• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts
Oneindia App Download

'খুব শীঘ্রই জয়ের স্বাদ পাব', বিক্ষোভকারীদের পাশে দাঁড়িয়ে বললেন জয়সূর্য

  • |
Google Oneindia Bengali News

প্রতিবাদের আগুনে পুড়ছে শ্রীলঙ্কা! সকাল থেকে লাখো লাখো মানুষ কলম্বোমুখী। রাষ্ট্রপতি গোটাবা রাজাপক্ষের বাড়ি ঘিরে ধরে চলে বিক্ষোভে। প্রাণভয়ে দেশ ছেড়ে রাষ্ট্রপতি গোটাবা শুক্রবার রাতেই পালিয়ে গিয়েছেন বলে জানা যায়। বিক্ষোভ-প্রতিবাদে উত্তাল হতে পারে দেশ। এমন আশঙ্কা ছিল সে দেশের গোয়েন্দাদের কাছে।

রাস্তায় নেমে আন্দোলনকারীদের পাশে দাঁড়ালেন জয়সূর্য

আর সেই আঁচ পেয়ে শুক্রবার রাতেই নাকি সরিয়ে দেওয়া হয় লঙ্কার প্রেসিডেন্টকে। কেউ বলছেন সেনা সদর দফতরে লুকিয়ে আছেন তিনি। আবার কারোর দাবি জাহাজে নাকি লুকিয়ে রয়েছে।

তবে এই খবর ছড়িয়ে পড়তেই রাষ্ট্রপতি'র বাসভবনে ঢুকে পড়েন বিক্ষোভকারীরা। সেখানে ঢুকে ব্যাপক ভাঙচুর বলে জানা যাচ্ছে। তবে এই প্রতিবাদে সামিল হয়েছেন ক্রিকেটার সনৎ জয়সূর্য (Sanath Jayasuriya)।

লঙ্কা প্রেসিডেন্ট রাজাপক্ষের বিরুদ্ধে সাধারণ মানুষের সঙ্গে বিক্ষোভে সামিল হল শ্রীলঙ্কার প্রাক্তন ক্যাপ্টেন। তাঁর যোগদান আন্দোলনকারীদের মনোবল বাড়িয়ে তুলবে বলেই মত। ইতিমধ্যে আন্দোলনে সামিল হওয়ার একাধিক ছবি সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করেছেন এই ক্রিকেটার। যেখানে কেউ তাঁর সঙ্গে সেলফি তুলছেন আবার কারোর সঙ্গে কথা বলতে দেখা যাচ্ছে ক্রিকেটারকে।

শুধু তাই নয়, আন্দোলনকারীদের পাশে দাঁড়িয়ে তিনি লিখেছেন, আমি সবসময় শ্রীলঙ্কার মানুষে পাশে আছি। খুব শিঘ্রই জয়ের স্বাদ অনুভব করব বলেও দাবি সনৎ জয়সূর্য'র। তবে হিংসাত্বক কিছু না হলে আন্দোলনকারীদের পাশে থাকার বার্তা দিয়েছেন তিনি।

সর্বশেষে হ্যাসট্যাগ দিয়ে প্রাক্তন লঙ্কা ক্রিকেটার লিখছেন, #GoHomeGota

তবে এই বিতর্কের মধ্যেই প্রধানমন্ত্রী পদ থেকে ইস্তফা দিলেন Ranil Wickremesinghe। ঘটনার পরেই জরুরি বৈঠক ডাকেন তিনি। সর্বদলকে নিয়ে এই বৈঠক হয়। যেখানে পরিস্থিতি নিয়ে দীর্ঘ পর্যালোচনা হয়। আর সেখানেই প্রধানমন্ত্রী'র পদ থেকে সরে যাওয়ার কথা জানান Ranil Wickremesinghe।

তবে সর্বদল সরকার গঠনে'র দাবি জানান তিনি। আর তা চর্চা'র মধ্যেই পদ থেকে সরে যাওয়ার ঘোষণা করে দেন Ranil Wickremesinghe। শুধু তিনিই নয়, এরপরেই মন্ত্রিসভার আরও এক মন্ত্রী ইস্তফা দিয়েছেন বলেই খবর। একের পর এক পদত্যাগ কার্যত জয় দেখছেন বিদ্রোহীরা। তবে কোন পথে চলবে দেশ? তা নিয়ে ধোঁয়াশা তৈরি হয়েছে। তবে সেনা'র হাতেই দেশের শাসনভার যেতে পারে বলে খবর।

উল্লেখ্য, বলে রাখা প্রয়োজন, ক্রিকেটার ময়দানকে আগেই ইতি করছেন জয়সূর্য। দীর্ঘ ১২ বছর আগে রাজনীতি'র ময়দানে পা রাখেন তিনি। মাহিন্দা রাজাপক্ষের নেতৃত্বাধীন সরকারের সময়ে দীর্ঘদিন মন্ত্রীও ছিলেন ক্রিকেটার। তবে শ্রীলঙ্কার রাজনীতি নিয়ে একাধিকবার মুখ খুলেছেন প্রাক্তন এই ক্রিকেটার। যা নিয়ে অস্বস্তিতে পড়তে হয়েছে সরকারকে। এই অবস্থায় ২০১৫ সালে সংসদ ভেঙে দেওয়া হয়। এরপর আর ভোটের ময়দানে আসেননি জয়সূর্য।

English summary
Joy Surya stands with the people of Sri Lanka, wish to get victory soon
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X