'আমি কতদিন বাঁচব জানি না, আমি ধর্ষণের শিকার হতে পারি', কাঠুয়াকাণ্ডে দাবি নির্যাতিতার আইনজীবীর

Subscribe to Oneindia News

কাঠুয়া গণধর্ষণকাণ্ডের প্রতিবাদে এই মুহুর্তে গোটা দেশ ক্ষোভে ফুঁসছে। দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে দাবি আসছে , দোষীদের কড়া শাস্তির। ঘটনায় নির্যাতিতার আইনজীবী দীপিকা এস রাওয়াতও বিচারের দাবিতে ক্রমেই নিজের লড়াই আরও পোক্ত করে চলেছেন। তবে এরই মধ্যে, তাঁর কাছে বারং বার আসতে শুরু করেছে ধর্ষণের হুমকি। শুধু তাই নয় , তাঁকে যেকোনও মুহুর্তে মেরে ফেলা হবে বলেও আসছে হুমকি।

আমি কতদিন বাঁচব জানি না, আমি ধর্ষণের শিকার হতে পারি, কাঠুয়াকাণ্ডে দাবি নির্যাতিতার আইনজীবীর

'আমি জানি না কতদিন আর আমি বেঁচে থাকতে পারব। আমি ধর্ষিত হতে পারি, আমার সম্মান নষ্ট হতে পারে, আমাকে খুন করা হতে পারে। আমাকে বার বার হুমকি দিয়ে জনৈক ব্যক্তি বলছেন "আমি তোমাকে ক্ষমা করব না।" আমি সুপ্রিমকোর্টের যাচ্ছি এই বিষয়টি নিয়ে। 'শুধু দীপিকা রাওয়াতই নন, তাঁর গোটা পরিবারকে এই ধরনের হুমকি দেওয়া হচ্ছে বলে তিনি দাবি করেছেন।

উল্লেখ্য, কাশ্মীরের কাঠুয়াতে ঘটে যাওয়া ঘৃণ্য়তম গণধর্ষণের ঘটনায় নির্যাতিতার পক্ষে সওয়াল করে লড়ছেন দীপিকা। যে নির্যাতিতার বয়স ছিল ৮ বছর। জানা গিয়েছে, এই নির্যাতিতাকে এক সপ্তাহ টানা মন্দিরের মধ্যে আটকে রেখে ধর্ষণ করা হয়েছে। এরপর তাকে মেরে ফেলা হয়। ঘটনা ধামাচাপর চেষ্টারও অভিযোগ রয়েছে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে।তবে এ নিয়ে আইনি লড়াইয়ে এগিয়ে চলেছেন নির্যাতিতার আইনজীবি দীপিকা। এদিকে,সূত্রের খবর,বার কাউন্সিলের ৫ জনের সদস্। কাঠুয়াগ্রামে যাবেন, ও পরিস্থিতি নিয়ে একটি রিপোর্ট সুপ্রিমকোর্টকে দেবেন। এবিষয়ে খুব শিঘ্রই একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হবে বলে জানা গিয়েছে।

English summary
Kathua Victime's lawyer's family gets threat,but the Deepika Rawat revolts back.

Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.