• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

(ছবি) মার্কিন নির্বাচন নিয়ে এই মজার অথচ গুরুত্বপূর্ণ তথ্যগুলি আপনি নিশ্চিত জানেন না

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র পৃথিবীর সবচেয়ে শক্তিশালী দেশ। ভারতের পরে পৃথিবীর সর্ববৃহত গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত হয়েছে এইদেশেই। এটি পৃথিবীর সবচেয়ে প্রাচীন গণতন্ত্রগুলির একটিও বটে। এহেন দেশে মঙ্গলবার জানা যাবে কে হতে চলেছেন সেদেশের ৪৫তম রাষ্ট্রপতি। বর্তমান রাষ্ট্রপতি বারাক ওবামা ২০০৮ সালে প্রথমবার হোয়াইট হাউসের দখল নেন। তিনিই প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ মার্কিন রাষ্ট্রপতি হিসাবে রেকর্ড করেন। এবার তাঁর উত্তরসূরী হিলারি ক্লিন্টন জিতলে তিনি প্রথম মহিলা রাষ্ট্রপতি হিসাবে জিতে রেকর্ড করবেন।

মার্কিন নির্বাচনে উপ-রাষ্ট্রপতি পদে লড়াই করছেন কারা? জেনে নিন

মার্কিন রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে ট্রাম্প-হিলারি ছাড়া আর কে কে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন?

মার্কিন রাষ্ট্রপতি হতে গেলে কী যোগ্যতা থাকতে হবে? প্রার্থীকে ন্যূনতম ৩৫ বছর বয়সী হতে হবে। পাকাপাকিভাবে মার্কিন মুলুকের বাসিন্দা হতে হবে টানা ১৪ বছর। আর তাছাড়া নাগরিকত্ব পাওয়া ব্যক্তি নয়, জন্মসূত্রে মার্কিন, এমন নাগরিকই মার্কিন রাষ্ট্রপতি পদে আসীন হতে পারবেন। এতো গেল সাধারণ কিছু তথ্য। নিচে দেখে নিন এমন কিছু তথ্য যা মার্কিন রাষ্ট্রপতি নির্বাচন সম্পর্কে অনেকেই জানেন না।

দীর্ঘকায় মার্কিন রাষ্ট্রপতি

দীর্ঘকায় মার্কিন রাষ্ট্রপতি

সবচেয়ে দীর্ঘকায় মার্কিন রাষ্ট্রপতি ছিলেন এব্রাহাম লিঙ্কন। তিনি ৬ ফুট ৪ ইঞ্চি লম্বা ছিলেন। এবার ট্রাম্প জিতলে তিনি হবেন দ্বিতীয় দীর্ঘকায় রাষ্ট্রপতি। কারণ তাঁর উচ্চতা ৬ ফুট ৩ ইঞ্চি।

কেনেডি সবচেয়ে কমবয়সে রাষ্ট্রপতি হন

কেনেডি সবচেয়ে কমবয়সে রাষ্ট্রপতি হন

বিখ্যাত প্রাক্তন মার্কিন রাষ্ট্রপতি জন এফ কেনেডি সবচেয়ে কম, মাত্র ৪৩ বছর বয়সে রাষ্ট্রপতির চেয়ারে বসেন।

হিলারি ক্লিন্টনই প্রথম

হিলারি ক্লিন্টনই প্রথম

কোনও মেজর পার্টি থেকে রাষ্ট্রপতি পদের জন্য নমিনেশন পেয়েছেন এমন মহিলা প্রার্থী হিলারি ক্লিন্টনই প্রথম। তবে এর আগে ১৮৭২ সালে ভিক্টোরিয়া উডহ্যাল, যিনি সাফ্রাগেট আন্দোলনের নেত্রী ছিলেন, তিনি মহিলা রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী হয়েছিলেন।

ট্রাম্পই সবচেয়ে বয়স্ক!

ট্রাম্পই সবচেয়ে বয়স্ক!

এবছর নির্বাচনে জিতলে ডোনাল্ড ট্রাম্পই সবচেয়ে বয়স্ক ব্যক্তি হিসাবে প্রথমবার মার্কিন রাষ্ট্রপতির চেয়ারে বসবেন। এর আগে রোনাল্ড রেগন ৬৯ বছর বয়সে মার্কিন রাষ্ট্রপতি হন। তবে দ্বিতীয়বার জয়ী হওয়ার সময়ে অবশ্য তাঁর বয়স হয়েছিল ৭৩।

রোনাল্ড রেগন প্রথম ডিভোর্সী মার্কিন রাষ্ট্রপতি

রোনাল্ড রেগন প্রথম ডিভোর্সী মার্কিন রাষ্ট্রপতি

মার্কিন রাষ্ট্রপতি পদে এর আগে একমাত্র রোনাল্ড রেগন ডিভোর্সী হিসাবে জয়লাভ করেছেন। এবার জিতলে ডোনাল্ড ট্রাম্প সেই রেকর্ড স্পর্শ করবেন। যদিও ট্রাম্প এই মুহূর্তে বিবাহিত। তাঁর স্ত্রীর নাম মেলানিয়া। তবে এর আগে দু'বার তাঁর ডিভোর্স হয়ে গিয়েছে।

অতীতের রেকর্ড

অতীতের রেকর্ড

এর আগে মোট দুজন মার্কিন রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে ৫০টির মধ্যে ৪৯টি প্রদেশ থেকে জয়ী হয়েছেন। ১৯৮৪ সালে রোনাল্ড রেগন ও রিচার্ড নিক্সন ১৯৭২ সালে এই রেকর্ড করেছেন।

উলটপুরাণ

উলটপুরাণ

এর আগে মোট চারবার কোনও প্রার্থী পপুলার ভোটে জিতেও রাষ্ট্রপতি হতে পারেননি। ২০০০ সালে জর্জ ডব্লিউ বুশ ও আল গোরের মধ্যে শেষবার এমন ঘটনা ঘটেছে। এর আগে ১৮৮৮ সালে গ্রোভার ক্লিভল্যান্ড, ১৮৭৬ সালে স্যামুয়েল টিলডেন ও ১৮২৪ সালে অ্যান্ড্রু জ্যাকসনের সঙ্গে এমন ঘটনা ঘটেছে।

ওবামা ৪৩ নয় ৪৪তম রাষ্ট্রপতি

ওবামা ৪৩ নয় ৪৪তম রাষ্ট্রপতি

মার্কিন রাষ্ট্রপতি হিসাবে ক্লিভল্যান্ড পরপর দুবার অর্থাত ১৮৮৫-১৮৮৯ ও ১৮৯৩-১৮৯৭ সালে জিতেছেন। তবে তাকে ২২ ও ২৪ তম রাষ্ট্রপতি হিসাবে আখ্যা দেওয়া হয়েছে। সেজন্যই নিয়মানুযায়ী বারাক ওবামা ৪৪তম রাষ্ট্রপতি হিসাবে শপথগ্রহণ করেছেন এবং এবছর যিনি জিতবেন তিনি ৪৫তম মার্কিন রাষ্ট্রপতি হবেন।

টুইটার অ্যাকাউন্ট

টুইটার অ্যাকাউন্ট

মার্কিন রাষ্ট্রপতির জন্য আলাদা করে একটি টুইটার অ্যাকাউন্ট খোলা হয় ২০১৫ সালে। নাম হল @POTUS। এটি থেকে বারাক ওবামা প্রথম টুইটটি করেন। এবার যিনি রাষ্ট্রপতি হবেন তিনি ২০ জানুয়ারি থেকে এই টুইটার অ্যাকাউন্টটি ব্যবহার করতে পারবেন। তবে ফলোয়ার একই থাকলেও টাইমলাইনে পুরনো কোনও টুইট থাকবে না। যা টুইট থাকবে তা নতুন রাষ্ট্রপতির আমলের।

জনপ্রিয় টিভি বিতর্ক

জনপ্রিয় টিভি বিতর্ক

এবারের নির্বাচনে হিলারি ক্লিন্টন বনাম ডোনাল্ড ট্রাম্প দ্বৈরথ প্রথম থেকেই জমে উঠেছে। মোট তিনবার দুজনে টিভি বিতর্কে অংশগ্রহণ করেছেন এবং প্রতিবারই তা জনপ্রিয় হয়েছে। সবমিলিয়ে মোট ৮ কোটি ৪০ লক্ষ লোক এই টিভি বিতর্ক প্রত্যক্ষ করেছেন।

ওহাইয়ো কাঁটা

ওহাইয়ো কাঁটা

১৯৪৪ সালের পর থেকে যতবার মার্কিন নির্বাচন হয়েছে প্রতিবারই জয়ী প্রার্থীদের ভোট করেছে ওহাইয়ো। ব্যতিক্রম শুধু ১৯৬০ সালের নির্বাচন। সেবার জন এফ কেনেডি জিতলেও ওহাইয়ো ভোট করেছিল নিক্সনের পক্ষ্যে। এছাড়া আর একটি চমকপ্রদ তথ্য হল যে ওহাইয়ো না জিতে কোনও রিপাবলিকান প্রার্থী মার্কিন রাষ্ট্রপতি হতে পারেননি।

More us presidential election 2016 NewsView All

English summary
Facts About US Presidential Election 2016, You Probably Don't Know
For Daily Alerts

Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.

Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X
We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more