• search

নির্মমভাবে ধর্ষিত কিশোর, ধর্ষণের অভিযোগ ১৫ জন ছেলের বিরুদ্ধে, এলাকা জুড়ে চাঞ্চল্য

  • By Sritama Mitra
Subscribe to Oneindia News
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS
For Daily Alerts

    মুম্বইয়ের অন্ধেরিতে এক ১৬ বছরের কিশোরের ধর্ষণের ঘটনাকে ঘিরে ছড়িয়েছে চাঞ্চল্য। অভিযোগ, ওই কিশোরকে , আরও ১৫ জন কিশোর মিলে ধর্ষণ করে। গত এক বছর ধরে এই যৌন অত্যাচার চলে বলে পুলিশের কাছে অভিযোগ জানিয়েছে সে। অভিযোগের প্রেক্ষিতে ৭ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

    পুলিশ সূত্রের খবর, ওই ১৬ বছর বয়সী কিশোরকে গত ১ বছর ধরে নানাভাবে যৌন অত্যাচার করতে থাকে অভিযুক্তরা। ২০১৬ সালে, প্রথমবার পাশের বাড়ির এক বন্ধুর দ্বারা ধর্ষিত হয় ওই কিশোর। সেই ঘটনার ভিডিও করে রাখে ধর্ষক। যা সে পরে দেখায় তার বন্ধুদের । এদিকে, ঘটনার পর থেকেই ধর্ষিত কিশোর আতঙ্কে ভুগতে থাকে। ভয়ে ঘটনার কথা বলতে পারে না তারা অভিভাবকদের।

    নির্মমভাবে ধর্ষিত কিশোর, ধর্ষণের অভিযোগ ১৫ জন ছেলের বিরুদ্ধে, এলাকা জুড়ে চাঞ্চল্য

    এদিকে, ওই ভিডিও-র কথা তুলে বার বার ওই কিশোরকে ব্ল্যাকমেল করতে থাকে তার পাশের বাড়ির বন্ধু। কিশোরকে ওই বন্ধুটি জোর করে যৌন সঙ্গমে মিলিত হওয়ার জন্যও চাপ দিতে থাকে। শেষে বাধ্য হয়ে ওই বন্ধুর নানা বিকৃত যৌন অত্যাচার সহ্য করতে থাকে সে। অনেক সময়ে খেলার মাঠের মধ্যেও কিশোরটিকে ধর্ষণ করা হয় বলে, পুলিশে অভিযোগ জানানো হয়েছে।

    পুলিশের কাছে অভিযোগে , কিশোর জানিয়েছে, তাকে ১৫ জন মিলে ধর্ষণ করে গিয়েছে গত ১ বছরে। ওই কিশোর নিজেকে বন্ধুদের যৌন লালসা থেকে বাঁচাতে গেলে বার বার তাকে মারধর করে বন্ধুরা। উল্লেখ্য, কিছুদিন আগেই আবারও ওই কিশোরকে একইভাবে ধর্ষণ করা হলে, যে যন্ত্রণায় কাতরাতে থাকে। তারপরই কিশোরের এক চেনা পরিচিত ঘটনা জানতে পেরে, তাকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে গোটা ঘটনার কথা সামে আসে।

    English summary
    A 16-year-old boy living in Andheri was allegedly raped by 15 boys over the past one year. In his complaint to the police, the victim said he finally confided in a friend when he felt “unbearable pain” two days ago after the last assault on June 26.

    Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
    সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.

    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more