• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

জেএনইউ চত্বরে কাশ্মীরের স্বাধীনতার দাবিতে বিতর্কিত পোস্টার

নয়াদিল্লি, ৩ মার্চ : ফের একবার বিতর্কে দিল্লির জহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয় বা জেএনইউ। কাশ্মীরের স্বাধীনতার দাবিতে পোস্টার পড়ল বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে। তাই নিয়ে ক্রমেই ঘনীভূত হচ্ছে বিতর্ক।

জহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরের সমাজবিজ্ঞান বিষয়ক বিভাগের একটি দেওয়ালে বিতর্কিত এই পোস্টার দেখতে পান কয়েকজন পড়ুয়া। তারপরই বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি জানালে তড়িঘড়ি ব্যবস্থা নেয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। পোস্টার গুলিতে সরিয়ে ফেলার নির্দেশ দেওয়া হয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের তরফে।

জেএনইউ চত্বরে কাশ্মীরের স্বাধীনতার দাবিতে বিতর্কিত পোস্টার

পোস্টারে লেখা থাকে ,"কাশ্মীরের স্বাধীনতা চাই! প্যালেস্টাইনকে মুক্ত করা হোক! আত্ম-নির্ধারণের অধিকার দীর্ঘজীবী হোক!" উগ্র-বামপন্থী সংগঠন ডিএসইউএর তরফে এই পোস্টার পড়ে বলে খবর। গত ২-৩ দিন ধরে এই পোস্টার বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে দেখা যাচ্ছিল বলে খবর।

প্রসঙ্গত,পার্লামেন্ট হামলার অন্যতম চক্রী মৃত আফজাল গুরুর ফাঁসির বিরোধিতা করে গতবছরই বিতর্কের কেন্দ্রবিন্দুতে আসে জহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিএসইউ বা ডেমোক্রেটিক স্টুডেন্ট ইউনিয়নের সদস্যরা। এদের মধ্যে অন্যতম উমর খালিদ, অনির্বান ভট্টাচার্য। তাদের সমর্থনে আসে আরেক বামপন্থী সংগঠন এআইএসফ। এআইএসফ সংগঠনের নেতা কানহাইয়া কুমারও সেসময়ে বিতর্কে কেন্দ্রবিন্দুতে পড়ে যায়। গ্রেফতার করা হয় কানহাইয়া সহ উমর খালিদ, অনির্বান ভট্টাচার্যকে। পরে যদিও তাদের বেলে ছেড়ে দেওয়া হয়।

English summary
A poster calling for freedom for Kashmir had the Jawaharlal Nehru University administration in a tizzy on Thursday. The solitary poster was noticed by some students on the wall of the School of Social Sciences' new block, after which they alerted the varsity administration.
For Daily Alerts
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X
We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more