• search

কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী হয়েই মেয়ের বয়সী এই অভিনেত্রীকে বিয়ে করেন কুমারস্বামী, দেখুন ছবি

  • By oneindia staff
Subscribe to Oneindia News
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS
For Daily Alerts

    এইচডি কুমারস্বামীর সঙ্গে সঙ্গে এখন চর্চায় উঠে এসেছেন রাধিকা। পুরো নাম রাধিকা কুমারস্বামী। যাঁর পরিচয় কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী এইচ ডি কুমারস্বামীর স্ত্রী। সম্প্রতি প্রকাশ্যে এসেছে কুমারস্বামীর সঙ্গে রাধিকার একাধিক ছবি। এই ছবিতে দেখা গিয়েছে কুমারস্বামী এবং রাধিকার কয়েক বছরের মেয়েকেও। 

    রাধিকা চর্চায় তীব্র আপত্তি আছে জেডিএস প্রধান এইচডি দেবগৌড়ার পরিবারের। প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী এইচডি দেবগৌড়ার ছেলে এইচডি কুমারস্বামী। কিন্তু, রাধিকা-কে নিয়ে এই মুহূর্তে চর্চার মূল কারণ যেহেতু কুমারস্বামী এখন মুখ্যমন্ত্রী, এমনটাই মনে করছে দেবগৌড়ার পরিবার। 

    কে এই রাধিকা?

    কে এই রাধিকা?

    রাধিকা কন্নড় সিনেমার অভিনেত্রী। তাঁর সৌন্দর্য বরাবরই কন্নড় চলচ্চিত্র প্রেমীদের আকৃষ্ট করেছে। ২০০২ সালে কন্নড় ছবি 'নীলা মেঘ শামা'-তে ১৬ বছর বয়সে নায়িকা হিসেবে অভিষেক ঘটিয়েছিলেন। এই ছবিটি সে বছর বক্স অফিসে এতটাই হিট করেছিল যে আয়ের দিক থেকে কন্নড় ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে হইচই ফেলে দেয়। তবে একটা সিনেমার জন্যই যেন হিট নায়িকার তকমা পেয়েছিলেন রাধিকা। এক বছরের মধ্যে তাঁর পাঁচটি সিনেমা বক্স অফিসে মুখ থুবড়ে পড়ে এবং রাতারাতি তাঁকে 'ফ্লপ' নায়িকার তকমা দেওয়া হয়।

    কুমারস্বামীর সঙ্গে গোপন বিবাহ

    কুমারস্বামীর সঙ্গে গোপন বিবাহ

    কয়েক বছর আগে রাধিকা ও এইচডি কুমারস্বামীর গোপন বিবাহ-এর খবর সামনে আসে। কংগ্রেসের আইটি সেলের বর্তমান প্রধান অভিনেত্রী দিব্যা স্পন্দনা রামাইয়া এই বিয়ের খবর প্রকাশ্যে নিয়ে আসেন। কন্নড় অভিনেত্রী রামাইয়ার সঙ্গে রাধিকার যথেষ্টই বন্ধুত্ব রয়েছে। তিনি প্রথম রাধিকা ও কুমারস্বামী এবং তাঁদের ছোট্ট মেয়ের ছবি সংবাদমাধ্যমে প্রকাশ করে দিয়েছিলেন।

    রাধিকা ও কুমারস্বামীর বিয়ে নিয়ে বিতর্ক

    রাধিকা ও কুমারস্বামীর বিয়ে নিয়ে বিতর্ক

    কুমারস্বামীর পরিবার থেকে প্রথমে এই বিয়ে-কে অস্বীকার করা হয়েছিল। কারণ, কুমারস্বামীর প্রথম স্ত্রী অনিতাকে বিবাহ বিচ্ছেদ না দিয়েই এই বিয়ে করেছিলেন। হিন্দুমতে প্রথম স্ত্রী বর্তমান থাকলে দ্বিতীয় বিবাহ বৈধ নয়। কিন্তু, ভালবাসার জোরে চারহাত এক করেছিলেন রাধিকা ও কুমারস্বামী। যে খবর কেউই জানতে পারেনি।

    কুমারস্বামী ও রাধিকার মধ্যে বিশাল বয়সের ব্যবধান

    কুমারস্বামী ও রাধিকার মধ্যে বিশাল বয়সের ব্যবধান

    এইচডি কুমারস্বামীর জন্ম ১৯৫৯ সালে। সেখানে রাধিকার জন্মসাল ১৯৮৬। এই মুহূর্তে রাধিকার বয়স ৩১। আর কুমারস্বামীর ৫৮ বছর। এই অসম বয়সের বিবাহ নিয়েও কম চর্চা হয়নি।

    কুমারস্বামীর প্রথম বিবাহের বছরে জন্ম রাধিকার

    কুমারস্বামীর প্রথম বিবাহের বছরে জন্ম রাধিকার

    এইচডি কুমারস্বামী প্রথম বিবাহ করেছিলেন ১৯৮৬ সালে। আর সেই বছরই জন্মগ্রহণ করেছিলেন রাধিকা। অনেকেই মজার দ্বিতীয় বিয়ের কথা টানতে গিয়ে সইফ আলি খান ও করিনা কাপুরের কথা বলেন। কারণ, সইফের বর্তমান স্ত্রী করিনা ১৩ বছর বয়সে সইফ-অমৃতার বিয়ের রিসেপশন-এ গিয়েছিলেন এবং সইফ ও অমৃতাকে গোলাপ ফুল দিয়ে বিয়ের শুভেচ্ছাও জানিয়েছিলেন। এই দিক থেকে কুমারস্বামী ও রাধিকার বিয়ের এমন তথ্যও বেশ চমকপ্রদ হয়ে উঠেছে এখন নেট দুনিয়ায়।

    ২০০৬ সালে বিয়ে রাধিকা ও কুমারস্বামী

    ২০০৬ সালে বিয়ে রাধিকা ও কুমারস্বামী

    কুমারস্বামী ও রাধিকার বিয়ের খবর প্রথম প্রকাশ্যে আসে ২০১১ সালের শুরুতে। জানা যায় ২০০৬ সালেই গোপনে রাধিকাকে বিয়ে করেছিলেন কুমারস্বামী। তখন তাঁর বয়স ছিল ২০ বছর।

    কুমারস্বামী ও রাধিকা-দু'জনেরই এটি ছিল দ্বিতীয় বিয়ে

    কুমারস্বামী ও রাধিকা-দু'জনেরই এটি ছিল দ্বিতীয় বিয়ে

    ২০০০ সালে ক্লাস নাইনে পড়ার পড়ার সময় মাত্র ১৪ বছর বয়সে বাড়ি থেকে পালিয়ে যান রাধিকা। রতন কুমার নামে তাঁর এক প্রেমিক ছিল। তাঁকেই বিয়ে করেছিলেন রাধিকা। কিন্তু, বিয়ের পর থেকেই অত্যাচার চরমে উঠেছিল। একবার রাধিকাকে পুড়িয়ে মারারও চেষ্টা করেছিলেন রতন। এই ঘটনার কিছুদিন পরে ২০২ সালে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান রতন।

    একাধিক স্থানে হানিমুন কুমারস্বামী ও রাধিকার

    একাধিক স্থানে হানিমুন কুমারস্বামী ও রাধিকার

    ২০১১ সালে কুমারস্বামী ও রাধিকার গোপন বিয়ের খবর প্রকাশ্যে আসতেই বেরিয়ে আসে বিভিন্ন চাঞ্চল্যকর তথ্য। জানা যায় ২০০৬ সালে যখন প্রথমবার মুখ্যমন্ত্রী হয়েছিলেন কুমারস্বামী সেই বছর রাধিকাকে সঙ্গে করে মরিশাসে ছুটি কাটিয়েছিলেন। ওটা নাকি ছিল তাঁদের বিয়ের পরের প্রথম মধুচন্দ্রিমা। যদিও, এর আগেও নাকি দু'জনে একাধিক হিল-স্টেশনে বহুবার একসঙ্গে সময় কাটিয়েছিলেন।

    কুমারস্বামীর সঙ্গে রাধিকার রয়েছে কন্য়া সন্তান

    কুমারস্বামীর সঙ্গে রাধিকার রয়েছে কন্য়া সন্তান

    কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী কুমারস্বামীর সঙ্গে রাধিকার একটি কন্যা সন্তানও রয়েছে। তার নাম শমিকা কে স্বামী। মেয়ের জন্মদিনের পার্টিও দিয়েছিলেন কুমারস্বামী। সে ছবিও ভাইরাল হয়েছে। যদিও, রাধিকার সঙ্গে তাঁর বিয়ে এবং কন্যা সন্তান সম্পর্কে কোনও দিনই কোনও তথ্য অস্বীকার করেননি কুমারস্বামী।

    রাধিকার সঙ্গে বিচ্ছেদ কুমারস্বামীর

    রাধিকার সঙ্গে বিচ্ছেদ কুমারস্বামীর

    ২০১১ সালে যখন গোপন বিয়ের খবর প্রকাশ্যে আসে তখন কুমারস্বামীর রাজনৈতিক কেরিয়ারের উপরে যেন ঝড় বয়ে গিয়েছিল। কীভাবে একজন হিন্দু পুরুষ প্রথম স্ত্রীকে বিবাহ বিচ্ছেদ না দিয়েই দ্বিতীয় বিয়ে করতে পারেন? এমনসব বিতর্ক সামনে আসতে থাকে। এক আইনজীবী কুমারস্বামীর বিধায়ক পদ বাতিলের দাবিতে আদালতে জনস্বার্থ মামলাও দায়ের করে বসেছিলেন। কুমারস্বামীকে তখন লোকে প্রতারক বলতে শুরু করেছিলেন। গোটা বিষয়টি সে সময় কংগ্রেসের চক্রান্ত বলে অভিযোগ করেছিল জেডিএস শিবির। আপাতত সেই বিতর্ক থেকে বেরিয়ে এসেছেন কুমারস্বামী। তবে শোনা যায় এখন নাকি রাধিকার সঙ্গে আর সম্পর্ক রাখেন না কুমারস্বামী। আর রাধিকাও নাকি তাঁর দ্বিতীয় স্বামী বর্তমানে কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রীকে ভুলে মন দিয়েছেন চলচ্চিত্রের কাজে। অভিনয়ের সঙ্গেসঙ্গে ছবি প্রোযোজনাও করেন রাধিকা। ২০১৩ সালে একটি কন্নড় ছবিতে অভিনয় করে কামব্যাকও ঘটিয়েছেন তিনি। স্বামীর মুখ্যমন্ত্রী হওয়া নিয়ে এখনও পর্যন্ত কোনও প্রতিক্রিয়া দেননি রাধিকা।

    English summary
    Radhika Kumarswamy, the second wife of Karnataka Chief Minister HD Kumarswamy is now in Google Trend. Kumarswamy married Radhika secretly in 20006.

    Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
    সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.

    Notification Settings X
    Time Settings
    Done
    Clear Notification X
    Do you want to clear all the notifications from your inbox?
    Settings X
    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more