ছাত্র বিক্ষোভের পর এবার দুর্নীতি ইস্যুতে বিপাকে বেনারস হিন্দু বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য

  • Posted By:
Subscribe to Oneindia News
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS
For Daily Alerts

    বেনারস হিন্দু বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রী হেনস্থার ঘটনাকে কেন্দ্র করে ছাত্রবিক্ষোভের জেরে ক্রমেই উপাচার্যের অবস্থান নিয়ে নানা বিতর্ক দানা বাঁধছে। এরকম এক পরিস্থিতিতে উপাচার্য গিরিশ চন্দ্র ত্রিপাঠিকে ঘিরে আরেকটি বিতর্ক দানা বাঁধল। এবার তাঁর বিরুদ্ধে বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যাপক নিযুক্তি নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগ উঠছে।

    [আরও পড়ুন:বিএইচইউ-কাণ্ডে ব্যাকফুটে যোগী সরকার, নোটিস পাঠাল মানবাধিকার কমিশন]

    ছাত্র বিক্ষোভের পর এবার দুর্নীতি ইস্যুতে বিপাকে বেনারস হিন্দু বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য

    কেন্দ্রীয় মানব সম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রকের নির্দেশ অনুযায়ী,যে কোনও কেন্দ্রীয় বিশ্ববিদ্যলয়ের উপাচার্য স্থানীয় কেউই ,তাঁর কার্যকালের শেষ ২ মাসের মধ্যে কোনও নিযুক্তির বিষয়ে যুক্ত থাকবেন না। কিন্তু আগামী নভেম্বরে অবসর নিতে চলা বেনারস হিন্দু বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য গিরিশচন্দ্র ত্রিপাঠি এই নির্দেশ অমান্য করেছেন বলে দাবি।

    অভিযোগ, গিরিশচন্দ্র ত্রিপাঠি তাঁর কার্যকালের দু মাস বাকি থাকতে বেশ কিছু অধ্যাপককে নিয়ুক্ত করেন। এঁদের মধ্যে একজনের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ রয়েছে। তাছাড়াও ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের স্যার সুন্দর লাল হাসপাতালের মেডিক্যাল সুপারিন্টেডেন্ট নিয়োগ নিয়েও উপাচার্য দুর্নীতিতে জড়িয়েছেন , এমনই অভিযোগ উঠছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের এক্সিকিউটিভ কাউন্সিলের মিটিং-এ এই বিষয়টি ওঠে। উল্লেখ্য়, এক্সিকিউটিভ কাউন্সিল-ই একমাত্র জায়গা যেখানে বিশ্ববিদ্যালয়ের যাবতীয় সিদ্ধান্ত পাশ হয়। একদিকে ছাত্র বিক্ষোভ অন্যদিকে তাঁর দুর্নীতির একের পর এক অভিযোগ, সবমিলিয়ে এই মুহুর্তে চরম বিপাকে বেনারস হিন্দু বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য।

    English summary
    At the centre of a storm over the protests by women students on his campus, the Vice-Chancellor of Banaras Hindu University (BHU) is caught in another controversy. Barely a day before the government’s freeze on recruitment kicks in given that he is retiring in two months, V-C Girish Chandra Tripathi pushed several faculty appointments, including one of a teacher indicted for sexual harassment

    Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
    সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.

    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more