• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts
Oneindia App Download

ছেলের মৃত্যুর পর চাকরি পেয়ে দ্বিতীয় বিয়ে বৌমার, অসহায় শাশুড়ির পাশে দাঁড়ালেন বিচারপতি

  • |
Google Oneindia Bengali News

ছেলের মৃত্যুর পর চাকরি পেয়ে দ্বিতীয় বিয়ে করে চলে গিয়েছেন বৌমা। বাড়িতে অনাহারে দিন কাটছে শাশুড়ি। অসহায় শাশুড়ি শেষমেশ হাইকোর্টের দ্বারস্থ হতে তাঁর পাশে দাঁড়ালেন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়। বৃদ্ধার মুখে তাঁর করুণ কাহিনি শোনার পর কড়া ব্যবস্থা নিলেন বিচারপতি। ভর্ৎসনা করলেন বৌমাকে।

ছেলের মৃত্যুর পর চাকরি পেয়ে দ্বিতীয় বিয়ে বৌমার, অসহায় শাশুড়ির পাশে দাঁড়ালেন বিচারপতি

ছেলের মৃত্যুর পর চাকরি পেয়েছেন বৌমা। তারপর দ্বিতীয় বিয়েও করে চলে গিয়েছেন। সেই থেকেই একপ্রকাৎ অর্ধাহারে দিন কাটছে শ্বাশুড়ির। বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায় তা শুনে রীতিমতো অসন্তষ্ট। তিনি নির্দেশ দিলেন ৩০ দিনের মধ্যে ৩ লক্ষ ৯৬ হাজার টাকা শাশুড়ির হাতে তুলে দিতে হবে বৌমাকে। এখানেই শেষ নয়, এরপর দু-সপ্তাহের মধ্যে আর ২১ হাজার টাকা দেওয়ারও নির্দেশ দেন তিনি।

মৃত ছেলের চাকরি পেয়ে শাশুড়িকে দেখা তো দূরের কথা, তাঁর খাওয়া-পরার মতো কোনও টাকা-পয়সা পর্যন্ত দেয় না বৌমা। ছেলের মৃত্যুর পর থেকেই অসহায় জীবন কাটছে বৃদ্ধা মায়ের। এরই মধ্যে বৌমা আবার বিয়ে করে নতুন সংসারে প্রবেশ করছেন। শেষে সেই বৃদ্ধা বাধ্য হন ছেলের বৌয়ের বিরুদ্ধে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হতে।

দুর্গাবালা মণ্ডল হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়ে কাতর আবেদন জানান। তাঁর আবেদন, তাঁর ছেলে সরকারি স্কুলের শিক্ষক ছিল। ২০১৪ সালে ছেলের মৃত্যুর পর বৌমা সেই চাকরি পেলেও তাঁর দেখভাল করছে না। স্বামীর মৃত্যুর পর তার চাকরি স্ত্রী পায় ২০১৭ সালে। তারপর সে দ্বিতীয় বিয়ে করে চলে যায়।

দ্বিতীয় বিয়ে করে অন্যত্র চলে যাওয়ার পর ওই চাকরির বেতনের কোনও অংশ প্রাক্তন মৃত স্বামীর পরিবারকে দেয় না। বৃদ্ধার মুখে এই অভিযোগ শোনার পর আদালতের নির্দেশ, দুর্গাদেবীকে তাঁর প্রাপ্য বকেয়া টাকা আজই দিতে হবে। বৌমাকে শাশুড়ির হাতে টাকা দেওয়ার নির্দেশ দেন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়।

শুধু এই নির্দেশ দিয়েই ক্ষান্ত নন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়, তার পাশাপাশি তিনি দুর্গাদেবীর প্রাক্তন বৌমাকে তীব্র ভর্ৎসনা করেন। বিচারপতি বলেন, "আপনার মানসিকতা এরকম হলে ছাত্রদের কী শিক্ষা আপনি দেবেন? আমার হাতে ক্ষমতা থাকলে আপনার চাকরি আমি কেড়ে নিতাম।" উল্লেখ্য, তিনি বর্তমানে পশ্চিম মেদিনীপুরের বনেদি স্কুলের কর্মচারী।

তাঁকে দু-দফায় বকেটা চাকা দেওয়ার নির্দেশ দেন বিচারপতি। বিচারপতি এই মমলা ফের শুনবেন আগামী ১১ জানুয়ারি। মামলার পরবর্তী শুনানিতে তিনি দেখতে চান শাশুড়িকে তাঁর প্রাপ্য টাকা বৌমা দিয়েছেন কি না। অন্যথায় তিনি আরও কড়া ব্যবস্থা নেবেন।

দাম কমছে বেশ কিছু ওষুধের! সস্তা হতে যাচ্ছে ক্যানসার-সহ ৩৮৪ টির মূল্য দাম কমছে বেশ কিছু ওষুধের! সস্তা হতে যাচ্ছে ক্যানসার-সহ ৩৮৪ টির মূল্য

English summary
High Court takes strong step against daughter in lay standing beside mother in law
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X