উৎসবের মেজাজে শুরু, বেলা বাড়তেই সিপিএমের কায়দা উলুবেড়িয়া-নোয়াপাড়া ভোটে

Subscribe to Oneindia News

উৎসবের মেজাজে ভোট শুরু হলেও বেলা বাড়তেই বিক্ষিপ্ত অশান্তির ঘটনা ঘটল উলুবেড়িয়া ও নোয়াপাড়া উপনির্বাচনে। তৃণমূল কংগ্রেস ও বিজেপির মধ্যে খণ্ডযুদ্ধ বাধে উলুবেড়িয়ার গঙ্গারামপুরে। আর নোয়াপাড়ায় বুথ জ্যাম করে ছাপ্পা দেওয়ার অভিযোগ ওঠে তৃণমূলের বিরুদ্ধে। সেইসঙ্গে অভিযোগ তৃণমূল ভোট করছে সিপিএমের কায়দায়। বিরোধী এজেন্টদের বসতে দেওয়া হচ্ছে না বলে অভিযোগ। বিজেপির পাশাপাশি সিপিএমও একই অভিযোগ করে তৃণমূলের বিরুদ্ধে।

উৎসবের মেজাজে শুরু, বেলা বাড়তেই সিপিএমের কায়দা উলুবেড়িয়া-নোয়াপাড়া ভোটে

[আরও পড়ুন:বাস দুর্ঘটনায় ক্ষতিপূরণ ঘোষণা, ঘটনাস্থলের পথে মুখ্যমন্ত্রী]

সোমবার সকালেই নোয়াপাড়ার ভোটকে হোলি ও দুর্গাপুজোর সঙ্গে তুলনা করেছিলেন তৃণমূল প্রার্থী সুনীল সিং। তিনি গারুলিয়িা হিন্দি ফ্রি প্রাইমারি স্কুলে ভোট দিতে গিয়ে বলেন, মানুষ স্বতঃস্ফূর্ত ভোট দিচ্ছেন। কোথাও কোনও হিংসা নেই, অশান্তি নেই। উলুবেড়িয়ার তৃণমূল প্রার্থী সাজদা আহমেদও একই কথা বলেন। বিরোধীদের আনা ভোট সন্ত্রাসে কথা উড়িয়ে দেন তিনি।
তবে দুই কেন্দ্রেই সে অর্থে হিংসার ঘটনা নেই। শুধু উলুবেড়িয়ার গঙ্গারামপুরে দুই দলের নেতারা হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়েন। তা নিয়ে সাময়িক উত্তেজনা ছড়ায়। অভিযোগ, বিজেপি যুব মোর্চার নেতার বাড়িতে ও বুথে তৃণমূলের বাইক বাহিনী হামলা চালায়। তার পরিপ্রেক্ষিতে গঙ্গারামপুর মোড়ে রাস্তা অবরোধ করে বিজেপি। পুলিশ ও কেন্দ্রীয় বাহিনীর তৎপরতায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে।

বিরোধীদল সিপিএম ও বিজেপির অভিযোগ বহু বুথে এজেন্টকে বসতে দেওয়া হয়নি। কোনও কোনও বুথে বসলেও ১০টার পর থেকেই তাঁদের হটিয়ে দেওয়া হয়েছে। একপ্রকার বুথ দখল করেই ভোট করছে শাসক দল তৃণমূল। উলুবেড়িয়া ও নোয়াপাড়া দুই ক্ষেত্রেই এই অভিযোগ তুলেছে বিরোধী দল।

সিপিএমের অভিযোগ, উলুবেড়িয়া লোকসভা কেন্দ্রের ৩৯১টি বুথে তাঁদের এজেন্টকে বসতে দেওয়া হয়নি। অভিযোগ মোট ১৪১০টি বুথে সকাল ১০টা পর্যন্ত সমস্ত বুথে এজেন্ট ছিল। তারপরই পুরনো 'খেলা' শুরু করে দেয় শাসক তৃণমূল। সিপিএমের কায়দায় ভোট করা হচ্ছে বলে অভিযোগ বিজেপির। সিপিএমের অভিযোগও সেই ইঙ্গিত করছে। মোট কথা, হিংসা-অশান্তি না থাকলেও সুষ্ঠু ও অবাধ নির্বাচন হচ্ছে না তৃণমূলের আমলেও। আগে সিপিএমের বিরুদ্ধে যে অভিযোগ উঠত, এখন তৃণমূলের বিরুদ্ধে সেই একই অভিযোগ উঠছে।

[আরও পড়ুন:মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে 'টিম' নিয়ে দুর্ঘটনাস্থলে শুভেন্দু, দিল্লি থেকে ফিরছেন অধীরও]

English summary
CPM and BJP both complain to occupy booths against Trinamool Congress at Uluberia and Noapara,

Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.