• search

পরীক্ষায় 'কৌটিল্যের সময়কার জিএসটি' নিয়ে প্রশ্ন, হতবাক পড়ুয়ারা, কোথায় ঘটল এই কাণ্ড

Subscribe to Oneindia News
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS
For Daily Alerts

    পরীক্ষার হল-এ কঠিন প্রশ্নের অনেক ধরণ থাকে। কোনওটা সিলেবাসের মধ্যে থেকেও কঠিন হয়, কোনও টা সিলেবসের বাইরে হয়। কোনও টা ধরা ছোঁয়ার বাইরে চলে যায়! আর সেরকম প্রশ্ন দেখলে পরীক্ষার্থীদের চক্ষু চরকগাছ হওয়াটাই স্বাভাবিক। খানিকটা যেমন হয়েছিল বেনারস হিন্দু বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞানের স্নাতোকোত্তর পরীক্ষার্থীদের হাল।

    পরীক্ষায় 'কৌটিল্যের সময়কার জিএসটি' নিয়ে প্রশ্ন, হতবাক পড়ুয়ারা, কোথায় ঘটল এই কাণ্ড

    বেনারস হিন্দু বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞানের স্নাতোকোত্তোর বিভাগের প্রশ্নপত্রে , একটি প্রশ্ন ঘিরে উঠেছে বিতর্ক। প্রশ্নটি ছিল এমন-'কৌটিল্যের সময়কার জিএসটি-র ধরণ কেমন ছিল?' ১৫ নম্বরের এই প্রশ্ন দেখে যখন পরীক্ষার্থীরা হতবাক, তখন প্রশ্নপত্রে আরও একটু চোখ বুলিয়ে দেখতে পাওয়া যায় আরেকটি প্রশ্ন। যেখানে জানতে চাওয়া হয়েছে,'মনু-র বিশ্বায়নের ভাবনা' সম্পর্কিত বিষয়।

    অভিযোগ উঠতে থাকে, দুটি প্রশ্নই 'ভারতের মধ্যযুগে সামাজিক ও রাজনৈতিক ভাবনা ' সম্পর্কিত অধ্যায়ের সিলেবাসের বাইরে থেকে করা হয়েছে। তবে যিনি প্রশ্নপত্র সেট করেছেন, তাঁর দাবি নতুনভাবে পড়াশুনার বিষয়ে ভাবনা চিন্তা করা, বা শিক্ষার্থীদের দিয়ে ভাবানোটা শিক্ষকদের কাজ। আর সেটাই করা হচ্ছে এখানে। ভারতের দুই মণীষী কৌটিল্যের সময়ে জিএসটি ও মনুর সময়ে বিশ্বায়নের ভাবনা নিয়ে বেশ বিতর্ক চলছে রাষ্ট্রবজ্ঞানের বিশেষজ্ঞ মহলে। এদিকে, এই ধরণের প্রশ্নপত্র সামনে পেয়ে বেশ অস্বস্তিতে পড়েন পড়ুয়ারা।

    English summary
    Students in Banaras Hindu University were left perplexed when they were asked questions on the nature of Goods and Services Tax (GST) in Kautilya’s times in their MA political science exam. Another question asked the students to discuss Manu is the first Indian thinker of globalisation”. Both the questions were of 15 marks each.

    Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
    সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.

    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more