• search

লোকসভা ও বিধানসভা নির্বাচনকে সংযুক্ত করার পরিকল্পনা ঘিরে জল্পনা তুঙ্গে

Subscribe to Oneindia News
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS
For Daily Alerts

    ২০১৮ সালে দেশের একাধিক রাজ্যের বিধানসভার সঙ্গে লোকসভা নির্বাচনকে সংযুক্ত করে একটি নির্বাচন প্রক্রিয়া আয়োজনের উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে। ২০১৮ সালের নভেম্বর-ডিসেম্বর মাস নাগাদ দেশের বেশ কয়েকটি রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচন হওয়ার কথা। তার সঙ্গেই জাতীয় স্তরের লোকসভা নির্বাচনকে সংযুক্ত করার কথা ভাবা হচ্ছে।

    [আরওপড়ুন:স্বাধীনতা দিবস উদযাপন নিয়ে কেন্দ্রের এই নির্দেশিকায় নারাজ রাজ্য, চরমে সংঘাত]

    উল্লেখ্য়, আনুষ্ঠানিকভাবে এবিষয়ে কিছু ভাবা হয়নি। তবে এবিষয়ের প্রেক্ষিতে দুটি স্তরেই কীভাবে দুটি আলাদা নির্বাচনকে একসঙ্গে সংযুক্ত করা যায় সেকথা ভাবা হচ্ছে। এক্ষেত্রে প্রাক্তন লোকসভা সচিব সুভাষ সি কশ্যপের দৃষ্টিকোণের কথাও মাথায় রাখা হবে। খতিয়ে দেখা হচ্ছে, ৬ মাসের মধ্যে দুই ধরনের নির্বাচন অনুষ্ঠিত করা যায় কি না। এবিষয়ে সংবিধানের বিভিন্ন দিক নজরে রাখছে সংশ্লিষ্ট দফতর।

    [আরওপড়ুন:রাজনাথের সঙ্গে বৈঠকের পরও গোর্খাল্যান্ডের দাবি! কী অবস্থান গুরুংদের]

    লোকসভা ও বিধানসভা নির্বাচনকে সংযুক্ত করার পরিকল্পনা ঘিরে জল্পনা তুঙ্গে

    জানা গিয়েছে, নিয়ম অনুযায়ী ৬ মাসের ব্যবধানে দুটি আলাদা নির্বাচন থাকলে, তাকে সংযুক্ত করে আয়োজন করা যেতে পারে। এর জন্য সংবিধান অ্যামেন্ডমেন্ডের দরকার নেই। মনে করা হচ্ছে , ২০১৯ সালে মধ্যপ্রদেশ, রাজস্থান ছত্তিশগড়ের মতো বিজেপি শাসিত রাজ্য ও মিজোরামে যে বিধানসভা ভোট হওয়ার কথা, তাকে লোকসভা নির্বাচনের সঙ্গে সংযুক্ত করার কথা ভাবা হচ্ছে। এর সঙ্গে তেলাঙ্গানা, অন্ধ্রপ্রদেশ, ওড়িশার মতো রাজ্যগুলির বিধানসভা নির্বাচনকে সংযুক্ত করার কথা ভাবা হচ্ছে। তবে এক্ষএে সেরাজ্যের রাজনৈতচিক দলগুলিকে ঐক্যমতে আসতে হবে। সেই দলগুলি এইভাবে নির্বাচনের বিষয়টিকে মানতে রাজি হলেই এই রাজ্যগুলির নির্বাচনকেও একসঙ্গে নেওয়া হবে।

    English summary
    The possibility of aligning a significant number of state polls with the next Lok Sabha election is being discussed in government circles with the scenario hinging on advancing national polls, along with a few state elections, in sync with assembly polls due in November-December 2018.

    Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
    সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.

    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more