প্রাক্তন ও বর্তমান মুখ্যমন্ত্রীর ঠিকানায় দুই সন্দেহভাজন, নিরাপত্তারক্ষীর গুলিতে খতম ১

Subscribe to Oneindia News
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS
For Daily Alerts

    একই দিনে দেশের দুই প্রান্তে এক প্রাক্তন ও এক বর্তমান মুখ্যমন্ত্রীর বাড়িতে হামলা চালাল দুই ব্যক্তি। কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ফারুক আবদুল্লার বাড়িতে একটি গাড়ি নিয়ে জোর করে ঢুকে নির্বিচারে ভাঙচুর চালায় একজন। তাকে গুলি করে হত্যা করে নিরাপত্তারক্ষীরা। আবার দিল্লির কেরল হাউসে ছুরি হাতে হামলা চালায় অপর এক ব্যক্তি। পুলিশের দাবি সে মানসিক ভারসাম্যহীন। তার চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

    দেশের দুই প্রান্তে দুই মুখ্যমন্ত্রীর বাড়িতে হামলা

    শনিবার সকালে ফারুক আবদুল্লার ভাতিন্দির বাড়িতে হঠাতই এক ব্যক্তি তীব্র গতিতে গাড়ি চালিয়ে ধাক্কা মারে দরজায়। বাসভবনের বাগানে এসে সে গাড়ি থেকে নেমে বাড়ির ভেতরে ঢুকে পড়ে। হাতের কাছে যা পায়, তাই ভাঙচুর করতে শুরু করে। এরপর সিঁড়ি দিয়ে উপরে শোয়ার ঘরের দিকে এগোতে গেলে নিরাপত্তারক্ষীরা তাকে গুলি করে হত্যা করে।

    পুলিশ জানিয়েছে ওই ব্যক্তির নাম মুরতাজ। সে জম্মু-কাশ্মীরের পুঞ্চ জেলার মেন্ধরের বাসিন্দা। জম্মুর বান-তালাবে তার বাবার একটি বন্দুক তৈরির কারখানা আছে। তবে ফারুক আবদুল্লা জম্মু-কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তথা বর্তমান সাংসদ। জেড প্লাস ক্যাটাগরির নিরাপত্তা পান। সেই নিরাপত্তা বেষ্টনী ভেঙে তিনি কিকরে ফারুক আবদুল্লার বাড়ির অন্দর পর্যন্ত পৌঁছে গেলেন তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। এছাড়া মুরতাজের বাবার প্রশ্ন কেন তাঁর ছেলেকে মেরে ফেলতে হল, কেন আটক করা হল না?

    ঘটনার সময় অবশ্য বাড়িতে ছিলেন না বর্ষীয়ান সাংসদ ফারুক আবদুল্লা। সংসদের বাদল অধিবেশন চলছে। অধিবেশনে অংশ নিতে তিনি এখন দিল্লিতে আছেন। তবে তাঁর পুত্র ওমর আবদুল্লা ঘটনার কথা স্বীকার করে একটি টুইট করেছেন।

    এদিকে দিল্লিতেই কেরল ভবনে কেরলের মুখ্য়মন্ত্রী পিনারাই বিজয়নের সঙ্গে দেখা করবেন বলে খোলা ছুরি হাতে ঢুকে পড়েন অপর এক ব্যক্তি। ওই ব্যক্তি দাবি করতে থাকেন দার্ঘদিন ধরে চেষ্টা চালিয়েও তিনি মুখ্যমন্ত্রীর সাক্ষাত পাননি। অনেক উপরতলা পর্যন্ত দৌড়াদৌড়ি করেও লাভ হয়নি। হাতের ছুরি বাগিয়ে ধরে তিনি শাসাতে থাকেন বিজয়নের সঙ্গে দেখা না করে তিনি যাবেন না।

    সেসময় বিজয়ন কেরল ভবনের ভিতরেই ছিলেন। হুড়োহুড়ি পড়ে যায় উপস্থিত সাংবাদিক ও নিরাপত্তাকর্মীদের মধ্যে। খানিকক্ষণের মধ্যেই অবশ্য তাকে কাবু করে ফেলে নিরাপত্তারক্ষীরা। পুলিশ জানিয়েছে ওই ব্যক্তির মানসিক সমস্যা রয়েছে। আটকের পর তাকে ইনস্টিটিউট অব হিউম্যান বিহেভিয়ার অ্যান্ড অ্যালায়েড সায়েন্সেস-এ পাঠানো হয়েছে।

    English summary
    A man tried to enter ex Jammu Kashmir Chief Minister Farooq Abdullah's house forcefully by car. He was later shot dead by the security personnel. Another man with a mental disbalance went into the Kerala house at Delhi with an open knife. He claimed to meet Chief Minister of Kerala.

    Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
    সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.

    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more