• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

ভয়ে দেশে ফিরছেন না ইরানের একজন নারী বক্সার

  • By Bbc Bengali
ফ্রান্সে একটি বক্সিং প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ শেষে নিজ দেশে ফিরতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন সাদাফ খাদেম
Reuters
ফ্রান্সে একটি বক্সিং প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ শেষে নিজ দেশে ফিরতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন সাদাফ খাদেম

প্রথম ইরানি কোনো নারী বক্সার হিসেবে ফ্রান্সে একটি অফিশিয়াল বক্সিং প্রতিযোগিতা শেষে নিজ দেশে ফিরতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন সাদাফ খাদেম।

গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি হয়েছে এমন খবর পেয়ে এই সিদ্ধান্ত কথা জানান সেই বক্সার। ইরানের বাধ্যতামূলক পোশাক না পরার কারণে এমন হতে পারে বলে মিজ খাদেমের ধারনা।

শনিবার এক অপেশাদার প্রতিযোগিতায় ফরাসি বক্সার এনি চৌভিনকে হারান সাদাফ খাদেম।

এ সপ্তাহেই তিনি তার ফরাসী-ইরানী প্রশিক্ষকের সাথে তেহরানে ফেরার পরিকল্পনা করেছিলেন।

একটি ক্রীড়া সংবাদপত্রের খবরের সূত্রের বরাত দিয়ে মিজ খাদেম বলেন, তার ধারনা ভেস্ট ও শর্টস পরে বক্সিংএ অংশ নিয়ে সে ইরানের পোশাক পরার বাধ্যবাধকতা লঙ্ঘনের অভিযোগে অভিযুক্ত হয়েছেন।

ইরান কর্তৃপক্ষ এ নিয়ে অবশ্য কোনো মন্তব্য করেননি, তবে দেশে ফিরলে খাদেম কে গ্রেপ্তার করা হবে এ বিষয়ে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন ইরান বক্সিং ফেডারেশনের প্রধান।

হোসেন সুরি বলেন, "মিজ. খাদেম ইরানের বক্সিং-এর জন্যে আয়োজিত অ্যাথলেটদের সদস্য নন, এছাড়া বক্সিং ফেডারেশনের দৃষ্টিকোণ থেকে তার সমস্ত কার্যকলাপ ব্যক্তিগত।"

শনিবারের প্রতিযোগিতায় খাদেমের পরনে ইরানের জাতীয় পতাকার রং-এর সাথে মিলিয়ে ছিল সবুজ ভেস্ট ও লাল শর্টস এবং সাদা কোমরবন্ধ।

ফ্রান্সের শহর রয়ানে হয় ম্যাচটি। নিজ দেশের ক্রীড়া কর্তৃপক্ষের সমর্থন না থাকার পরও দেশের বাইরে প্রতিযোগিতায় আসা যথেষ্ট চ্যালেঞ্জের ছিল ২৪ বছর বয়সী এই বক্সারের জন্যে।

খাদেম আশা করেছিলেনে যখন দেশে ফিরবেন তখন বীরোচিত সম্বর্ধনা পাবেন।

নুসরাত হত্যা: পুলিশের গাফিলতির তদন্ত শুরু

যেভাবে শপথ নিয়েছিল ১৯৭১'এর মুজিবনগর সরকার

ফেসবুকে নারীদের মত প্রকাশ কতটা নিরাপদ?

এতো বেশি অযোগ্য পুরুষ নেতৃত্বে আসে কীভাবে?

খাদেম আশা করেছিলেনে যখন দেশে ফিরবেন তখন বীরোচিত সম্বর্ধনা পাবেন।
AFP
খাদেম আশা করেছিলেনে যখন দেশে ফিরবেন তখন বীরোচিত সম্বর্ধনা পাবেন।

কিন্তু প্যারিসের শার্স দ্য গ্যল বিমান বন্দরে এসে তিনি জানান, তাদের বিরুদ্ধে গ্রফতারি পরোয়ানা জারি হয়েছে। খাদেমের সাথে ছিলেন তার প্রশিক্ষক মাহয়ার মনসুর, যিনি ইরানে জন্মগ্রহণকারী বিশ্ব বক্সিং এসোসিয়েশন চ্যাম্পিয়ন এবং ফরাসি ক্রীড়া মন্ত্রীর একজন উপদেষ্টা।

একটি সংবাদপত্রকে দেয়া সাক্ষাৎকারে মিজ খাদেম বলেন, "ফ্রান্সে আমি একটি অনুমোদিত প্রতিযোগিতাতেই অংশ নেই। কিন্তু আমার পরনে ছিল ছোট প্যান্ট এবং টি-শার্ট, যা কিনা পুরো বিশ্বের চোখে স্বাভাবিক হলেও আমার নিজের দেশের নিয়মকে সেটি অসন্তুষ্ট করেছিল।"

"আমি কোনো হিজাব পরিনি, একজন পুরুষ আমাকে প্রশিক্ষণ দিয়েছে- কেউ কেউ এটি ভালো চোখে দেখেনি।"

প্যারিসে ইরানের দূতাবাসের মুখপাত্র খাদেমের ইরানে না ফেরার সিদ্ধান্ত বা তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির বিষয়ে কোনো মন্তব্য করেনি সংবাদ সংস্থা রয়টার্সের কাছে।

ইরানের আইন অনুযায়ী নয় বছরের ঊর্ধ্বে কোনো নারীকে যদি জনসম্মুখে মাথায় আবৃত কোনো কাপড় ছাড়া দেখা যায়, তবে ১০ দিন থেকে দুই মাসের জেল বা জরিমানার শাস্তি বিধান রয়েছে।

দেশটির নারী খেলোয়াড়দের চুল, ঘাড়, বাহু এবং পা পুরোপুরি ঢেকে রাখার নিয়ম।

সাম্প্রতিক সময়ের আগে পর্যন্ত, খাদেম অফিশিয়াল বক্সিং ম্যাচে হিজাব এবং পুরো শরীর ঢেকে রাখে এমন পোশাক ছাড়া অংশ নেবার অনুমতিই পেত না। কিন্তু আন্তর্জাতিক বক্সিং এসোসিয়েশন-এর অপেশাদার বক্সিং-এর গভর্নিং বডি এই পোশাকের নিয়ম শিথিল করে গত ফেব্রুয়ারির শেষের দিকে এসে।

lok-sabha-home
BBC
English summary
A female boxer from Iran is not returning from fear

Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.

Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X