• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

হনুমান চালিসা কাণ্ডে ২৯ এপ্রিল পর্যন্ত বিচার বিভাগীয় হেফাজতেই থাকতে হবে রানা সম্পতিকে

Google Oneindia Bengali News

অমরাবতীর সাংসদ নবনীত রানা এবং তার বিধায়ক স্বামী রবি রানা হনুমান চালিসা নিয়ে বিতর্কের মধ্যে দায়রা আদালত কোনও তাত্ক্ষণিক জামিন তো মঞ্জুর করেইনি উলটে য়আদালত জানিয়েছে এই দম্পতিকে এখন ২৯ এপ্রিল পর্যন্ত বিচার বিভাগীয় হেফাজতেই থাকতে হবে ।

হনুমান চালিসা কাণ্ডে ২৯ এপ্রিল পর্যন্ত বিচার বিভাগীয় হেফাজতেই থাকতে হবে রানা সম্পতিকে

দম্পতির প্রতিনিধিত্বকারী সিনিয়র অ্যাডভোকেট রিজওয়ান মার্চেন্ট বলেছেন, "পরবর্তী শুনানি ২৯ এপ্রিল, ততক্ষণে আমরা জবাব দাখিল করব। আমরা পুলিশকে জিজ্ঞাসা করব কেন রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগ যুক্ত করা হয়েছিল। এছাড়াও, আবেদন প্রত্যাহার করার প্রক্রিয়া চলছে বোম্বে হাইকোর্ট।

গতকালই হনুমান চালিশা কাণ্ডে মুক্তি মেলেনি মহারাষ্ট্রের সাংসদ নবনীত রানা এবং তার বিধায়ক স্বামী রবি রানার। তাঁদের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেছিল মুম্বই পুলিশ এই ঘটনায়। এর বিরুদ্ধে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিলেন সাংসদ নবনীত রানা এবং তার বিধায়ক স্বামী রবি রানা। তাঁদের আবেদন খারিয করে আদালত। আজ মঙ্গলবার আদালত জানিয়েছে যে, তাঁদের হেফাজতেই থাকতে হবে। তাও ২৯ এপ্রিল পর্যন্ত , অর্থাৎ আরও তিন দিন।

দম্পতিকে গ্রেপ্তার করতে আসা পুলিশ অফিসারকে লাঞ্ছিত করার অভিযোগ করেছিল পুলিশ। এফআইআর বাতিল করতে চেয়েছিলেন তাঁরা, কিন্তু সমস্ত কিছুই খারিক করে দিয়েছে মুম্বইয়ের উচ্চ আদালত। মুম্বইতে মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরের ব্যক্তিগত বাসভবন - মাতোশ্রীর বাইরে এই দম্পতি বিক্ষোভ দেখানো এবং হনুমান চালিসা পাঠ করার হুমকি দেওয়ার পরে পুলিশের তাঁদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিতে এসেছিল।

সেখানে ঘটে অপ্রীতিকর ঘটনা, যার জন্য পুলিশ এফআইআর দায়ের করেছিল। পাল্টা তা খারিজ করার আবেদন জানিয়েছিলেন নবনীত রানা এবং তার বিধায়ক স্বামী রবি রানা কিন্তু তা গৃহীত হয়নি।

তাঁদের আবেদন খারিজ করে আদালত বলেছিল, "এই ধরনের ঘোষণা , একজন ব্যক্তি অন্য ব্যক্তির ব্যক্তিগত বাসভবনে বা এমনকি একটি পাবলিক প্লেসে কিছু ধর্মীয় মন্ত্র পাঠ করা অবশ্যই কোনও ব্যক্তির ব্যক্তিগত স্বাধীনতা লঙ্ঘন করার সমান। দ্বিতীয়ত, যদি ঘোষণা করা হয় যে একটি নির্দিষ্ট ধর্মীয় শ্লোক প্রকাশ্য রাস্তায় পাঠ করা হবে, তাহলে রাষ্ট্রের এই আশঙ্কা করা ন্যায্য যে এই ধরনের আইনের ফলে আইনশৃঙ্খলার বিঘ্ন ঘটবে,"।

মহারাষ্ট্র নবনির্মাণ সেনা প্রধান এবং উদ্ধব ঠাকরের ভাই রাজ ঠাকরে মসজিদ থেকে লাউডস্পিকার অপসারণের জন্য রাজ্যকে আল্টিমেটাম দেওয়ার পরে রাজ্যে একটি রাজনৈতিক সমস্যা তৈরি হয়েছ্মস৩ মে এর মধ্যে এই ধরনের সমস্ত লাউডস্পিকার অপসারণ না করা হলে, এমএনএস আজানকে মোকাবিলা করতে হনুমান চালিসা বাজাবে, রাজ ঠাকরে সতর্ক করেছিলেন।

গত শনিবার রাজনীতিবিদ দম্পতি মাতোশ্রীর বাইরে বিক্ষোভের হুমকি দেয়। যদিও, তারা শীঘ্রই বিক্ষোভের কথা স্মরণ করে, রবিবার প্রধানমন্ত্রী মোদির মহানগর সফরের উদ্ধৃতি দিয়ে, শনিবার গভীর রাতে মুম্বাই পুলিশ দুজনকে গ্রেপ্তার করেছিল এবং রবিবার বান্দ্রা আদালতে পেশ করা হয়েছিল। আদালত রানাদের ১৪ দিনের জন্য জেল দেয়, যার পরে নবনীত রানাকে মুম্বাইয়ের বাইকুল্লা জেলে এবং তার স্বামীকে নাভি মুম্বাইয়ের তালোজা জেলে নিয়ে যাওয়া হয়।

হনুমান চালিসা নিয়ে রাজনীতির চলছে নাগাড়ে। প্রতিটি রাজনৈতিক দল এই বিষয়ে নানা মন্তব্য প্রকাশ করেই চলেছে , ফলে সমস্যা বাড়ছে। এবার এই তালিকায় নয়া সংযোজন আমআদমিপার্টি। এই দল আবার এক কাঠি এগিয়ে খেলছে। অনালাইনে হনুমান চালিসা পাঠ করে এবং তাঁদের টার্গেট ছিল বিজেপি।

রবিবার, আম আদমি পার্টি টুইটারে প্রথম হনুমান চালিসা পাঠের আয়োজন করেছিল। 'ভাউ-বন্ধুত্ব আনি একতেচি হনুমান চালিসা' শিরোনামে, দলটি এই হনুমান চালিসা পাঠ করে। তাঁরা বলছেন যে বিজেপি এবং তার সহযোগীরা মুম্বাইতে অশান্তি সৃষ্টির জন্য হনুমান চালিসার অপব্যবহার করার চেষ্টা করছে যা খুবই দুঃখজনক ঘটনা। কেজরির দলের মুম্বই শাখা মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে, প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়নবিস এবং এমএনএস প্রধান রাজ ঠাকরেকে এই কার্যক্রমে আমন্ত্রণ জানিয়েছিল।

মুম্বইয়ের আপ শাখা বলেছে যে, "হনুমান চালিসা হিন্দু ধর্মের একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ। এএপি ব্যথিত যে বিজেপি এবং তার সহযোগীরা এবং এমএনএস এই শান্তিপূর্ণ এবং আধ্যাত্মিক অনুশীলনের অপব্যবহার করে তাদের রাজনীতিকে আরও খারাপ জায়গায় নিয়ে গিয়ে মুম্বাইয়ের আবেগকে ব্যাহত করছে। মুম্বইয়ে বিঘ্ন ঘটাতে এবং আইনশৃঙ্খলার সমস্যা তৈরি করতে হনুমান চালিসার অপব্যবহার করা সত্যিকারের হনুমান ভক্তের আচরণ নয়, "।

কংগ্রেসের হাত ধরছেন না প্রশান্ত কিশোর, একে অপরের প্রস্তাবে সহমত হতে পারল না

আপ জাতীয় কার্যনির্বাহী সদস্য প্রীতি শর্মা মেনন হনুমান চালিসা পাঠ করেন, তার সঙ্গে ছিল আরও বেশ কয়েকজন। প্রীতি শর্মা মেনন বলেছেন, "ভগবান হনুমান আমাদের হৃদয়ে বাস করেন, যেমন ভগবান রাম ভগবান হনুমানের হৃদয়ে বাস করেন। যে ব্যক্তির হৃদয়ে বজরং বালি রয়েছে তার নাম কখনই অন্যদের কষ্ট দেওয়ার জন্য ব্যবহার করবেন না। এই কারণেই আমরা রাজনৈতিক দলগুলিকে হনুমান চালিসার প্রকৃত অর্থ সম্পর্কে মনে করিয়ে দেওয়ার জন্য একটি উদ্ভাবনী উপায় ব্যবহার করার কথা ভেবেছিলাম, "

English summary
No relief for Ravi Rana, wife as Bombay High Court says they have to stay in judicial custody till April 29
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X
Desktop Bottom Promotion