• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

আপনি আসায় অসুবিধা হচ্ছে! কমল হাসানকে ফিরিয়ে দিল তুতিকোরিনের আহতদের পরিবার

রাজনীতিবিদদের ফিরিয়ে দিলেন তুতিকোরিনের ঘটনায় আক্রান্ত ব্যক্তিদের পরিজনরা। গতকালই হাসপাতালে গিয়েছিলেন এমডিএমকে প্রধান ভাইকো, এদিন সকালে যান মাক্কাল নিধি মৈয়ম দলের প্রতিষ্ঠাতা তথা তামিল সিনেমার সুপারস্টার কমল হাসান। কিন্তু তার উপস্থিতিতে চিকিৎসা ব্যহত হচ্ছে বলে তাঁকে ফিরিয়ে দেন জখমদের পরিজনরা।

কমল হাসানকে ফিরিয়ে দিল তুতিকোরিন

মঙ্গলবার রাতে তুতিকোরিন জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি আহতদের দেখতে যান মারুমালার্চি দ্রাবিড় মুন্নেত্রা কাঝাগাম প্রধান ভাইকো। আহতদের পাশাপাশি পরিজনদের সঙ্গেও আলাদা ভাবে কথা বলেন ভাইকো। তাঁদের পাশে থাকার বার্তাও দেন।

বুধবার সকালে জানা যায় হাসপাতালে আসবেন এমএনএম প্রধান দক্ষিণী সুপারস্টার কমল হাসানও। এদিন সকালে তাঁর বেঙ্গালুরু উড়ে যাওয়ার কথা ছিল। সেখানে মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নেবেন কুমারস্বামী। সেই অনুষ্ঠানে যোগ দিতে যাওয়ার আগেই হাসপাতালে আসবেন বলে ঘোষণা করেন কমল।

তাঁর আসার খবর পেয়ে, হাসপাতালের বাইরে জড়ো হন অসংখ্য ভক্ত ও সংবাদমাধ্যমের প্রতিনিধিরা। যার জন্য বিশাল পুলিশ বাহিনীও নিয়োগ করতে হয় তুতিকোরিন জেনারেল হাসপাতালের বাইরে। রাত ১১টা নাগাদ এসে পৌঁছান কমল। তিনি আসতেই হাসপাতালের বাইরে বিশৃঙ্খলার সৃষ্টি হয়। তা পেরিয়ে ভেতরে ঢুকে এই সুপারস্টার মিলিত হন জখম আন্দোলনকারীদের সঙ্গে।

কিন্তু, আন্দোলনকারীদের আত্মীয়দের বাধার মুখে পড়েন তিনি। জখমদের বাড়ির লোকজন তাঁকে বলেন, 'আপনি আসায় আমাদের সমস্যার মুখে পড়তে হচ্ছে। দয়া করে চলে যান।' তারপরও কিছু সময় সেখানে ছিলেন কমল। এর আগে এপ্রিল মাসে স্টারলাইট কারখানা বিরোধী আন্দোলনের পাশে এসে দাঁড়িয়েছিলেন তিনি। সেসময় অবশ্য তাঁকে ঘিরে জনতার বিপুল উৎসাহ দেখা গিয়েছিল। এদিনও মনে করেছিলেন ঘটনার রাজনৈতিক ফায়দা তোলা যাবে। কিন্তু তা হয়নি।

ঘটনার নিন্দা করে রাজ্যের আরেক রাজনৈতিক দল পাত্তালি মাক্কাল কাটচি নেতা আনবুমানি রামাডস বলেন, তুতিকোরিনে পুলিশ ঠান্ডা মাথায় খুল করেচে। তাদের বিরুদ্ধে হত্যার মামলা হওয়া উচিত। এসপি, কালেক্টর, ডিজিপি ও মুখ্যসচিবকে সাসপেন্ড করা উচিত। ঘটনার নীতিগত দায় নিয়ে মুখ্য মন্ত্রী পলানিস্বামীর পদত্যাগ করা উচিত।

গুলিচালনার ঘটনাকে 'হত্যা' বলে নিন্দা করেছেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীও। তামিল ভাষায় টুইট করে তিনি বলেন এটা রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাস। তামিল এক ভিডিও বার্তায় ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছেন আরেক তামিল সুপারস্টার তথা নব্য রাজনীতিক রজনীকান্তও।

এদিকে, বরাবরের মতো ভিন্ন পথে হেঁটেছেন বিজেপি সাংসদ সুব্রামনিয়ম স্বামী। তিনি এই ঘটনার জন্য প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী তথা কংগ্রেস নেতা পি চিদম্বরমের জবাবাদিহি চেয়েছেন। তাঁর অভিযোগ, চিদম্বরম, স্টারলাইট সংস্থায় দীর্ঘদিন বেতনভুক ডিরেক্টর ছিলেন। এ বিষয়ের সব নথি আছে। স্টারলাইটের হয়ে তাঁর এখন মুখ খোলা উচিত বলে মন্ত্বায করেন বিতর্কিত এই বিজেপি সাংসদ।

কেন্দ্রীয় সরকার এনিয়ে এখনও কোনও প্রতিক্রিয়া না জানালেও সরাষ্ট্র দপ্তর থেকে ঘটনার পূর্ণাঙ্গ রিপোর্ট চাওয়া হয়েছে তামিলনাড়ু সরকারের কাছে।

এদিকে আজই একটি বিস্ময়কর ভিডিও এসেছে সংবাদ মাধ্যমের হাতে। যা থেকে স্পষ্ট প্রাণহানি যে হবে, সে কথা পুলিশের একটা অংশ আগেই জানত। এবং তুতুকোরিনে স্টারলাইট বিরোধী আন্দোলনকারীদের ওপর তারা জেনে বুঝে হত্যা করার জন্যই গুলি চালিয়েছিল। এটা কোনও হঠাত ঘটে যাওয়া দুর্ঘটনা নয়। কিন্তু কে বা কারা পুলিশকে গুলি চালানোর নির্দেশ দিয়েছিল সেটা এখনও স্পষ্ট নয়। মুখ্যমন্ত্রী এডাপ্পাডি কে পলানিস্বামী ঘটনায় পুলিশের ভূমিকার তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় গভর্নর বনোয়ারিলাল পূরোহিত একটি শোক বার্তা প্রকাশ করেন।

English summary
ইamilies of injured persons in Tutikorin says due to the visit of the popular politicians, they are facing problems.
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X