• search

মুক্তির দাবিতে লাহোর কোর্টের দ্বারস্থ হাফিজ,তার 'অস্ত্র লাইসেন্স' বাতিল করল পাকিস্তান

  • By Sritama Mitra
Subscribe to Oneindia News
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS
For Daily Alerts

    লাহোর, ২২ ফেব্রুয়ারি : জামাত-উদ-দাওয়া সংগঠনের প্রধান তথা  জঙ্গিনেতা হাফিজ সঈদ, নিজের গৃহবন্দি হওয়ার ঘটনাকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে পাকিস্তানের লাহোর হাইকোর্টে পিটিশন দায়ের করে। বিশ্বের অন্যতম সন্ত্রাসবাদী নেতা হাফিজ সঈদ ছাডা়ও আরও ৪ গৃহবন্দিও এই পিটিশন দায়ের করে।

    পাক আইনজীবি একে ডোগারের মাধ্যমে তারা এই পিটিশন দায়ের করে। হাফিজ সহ ৩৭ জন অভিযুক্ত নাশকতাবাদীর নাম পাকিস্তানের এক্সিট কন্ট্রোল -এর তালিকায় রাখা রয়েছে। যার ফলে তারা আইন অনুযায়ী পাকিস্তান ছেড়ে কোথাও যেতে পারবে না। উল্লেখ্য, পাকিস্তান এই জঙ্গিদের সন্ত্রাসবিরোধী আইনের ধারায় অভিযুক্ত করে গৃহবন্দি করেছে।

    মুক্তির দাবিতে লাহোর কোর্টের দ্বারস্থ হাফিজ,তার 'অস্ত্র লাইসেন্স' বাতিল করল পাকিস্তান

    গতমাসেই পাক সরকারের তরফে হাফিজের জামাত-উদ-দাওয়া সংগঠনের অন্তর্গত থেকে জঙ্গি কার্যকলাপ চালানো সংগঠনগুলির ওপর কড়া নজর রাখা হচ্ছে বলে জানানো হয়েছে । এছাড়াও, হাফিজ সঈদ ও তার জঙ্গি সাথীদের দেওয়া ৪৪ টি অস্ত্রের লাইসেন্স বাতিল করে পাকিস্তান । নিরাপত্তাজানিত কারণে পাকিস্তান এই পদক্ষেপ নেয় বলে জানা গিয়েছে।

    পাকিস্তানের পাঞ্চাবের প্রশাসনের তরফে প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, জামাত ও ফলাহ হাফিজের দুটি সংগঠন এমন কিছু কার্যাকলাপে জড়িত , যা নিয়ে উঠছে বহু প্রশ্ন। দুটি সংগঠনই পাকিস্তানে ১৯৯৭ সাল থেকে সন্ত্রাসবিরোধী আইনের দ্বিতীয় শিডিউলের আওতায় রয়েছে। প্রসঙ্গত কিছুদিন আগেই পাক প্রতিরক্ষামন্ত্রী ২৬/১১ মুম্বই হামলার মূলচক্রী জঙ্গি হাফিজ সঈদকে পাকিস্তানের জন্য 'হুমকি' বলে আখ্যা দেন। তরপর এতগুলো ঘটনার পর,জল কোন দিকে গড়ায় এখন সেদিকেই তাকিয়ে কূটনৈতিক মহল।

    English summary
    Jamaatud Dawa (JuD) chief Hafiz Muhammad Saeed and his four aides have challenged their house arrest, as well as addition of their names in the Fourth Schedule of the Anti-Terrorism Act (ATA), in the Lahore High Court.

    Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
    সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.

    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more