• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

উত্তর প্রদেশের ভোটে কীভাবে মানা হবে কোভিড বিধি? কী জানাল কমিশন

Google Oneindia Bengali News

করোনা সংক্রমণের মধ্যেই হবে ৫ রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচন। আগের বারের থেকে শিক্ষা নিয়ে আগে থেকেই কোভিড প্রোটোকল নিয়ে কড়া সিদ্ধান্ত নিয়েছে নির্বাচন কমিশন। বিশেষ করে উত্তর প্রদেশের মত বড় রাজ্যের পরিস্থিতি খতিয়ে েদখার পর একাধিক নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে কমিশনের পক্ষ থেকে। ভোট ঠিক কবে হবে তা এখনও স্পষ্ট করে না জানালও করোনার জন্য যে ভোটের দিনক্ষণ পরিবর্তন করা হবে না তা নিশ্চিত করে দিয়েছেন মুখ্য নির্বাচনী আধিকারীক সুশীল কুমার।

করোনার মাঝেই ভোট

করোনার মাঝেই ভোট

করোনা পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে ভোট পিছিয় দেওয়ার আর্জি জানিয়েছিল বিভিন্ন মহল। কারণ গত ৫ রাজ্যের বিধানসভা ভোটের পরেই গোটা দেশে করোনার ভয়াবহ সেকেন্ড ওয়েভ থাবা বসিয়েছিল। তাতে অসংখ্য মানুষের মৃত্যু হয়েছে। তারপরেই দেশের এই পরিস্থিতির জন্য নির্বাচন কমিশনকে কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়েছিল মাদ্রাজ হাইকোর্ট। তারপরেই পরবর্তী ৫ রাজ্যের বিধানসভা ভোট নিয়ে তৎপর হয় মোদী সরকার। কিন্তু তার আগেই দেশের হাজির হয়ে গিয়েছে ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্টের সংক্রমণ। সেকারণেই আরও ৫ রাজ্যের বিধানসভা ভোট নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছিল। শেষ পর্যন্ত করোনার মধ্যেই ভোট হবে ইঙ্গিত দিয়ে দিয়েছে নির্বাচন কমিশন।

ভোট তৎপরতা শুরু

ভোট তৎপরতা শুরু

ইতিমধ্যেই ভোটমুখী ৫ রাজ্যে প্রচারে শান দিয়েছে রাজনৈতিক দলগুলি। প্রতিদিনই চলছে মিটিং মিছিল। তাতে হাজার হাজার মানুষের জমায়েত হচ্ছে। ভিড় বাড়িয়ে শক্তি প্রদর্শন করছে একের পর এক রাজনৈতিক দলগুলি। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী থেকে শুরু করে উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। সমাজবাদী পার্টি নেতা অখিলেশ যাদব। সকলেই একের পর এক জনসমাবেশ, ব়্যালি করে চলেছেন। তার মধ্যেই আবার দেশে কড় নাড়ছে করোনা ভাইরাসের থার্ড ওয়েভ। একের পর এক মিটিং মিছিলে জমায়েত বাড়লে করোনা সংক্রমণ আরও বাড়বে তাতে কোনও সন্দেহ নেই। কিন্তু কোনও রাজনৈতিক দলই ভোট পিছোতে রাজি নয় বলে জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন।

মিটিং মিছিলে নজরদারি

মিটিং মিছিলে নজরদারি

করোনা সংক্রমণের কথা মাথায় রেখে উত্তর প্রদেশের ভোটের একাধিক কোভিড বিধি জারি করেছে নির্বাচন কমিশন। মিটিং-মিছিলেন জমায়েত যাতে বেশি না হয় তার জন্য নজরদারি চালানো হবে বলে জানানো হয়েছে। সেইসঙ্গে ভোট কর্মীদের দুটি করোনা টিকাকরণ সুনিশ্চিত করতে হবে। এমনকী পুলিশ কর্মী এবং যে বাহিনী মোতায়েন থাকবে ভোটের সময় তাঁদেরও করোনা টিকাকরণ সুনিশ্চিত করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সেই সঙ্গে বাইরের রাজ্য থেকে যাতে লোক প্রবেশ করতে না পারে তার জন্য জেলা শাসকদের সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে।

বাড়ানো হয়েছে বুথের সংখ্যা

বাড়ানো হয়েছে বুথের সংখ্যা

করোনা সংক্রমণের কারণে বুথে বেশি ভোটার নিয়ে ভোটদান প্রক্রিয়া করা হবে না। বুথে বুথে কোভিড বিধি মেনে ভোট দান করতে হবে ভোটারদের। মাস্ক এবং স্যানিটাইজার বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। সেই সঙ্গে নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে। সব বুথগুলি পর্যাপ্ত পরিমানে স্যানিটাইজ করতে হবে। ভোটারদের ভিড় যাতে বেশি না হয় সেকারণে বুথের সংখ্যা বাড়ানো হয়েছে। উত্তর প্রদেশে ১১ হাজার বুথের সংখ্যা বাড়ানো হয়েছে। সেই সঙ্গে ৮০০টি বুথ মহিলা পরিচালিক করা হবে বলে জানানো হয়েছে। প্রবীণরা চাইলে বাড়িতেই ভোট দিতে পারেন। তাঁর জন্য পোস্টা ব্যালটের সুযোগ দেওয়া হবে। তবে তারজন্য আগে থেকে আবেদন জানাতে হবে নির্বাচন কমিশনকে। কোভিড রোগীরাও বাড়িতে বসে ভোট দিতে পারবেন।

English summary
Covid protocal for election commission
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X
Desktop Bottom Promotion