• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts
Oneindia App Download

আমার সঙ্গে কথা বলবেন না, লোকসভায় কেন্দ্রীয়মন্ত্রী স্মৃতি ইরানিকে ধমক সোনিয়া গান্ধীর

আমার সঙ্গে কথা বলবেন না, লোকসভায় কেন্দ্রীয়মন্ত্রী স্মৃতি ইরানিকে ধমক সোনিয়া গান্ধীর
Google Oneindia Bengali News

কংগ্রেস সাংসদ অধীর রঞ্জন চৌধুরী দ্রৌপদী মুর্মুকে রাষ্ট্রপত্নী বলে উল্লেখ করেছিলেন। বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই সংসদে ক্ষমতাসীন দলের সাংসদরা বিক্ষোভ দেখান। সেই বিক্ষোভের মধ্যেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানি সোনিয়া গান্ধীর সঙ্গে কথা বলতে যান। তীব্র ভাষায় সোনিয়া গান্ধী তাঁকে বলেন, 'আমার সঙ্গে কথা বলবেন না।'

আমার সঙ্গে কথা বলবেন না

আমার সঙ্গে কথা বলবেন না

সূত্রের খবর, বৃহস্পতিবার অধীর রঞ্জন চৌধুরীর বিতর্কিত মন্তব্যকে ঘিরে উত্তাল হয়ে ওঠে সাংসদ। সেই সময় স্মৃতি ইরানি সহ ক্ষমতাসীন দলের একাধিক সাংসদ ও কেন্দ্রীয় মন্ত্রী দাবি করেন, সোনিয়া গান্ধীকে ক্ষমা চাইতে হবে। সোনিয়া গান্ধী অধীর রঞ্জন চৌধুরীকে এই ধরনের মন্তব্যের জন্য সম্মতি দিয়েছেন। তিনি একজন মহিলাকে অসম্মান করেছেন। বিক্ষোভের জেরে সংসদ মুলতুবি করে দেওয়া হয়। সেই সময় সোনিয়া গান্ধী বিজেপি সাংসদ রমা দেবীর সঙ্গে কথা বলার জন্য এগিয়ে যান। সেই সময় সোনিয়া গান্ধীর সঙ্গে কংগ্রেসের আরও দুই সাংসদ ছিলেন। তিনি রমা দেবীকে বলেন, 'অধীর রঞ্জন চৌধুরী ইতিমধ্যে ক্ষমা চেয়েছেন। ওই ঘটনায় আমার দোষ কী? ' সূত্রের খবর, সেই সময় স্মৃতি ইরানি সেখানে উপস্থিত হন। তিনি বলেন, 'ম্যাডাম আমি কি আপনাকে কোনওভাবে সাহায্য করতে পারি? কারণ এখানে আপনি আমার নাম ব্যবহার করে কথা বলছেন।' সেই সময় ক্ষুব্ধ হয়ে সোনিয়া গান্ধী বলেন, 'আপনি আমার সঙ্গে কথা বলতে আসবেন না।'

সংসদ আপনার পার্টি অফিস নয়

সংসদ আপনার পার্টি অফিস নয়

সংবাদমাধ্যমকে এক কংগ্রেস নেতা দাবি করেছেন, সোনিয়া গান্ধী সংসদে রমা দেবীর সঙ্গে খুব নম্রভাবে কথা বলছিলেন। সেখানেই হঠাৎ করে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানি উপস্থিত হন। অভিযোগ, স্মৃতি ইরানি সোনিয়া গান্ধীর দিকে আঙুল তুলে কথা বলতে শুরু করেন। এই ঘটনায় সোনিয়া গান্ধী ক্ষুব্ধ হয়ে যান। তিনি তীব্র ভাষায় বলেন, 'আপনার এত সাহস হল কী করে? আমার সঙ্গে এই ধরনের ব্যবহার করবেন না। এটা আপনার পার্টি অফিস নয়।'

সোনিয়া গান্ধীর পাশে বিরোধী সাংসদরা

সোনিয়া গান্ধীর পাশে বিরোধী সাংসদরা

সোনিয়া গান্ধী সেই সময় উত্তেজিত হয়ে পড়েন। সেই সময় তাঁকে তৃণমূলের সাংসদ মহুয়া মৈত্র এবং এনসিপির সাংসদ সুপ্রিয়া সুলে বিজেপি সাংসদদের থেকে সরিয়ে নিয়ে যান। পরিস্থিতি সামাল দিতে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রহ্লাদ যোশী আসেন। মহুয়া মৈত্র ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ করেছেন। তিনি বলেন, ক্ষমতাসীন দলের সাংসদরা পরিকল্পনা করে ৭৫ বছরের সাংসদের ওপর আক্রমণ করেছেন। অন্যদিকে, সোনিয়া গান্ধী বলেন, 'আমি বিজেপিকে ভয় পাইনি। আমি শুধু রমা দেবীর সঙ্গে কথা বলতে গিয়েছিলাম। কারণ আমি তাঁকে আগে থেকে চিনি।' প্রসঙ্গত, একটি বক্তব্যবে অধীর রঞ্জন চৌধুরী দ্রৌপদী মুর্মুকে 'রাষ্ট্রপত্নী' বলে উল্লেখ করেন। যার জেরে তীব্র বিতর্কের সৃষ্টি হয়।

সংসদের বর্ষাকালীন অধিবেশন ২০২২, নবম দিন: রাষ্ট্রপতিকে অসম্মান! উভয়কক্ষ শুক্রবার সকাল ১১ টা পর্যন্ত মুলতুবিসংসদের বর্ষাকালীন অধিবেশন ২০২২, নবম দিন: রাষ্ট্রপতিকে অসম্মান! উভয়কক্ষ শুক্রবার সকাল ১১ টা পর্যন্ত মুলতুবি

English summary
Don’t talk to me Sonia Gandhi threatened Union Minister Smriti Irani
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X