• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

Exclusive সৌরভের লর্ডস শতরানের ২৫ বছর! প্রথমে টিভি-ই দেখেননি সম্বরণ

Google Oneindia Bengali News

আজ ২২ জুন। ১৯৯৬ সালের আজকের দিনটিতেই ইংল্যান্ডের ডমিনিক কর্ককে মহারাজকীয় কভার ড্রাইভে বাউন্ডারিতে পাঠিয়ে বাঙালির জয়ধ্বজা লর্ডসে উড়িয়েছিলেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। অস্ট্রেলিয়া সফরের তিক্ত অভিজ্ঞতার পরও অদম্য মনোভাব আর কঠোর পরিশ্রম, ক্রিকেটীয় সাধনার পুরস্কার ক্রিকেটের মক্কায় ঐতিহাসিক টেস্ট শতরান, তাও আবার অভিষেকেই। ঘরোয়া ক্রিকেটে নিয়মিত ভালো পারফরম্যান্স করে যাওয়া সৌরভকে অবশ্য ইংল্যান্ডের দলে জায়গা করে দিতে প্রবল বিরোধিতার মুখে পড়তে হয়েছিল পূর্বাঞ্চল থেকে তৎকালীন জাতীয় নির্বাচক সম্বরণ বন্দ্যোপাধ্যায়কে।

দিল্লিতে দল নির্বাচন

দিল্লিতে দল নির্বাচন

সম্বরণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের কথায়, সৌরভের লর্ডসে টেস্ট অভিষেক, ঐতিহাসিক শতরান সব কিছুই এই সেদিনের ঘটনা বলে মনে হয়। এই বিশেষ দিনটিতে অনুভূতির কথা ওয়ানইন্ডিয়া বাংলার সঙ্গে ভাগ করে নিলেন সম্বরণ। কথায় কথায় উঠে এল দিল্লিতে দল নির্বাচনের বৈঠকের বিষয়টিও। সম্বরণ বললেন, ১৯৯৬ সালের ২৩ এপ্রিল ইংল্যান্ড সফরের দল নির্বাচনের বৈঠক ছিল দিল্লির তাজ প্যালেস। সে এক বিরাট ঘটনা। জাতীয় নির্বাচকমণ্ডলীর চেয়ারম্যান ছিলেন গুন্ডাপ্পা বিশ্বনাথ। কোচ সন্দীপ পাটিল, অধিনায়ক মহম্মদ আজহারউদ্দিন ছাড়াও অংশুমান গায়কোয়াড়-সহ নির্বাচকরা ছিলেন। সকাল ১১টায় শুরু হয়েছিল দল নির্বাচনের বৈঠক। ঠিক ছিল সাংবাদিক সম্মেলন হবে বেলা দেড়টায়। কিন্তু বৈঠক শেষ হয়েছিল প্রায় পাঁচটার সময়। যুদ্ধ, ডিবেট যা-ই বলুন তা হয়েছিল একটা নাম একটা নাম নিয়েই। সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়।

প্রবল বিরোধিতা

প্রবল বিরোধিতা

সৌরভকে দলে নেওয়ার ক্ষেত্রে সবচেয়ে বিরোধিতা এসেছিল কোচ সন্দীপ পাটিলের দিক থেকে। সৌরভকে অনেকেই সুযোগ দিতে চাইছিলেন না। শেষমেশ অবশ্য সৌরভ ইংল্যান্ডের দলে ঢোকে। দল নির্বাচনের বৈঠক থেকে বেরিয়ে সন্দীপ-সহ কয়েকজন আমাকে এমনটাও বলেছিলেন, এবার আমাদের খাওয়াতে হবে! আমি সন্দীপ, অংশুমান, আজহারদের বলেছিলাম, নিশ্চয়ই খাওয়াব। এমন একজন ক্রিকেটারকে আজ দিলাম যে ভারতীয় ক্রিকেটে অনেক দিন থাকবে। বাকিটা তো ইতিহাস।

সেই দিনটায়

সেই দিনটায়

২৫ বছর আগের দিনটা কেমনভাবে কাটিয়েছিলেন সেটা জানতে চাওয়ায় সম্বরণ বন্দ্যোপাধ্যায় বললেন, আতঙ্ক কিংবা টেনশনে সেদিন আমি টিভিতে প্রথম চোখ রাখিনি। আমার ছেলে খেলা দেখছিল। ও যখন জানাল সৌরভ ৪০ পেরিয়ে গিয়েছেন তখন হাঁফ ছেড়ে বাঁচলাম। নিজেকে বললাম, যাক ফেল করেনি। তারপর তো সেঞ্চুরি। বাকিটা ইতিহাস।

মহারাজকীয় শতরানের ২৫ বছর

মহারাজকীয় শতরানের ২৫ বছর

২৫ বছর পেরিয়ে এসে আজ সম্বরণ বললেন, ২৫ বছর দীর্ঘ সময়। কিছু বিষয়, কিছু পারফরম্যান্স থাকে যেগুলি অমলিন হয়ে থাকে। সারা জীবনের জন্য মনে গেঁথে থাকে। লর্ডসের সেই ইনিংস, শতরান তেমনই একটি। আমরা আতঙ্কে ছিলাম, টেনশনে ছিলাম। কীভাবে তখন সময় কেটেছে তা আমিই জানি। আবার বলছি, এই মনে হয় সেদিনের ঘটনা। এই কীর্তি অমর কীর্তি। যতদিন ক্রিকেট থাকবে এটাও থেকে যাবে।

(ছবি- ইউটিউব, সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের সোশ্যাল মিডিয়া)

জীবনসঙ্গী খুঁজছেন? বাঙ্গালী ম্যাট্রিমনি - নিবন্ধন নিখরচায়!

English summary
Sourav Ganguly Completes 25 Years of Lord's Century. Former Indian Selector Sambaran Banerjee Remembers The Special Day.
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X