• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

ছাড় দেওয়া পণ্য কিনলে কোনও ভ্যাট দিতে হবে না

নয়াদিল্লি, ৩ ফেব্রুয়ারি : যে সমস্ত দোকান পণ্য বিক্রির সময়ে ৪০ শতাংশ ছাড় দিচ্ছে তারা ভ্যাট অথবা অন্য কোনও অতিরিক্ত কর পণ্যের দামের উপরে বসাতে পারবে না। এমনটাই জানাল 'দ্য ন্যাশনাল কনজিউমার ডিসপুটস রিড্রেসাল কমিশন'। বলা হয়েছে, পণ্যের গায়ে যে দাম বা এমআরপি লেখা থাকে তাতে সমস্ত কর ও সেস যোগ করাই থাকে।[বাজেট ২০১৭ : আয়কর ছাড় সংক্রান্ত যে সিদ্ধান্তের ঘোষণা করল কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রক]

ফলে কনজিউমার গুডস অ্যাক্টের ২ (ডি) ধার অনুযায়ী তাতে আলাদা করে কোনও ভ্যাট তাতে চাপানো যাবে না।[সাধারণ বাজেট ২০১৭: কর্মসংস্থান নিয়ে কী কী ঘোষণা হল ?]

ছাড় দেওয়া পণ্য কিনলে কোনও ভ্যাট দিতে হবে না

গতমাসে দিল্লি ও চণ্ডীগড়ে উডল্যান্ডস সংস্থার কাছ থেকে ৪০ শতাংশ ছাড়ে একটি জ্যাকেট কেনেন এক গ্রাহক। তাতে ভ্যাট যোগ করা হয়। জ্যাকেটের দাম ছিল ৩৯৯৫ টাকা। সবমিলিয়ে মোট ১১৯.৮৫ টাকা অতিরিক্ত নেওয়া হয়। এই ঘটনার প্রেক্ষিতেই এই নির্দেশ দিয়েছে কমিশন।[Budget 2017 গুরুত্বপূর্ণ অংশগুলি জেনে নিন একনজরে]

বলা হয়েছে, ফ্ল্যাট ডিসকাউন্ট দেওয়ার অর্থ সেই পণ্যটি কম দামে কেনার জন্য গ্রাহককে উৎসাহিত করা। তার উপরে অতিরিক্ত ভ্যাট চাপানো মানে অসৎভাবে ব্যবসায়িক স্বার্থে তা ব্যবহার করা।

এটা জানানোর পরই সেই দোকানটিকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে অতিরিক্ত যে টাকা ভ্যাট হিসাবে নেওয়া হয়েছিল তা ফেরত দিতে। এর পাশাপাশি ক্ষতিপূরণ হিসাবে ২-৫ হাজার টাকা ও আইনি খরচ হিসাবে ১০০০-২৫০০ টাকা মেটানোর নির্দেশও দেওয়া হয়েছে।

lok-sabha-home
English summary
The National Consumer Disputes Redressal Commission has held that shops selling goods at 40% discount cannot charge VAT or any other duty on the discounted price.
For Daily Alerts

Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.

Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X
We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more