নোট বাতিল ও জিএসটির জেরে ব্যবসায় মন্দা, মোদীর দল শাসিত রাজ্যে আত্মহত্যা

  • Posted By: Dibyendu
Subscribe to Oneindia News

জিএসটি ও নোট বাতিলে ব্যবসায় মন্দার অভিযোগ। সেই অভিযোগেই এক্কেবারে দেরাদুনের বিজেপি সদর দফতরে গিয়ে রাজ্যের মন্ত্রীর সামনেই বিষ খেয়েছিলেন সেই রাজ্যের এক ব্যবসায়ী। মঙ্গলবার তাঁর মৃত্যু হয়েছে।

নোট বাতিল ও জিএসটির জেরে ব্যবসায় মন্দা, মোদীর দল শাসিত রাজ্যে আত্মহত্যা

দেরাদুনে বিজেপি সদর দফতরে 'জনতার দরবার'-এ রাজ্যের মন্ত্রীর সামনেই বিষ খেয়েছিলেন হলদিয়ানির পরিবহণ ব্যবসায়ী প্রকাশ পাণ্ডে। গত সপ্তাহের শেষে এই ঘটনাটি ঘটে। ব্যবসায়ীকে সঙ্গে সঙ্গে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। কিন্তু চিকিৎসকদের ৩ দিনের সমস্ত চেষ্টা ব্যর্থ করে মঙ্গলবার মারা যান বছর ৪৪-এর ওই ব্যবসায়ী।

বিজেপির দফতরে মন্ত্রীর জনতা দরবার। সেখানেই থাকা উত্তরাখণ্ডের কৃষিমন্ত্রী সুবোধ উনিয়ালের সামনে গত শনিবার বিষ খেয়েছিলেন পরিবহণ ব্যবসায়ী প্রকাশ পাণ্ডে। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, ঝড়ের বেগে জনতার দরবার-এ ঢোকেন প্রকাশ। সেই সময় তার চোখে ছিল জল। সেই সময় তিনি জানান, নোটবাতিল ও জিএসটির জেরে তিনি ঋণ শোধ করতে পারছেন না। সেই জন্য তিনি বিষ খেয়েছেন।

ব্যবসায়ী প্রকাশ পাণ্ডের অভিযোগ ছিল, নোট বাতিল ও জিএসটির জেরে তাঁর ঋণের পরিমাণ বেড়েছে। প্রধানমন্ত্রীর দফতরেও তিনি ঋণ মকুবের আবেদন জানিয়েছিলেন। কিন্তু কোনও সাড়া পাননি। সেই জন্য তিনি জীবন শেষ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। মন্ত্রীর সামনেই জনতার দরবার-এ এমনটাই বলেন ব্যবসায়ী। এই সময় কোনও বক্তব্য দেওয়ার মত পরিস্থিতিতে ছিলেন না মন্ত্রী ও তাঁর সাঙ্গোপাঙ্গোরা। ওই ব্যবসায়ী আরও বলেন, পূর্বতন কংগ্রেস সরকার বিজেপির থেকে ভাল ছিল। সরকারের নোট বাতিল এবং জিএসটির জেরেই অর্থনৈতিক ভাবে তিনি বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছেন। একথা বলার পরেই নিজের পকেটে রাখা সাদা পাউডার জাতীয় কিছু মুখে দিয়ে দেন ওই ব্যবসায়ী।

ঘটনাস্থলে উপস্থিত থাকা পুলিশ আধিকারিক সঙ্গে সঙ্গে ওই ব্যবসায়ীকে নিয়ে দুন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ছুটে যান। তাকে আইসিইউতে স্থানান্তরিত করা হয়। এরপর অবস্থার অবনতি হওয়ায় বেসরকারি হাসপাতালে সরানো হয় তাঁকে।

দেরাদুনের চিফ মেডিকেল অফিসার. ওয়াই এস থাপলিয়াল জানিয়েছেন, বিষ খাওয়ার জেরে মাল্টি অর্গান ফেলিওর হয় ব্যবসায়ী প্রকাশ পাণ্ডের। অ্যালুমিনিয়াম ফসফাইড খেয়েছিলেন বলে জানিয়েছিলেন ওই ব্যবসায়ী।

ব্যবসায়ীর পরিবারের তরফে বিষ খেয়ে মৃত্যুর ঘটনায় সরকারকেই দায়ী করা হয়েছে। ব্যবসায়ীর আত্মীয় উমেশ নিলেকানি জানিয়েছেন, তাঁদের পরিবারের সদস্য শুধু নিজেই জীবন শেষ করেননি, সিস্টেম তাঁকে হত্যা করেছে। গত দশকে পাণ্ডের পরিবহণ ব্যবসার টার্নওভাল ছিল প্রায় এককোটি টাকার মতো। টাকা ধার করে নতুন ট্রাক কিনেছিলেন তিনি। কিন্তু নোট বাতিল এবং জিএসটির জেরে তিনি টাকা শোধ করতে পারেননি।

তবে ব্যবসায়ী প্রকাশ পাণ্ডের অবস্থার কথা অজানা ছিল না মন্ত্রী সুবোধ উনিয়ালের। ঋণের টাকা শোধ করতে পারছিলেন না, সেকথা প্রকাশ পাণ্ডে তাঁকে জানিয়েছিলেন। তবে মন্ত্রী সুবোধ উনিয়ালের দাবি, ব্যবসায়ী প্রকাশ পাণ্ডের পদক্ষেপ রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত।

English summary
Trader who took poison at BJP office to protest note ban dies

Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.