জালিয়াতি করেছেন।

৫২৮০ কোটি টাকার এই জালিয়াতি করা হয়েছে ৩১টি ব্যাঙ্ক থেকে সম্মিলিতভাবে ঋণ নিয়ে।

প্রসঙ্গত, ধুত গ্রুপের চেয়ারম্যান বেনুগোপাল ধুতকে ৩২৫০ কোটি টাকা ঋণ দিয়ে মাফ করার ঘটনায় ইতিমধ্যে আইসিআইসিআই ব্যাঙ্কের এমডি ছন্দা কোছরের স্বামী দীপক কোছরকে সিবিআই জেরা করেছে। এই ঘটনার পর আর কার কার নাম সামনে আসে সেটাই দেখার।

English summary
CBI probing another Rs 5,280 crore loan taken by Mehul Choksi

Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.