• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

অক্টোবরে মহাকাশে প্রথম SSLV পাঠাতে চলেছে ভারত

Google Oneindia Bengali News

প্রথম চেষ্টায় সবচেয়ে কম খরচে সফলভাবে মঙ্গলযান পাঠিয়ে তাক লাগিয়ে দিয়েছিল ভারতের স্পেস রিসার্চ অরগানাইজেশন। এবার আরও একটি চমকপ্রদ ইতিহাসের দোর গোড়ায় দাঁড়িয়ে রয়েছে দেশ৷ এবার অল্প খরচে এসএসএলভির মাধ্যমে জিও ইমেজিল আর্থ অবজারভেশনে স্যাটেলাইট মহাকাশে পাঠাতে চলেছে ভারত।

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক মন্ত্রকের মন্ত্রী জিতেন্দ্র সিং রাজসভার একটি প্রশ্নের উত্তরে জানিয়েছেন চলতি বছরের শেষ অংশে দেশের প্রথম এসএসএলভি পাঠানো হতে পারে মহাকাশে।

কী এই এসএসএলভি?

কী এই এসএসএলভি?

এসএসএলভি অর্থা স্মল স্যাটেলাইট লাঞ্চিং ভেহিক্যাল। অল্প খরচে তৈরি এই কৃত্তিম উপগ্রহ লাঞ্চিং ভেহিক্যালগুলি তুলনামূলক অল্প খরচে মহাকাশে পাঠানো সম্ভব। ভারতে এই ধরনের রকেটের ব্যবহার প্রথম হতে যাচ্ছে। ইওএস-০৩ জিও ইমেজিল আর্থ অবজারভেশনে স্যাটেলাইট মহাকাশে পাঠানোর জন্য৷

ইসরোর EOS-03 প্রকল্প

ইসরোর EOS-03 প্রকল্প

কয়েকমাসের মধ্যেই মহাকাশ থেকে পৃথিবীর ছবি তোলার জন্য স্যাটেলাইট পাঠাতে চলেছে ইসরো। করোনার জেরে এই সমস্ত কর্মসূচির সময়কাল এদিক ওদিক হয়ে গেলেও এই কাজে আর বেশি দেরী করতে চাইছে না ভারতের মহাকাশ গবেষণাকারী সংস্থাটি। কেন্দ্রীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী জিতেন্দ্র সিং জানিয়েছেন সেপ্টেম্বরের মধ্যেই মহাকাশে এই রকেট পাঠাতে চলেছে ইসরো।

কী কাজ করবে ইওএস-০৩?

কী কাজ করবে ইওএস-০৩?

ইওএস-০৩ নামক এই স্যাটেলাইটটি রিয়েল টাইম মনিটরিং করতে সক্ষম। অর্থাৎ কওথাও বন্যা, সাইক্লোন ইত্যাদি হলে মুহূর্তের মধ্যে তথ্য পৌঁছে যাবে বিজ্ঞানীদের কাছে। বর্তমানে বিরাট জলবায়ু পরিবর্তন ঘটছে ভারতীয় উপমহাদেশে। কাজেই বন্যা, সাইক্লোনের মতো ঘটনা হামেশাই ঘটছে।

কী বলছেন মন্ত্রী জিতেন্দ্র?

কী বলছেন মন্ত্রী জিতেন্দ্র?

রাজ্যসভাকে লেখা একটি চিঠিতে জিতেন্দ্র লেখেন, 'স্যাটেলাইটটি জলজ প্রাণী থেকে শুরু করে চাষবাস এবং অরণ্যের হাল হকিকত অবধি জানাতে পারবে চোখের নিমেষে।' তিনি আরও জানান যে, চলতি বছরের সেপ্টেম্বর-ডিসেম্বর মাসের মধ্যেই প্রথমবারের জন্য SSLV তথা স্মল স্যাটেলাইট লঞ্চ ভেহিকেল পাঠাতে চলেছে ভারত। এই নতুন স্যাটেলাইটটি যথেষ্ট কম কগরচে বানিয়ে ফেলেছে ইসরো।

করোনার প্রভাব পড়েছে ইসরোর প্রকল্পেও!

করোনার প্রভাব পড়েছে ইসরোর প্রকল্পেও!

এসএসএলভি ছাড়াও চন্দ্রযান-ত ও গঙ্গায়নের মনো বড় প্রকল্পের কাজে হাত লাগিয়েছে ইসরো৷ করোনা ও লকডাউন সেই কাজের গতি অনেকটাই স্লথ করেছে বলে জানানো হয়েছে ইসরোর পক্ষ থেকে৷ তবে কাজ পুরোপুরি বন্ধ হয়নি৷ ওয়ার্ক ফ্রম হোমে চন্দ্রযান-৩ এর কাজ এগিয়েছেন বিজ্ঞানীরা৷ ২০২২ এ চন্দ্রযান মহকাশে পাঠানোর ব্যাপারে আশাবাদী ইসরো।

English summary
ISRO going to lunch the first SSLV to space
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X