Oneindia থেকে ব্রেকিং নিউজের আপডেট পেতে

সারাদিন ধরে চটজলটি নিউজ আপডেট পান

You can manage them any time in browser settings

দিলীপের গাড়ি আটকাল তৃণমূল, রণে ভঙ্গ দিয়ে কার দিকে আঙুল তুললেন তিনি

Subscribe to Oneindia News

পাহাড়ের পর এবার কোচবিহারে বাধার মুখে বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। স্থানীয় তৃণমূল কর্মীরা তাঁর গাড়ি আটকে বাধা দেয়। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়লে পুলিশ দিলীপ ঘোষের পথ আটকে দেয়, তাঁকে ফিরে যেতে আর্জি জানায়। বাধ্য হয়েই কর্মসূচি বাতিল করে জেলা কার্যালয়ে ফিরে যান বিজেপি রাজ্য সভাপতি।

দিলীপের গাড়ি আটকাল তৃণমূল, রণে ভঙ্গ দিয়ে কার দিকে আঙুল তুললেন তিনি

[আরও পড়ুন:বুদ্ধ-জ্যোতিবাবুরা যা পারেননি অবলীলায় তা করে দেখালেন মমতা, স্বপ্নপূরণের অপেক্ষায় বাংলা]

কোচবিহারের বিভিন্ন প্রান্তে বিজেপি কর্মীরা বাধার মুখে পড়ছেন বলে অভিযোগ উঠেছিল। সেই অভিযোগের প্রেক্ষিতেই আক্রান্ত বিজেপি কর্মীদের সঙ্গে দেখা করতে যাচ্ছিলেন দিলীপবাবু। মাথাভাঙা ও শীতলকুচি যাওয়ার পথে বুধবার কোচবিহারের হরিণচওড়াতে তাঁর পথ আটকে বিক্ষোভ দেখান তৃণমূল কংগ্রেসকর্মীরা। অভিযোগ, উত্তেজনা ছড়াতে বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ এলাকায় যাচ্ছেন।

এরপরই বেগতিক বুঝে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে দিলীপবাবুকে অনুরোধ করেন ফিরে যেতে। উপায় না থাকায় দিলীপবাবু ফিরে যান। তিনি অভিযোগ করেন, তৃণমূল কংগ্রেস ও পুলিশ সম্মিলিতভাবে তাঁর পথ আটকায়। আসলে তৃণমূল কংগ্রেস ভয় পেয়ে গিয়েছে। তাই প্রশাসনকে কাজে লাগিয়ে পথ আটকে বিজেপিকে আটকানোর বৃথা চেষ্টা করছে।

এদিন প্রায় ঘণ্টাখানেকেরও বেশি সময় দিলীপ ঘোষকে আটকে থাকতে হয় রাস্তায়। তারপর তিনি কর্মসূচি বাতিল করে ফিরে যান। হাতে লাঠি, বাঁশ নিয়ে তৃণমূলকর্মীরা বাধা দেন বলে অভিযোগ। পুলিশ তাঁদের দমন না করে তাঁকে ফিরে যেতে বলেন। এই ঘটনা রাজ্যের গণতন্ত্রকে প্রশ্নের মুখে ফেলে দিল বলে অভিযোগ বিজেপি রাজ্য সভাপতির।

কোচবিহার জেলা পুলিশের বক্তব্য, দিলীপ ঘোষ ঘটনাস্থলে গেলে গণ্ডগোলের আশঙ্কা ছিল। এলাকায় রাসমেলা চলছে। তাই পর্যাপ্ত পুলিশ না থাকায় তাঁকে নিরাপত্তা দেওয়াও সম্ভব ছিল না। সেই কারণেই এদিনের সভার অনুমতি দেওয়া হয়নি। বিজেপি পুলিশের অনুমতি ছাড়াই সভার আয়োজন করেছিল। ফলে যে কোনও মূহূর্তে উত্তেজনা ছড়াতে পারত। তাই দিলীপবাবুকে ফিরে যেতে অনুরোধ করা হয়েছে।

আগের দিনই দিলীপবাবু বলেছিলেন, দলের আক্রান্তকর্মীদের সঙ্গে দেখা করতে তিনি মাথাভাঙা ও শীতলকুচি যাবেন। সেখানে সভাও করবেন। তাঁর পথ আটকালে আটকাবে, কিন্তু তিনি যাবেনই। যদিও এদিন তিনি সভাস্থল পৌঁছতে পারেননি। বাধ্য হন কোচবিহার জেলা পার্টি অফিসে ফিরে আসতে।

English summary
Trinamool Congress workers interrupt to Dilip Ghosh to go Cochbihar. Police request him to return back
Please Wait while comments are loading...