মানতে হল মমতার দাবি! গবাদি পশু সংক্রান্ত বিতর্কিত নোটিস নিয়ে 'ইউ টার্ন' কেন্দ্রের

  • Posted By:
Subscribe to Oneindia News

গবাদি পশুর বিক্রি নিয়ে কেন্দ্রের বিতর্কিত নোটিস নিয়ে দেশ জুড়ে বেশ হৈচৈ হয়েছে এই কয়েক মাস। সূত্রের খবর, এবার সেই নোটিস সম্ভবত ফিরিয়ে নিতে চলেছে কেন্দ্রের বিজেপি শাসিত সরকার। পশু বাজারে কসাইদের জন্য গরু মহিষ বিক্রি করার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে নোটিস জারি করেছিল সরকার। উল্লেখ্য, নোটিস জারি হওয়ার সময় থেকেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কেন্দ্রের এই নীতির বিরোধিতা করেন।

মানতে হল মমতার দাবি! গবাদি পশু সংক্রান্ত বিতর্কিত নোটিস নিয়ে 'ইউ টার্ন' কেন্দ্রের

[আরও পড়ুন:মমতাকে নতুন চ্যালেঞ্জ মুকুলের! কী প্রমাণ করতে পারলে ছাড়বেন রাজনীতি]

জানা গিয়েছে বেশ কিছু রাজ্য় থেকে এই নোটিস নিয়ে নানা নেতিবাচক রিপোর্ট আসায় , এই বিতর্কিত সিদ্ধন্ত থেকে পিছিয়ে আসতে চলেছে কেন্দ্র। এর আগে, কেন্দ্রীয় পরিবেশ মন্ত্রকের এক নোটিসে জানানো হয়েছিল, কোনও ব্যাক্তিই পশুবাজারে কসাইয়ের জন্য গবাদি বিক্রি করতে পারবে না। এর জন্য তাঁকে লিখিত একটি ঘোষণাও জানাতে হবে।

মানতে হল মমতার দাবি! গবাদি পশু সংক্রান্ত বিতর্কিত নোটিস নিয়ে 'ইউ টার্ন' কেন্দ্রের

এদিকে, এই নিষেধাজ্ঞার নোটিস ঘিরে দেশের বিভিন্ন অংশে বহু হিংসার ঘটনা ঘটে যায়। অনেক কটি রাজ্য কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করে। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তের চরম বিরোধিতায় নামেন। গোটা নোটিসটিকে তৃণমূল সুপ্রিমো অসংবিধানক বলেল মন্তব্য করেন। এদিকে, দক্ষিণের তামিলনাড়ু, কেরলা, কর্ণাটকের মতো রাজ্যগুলিতেও কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তের চরম বিরোধিতা করা হয়েছে। মানুষের খাদ্যাভাসের ওপর এই সিদ্ধান্ত চাপিয়ে দেওয়া হচ্ছে বলেও মন্তব্য করা হয়। শেষে সেই বিতর্কের জল গড়ায় সুপ্রিমকোর্ট পর্যন্তও।

English summary
The Centre has decided to withdraw its plan notifying a ban on the sale of cattle for slaughter in animal markets. The decision to withdraw this plan was told by a senior official from Ministry of Environment to The Indian Express. This decision was taken after the Ministry sought feedback from states on its May 23 notification on changes made to the Prevention of Cruelty to Animals (Regulation of Livestock Market) Rules, 2017. A government official said.

Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.

We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more