• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

অ্যাডিলেডে অ্যাডভান্টেজ অস্ট্রেলিয়াই! জো রুট নজির গড়লেন সচিন-ক্লার্ক-গাভাসকরকে টপকে

Google Oneindia Bengali News

ব্রিসবেনের পর অ্যাডিলেড টেস্ট জয়ের দোরগোড়ায় অস্ট্রেলিয়া। দিন-রাতের টেস্টের তৃতীয় দিনে বাগে পেয়েও ইংল্যান্ডকে ফলো অন করায়নি স্টিভ স্মিথের দল। দিনের শেষে অজিদের স্কোর ১ উইকেটে ৪৫, লিড ২৮২ রানের। ৯ উইকেটে ৪৭৩ রান তুলে প্রথম ইনিংস ছেড়ে দিয়েছিল অস্ট্রেলিয়া, জবাবে আজ ২৩৬ রানেই শেষ ইংল্যান্ডের প্রথম ইনিংস।

সচিন-ক্লার্ক-গাভাসকরকে টপকে কোন নজির গড়লেন জো রুট?

২ উইকেটে ১৭ রান হাতে নিয়ে আজ খেলা শুরুর পর মধ্যাহ্নভোজের বিরতির আগে আর কোনও উইকেট হারায়নি ইংল্যান্ড। লাঞ্চে ইংল্যান্ডের স্কোর ছিল ৪১ ওভারের শেষে ২ উইকেটে ১৪০। ডেভিড মালান ৬৮ ও জো রুট ৫৭ রানে ক্রিজে ছিলেন। যদিও শেষ আটটি উইকেট ইংল্যান্ড হারায় মাত্র ৮৬ রানের ব্যবধানে। দ্বিতীয় সেশনে ৪৫.৪ ওভারে দলের ১৫০ রানের মাথায় আউট হন রুট। ৫১.৫ ওভারে ডেভিড মালান আউট হলে ইংল্যান্ডের স্কোর দাঁড়ায় ৪ উইকেটে ১৫৭।

সচিন-ক্লার্ক-গাভাসকরকে টপকে কোন নজির গড়লেন জো রুট?

সাতটি চারের সাহায্যে ১১৬ বলে ৬২ রান করে রুট আউট হন। অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে তাঁর আটটি অর্ধশতরান থাকলেও একটিও শতরান নেই। ১০টি চারের সাহায্যে ১৫৭ বলে ৮০ রান করেন মালান। বেন স্টোকসের ৩৪ ও ক্রিস ওকসের ২৪ ছাড়া কেউ দুই অঙ্কের রানে পৌঁছাতে পারেননি। মিচেল স্টার্ক ৩৭ রানের বিনিময়ে ৪ উইকেট নেন। নাথান লিয়ঁ ৫৮ রানে তিনটি ও ক্যামেরন গ্রিন ২৪ রানে দুটি উইকেট পেলেন। ব্রিসবেনের পর অ্যাডিলেডেও ক্রিজে জমে যাওয়া রুটের উইকেট তুলে নেন গ্রিন। দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে ডেভিড ওয়ার্নারের উইকেট হারিয়ে ১৭ ওভারে ১ উইকেটে ৪৫ রান তুলেছে অজিরা। ওয়ার্নার রান আউট হন। মার্নাস লাবুশানে ২১ ও নাইটওয়াচম্যান মাইকেল নেসের ২ রানে ক্রিজে রয়েছেন।

সচিন-ক্লার্ক-গাভাসকরকে টপকে কোন নজির গড়লেন জো রুট?

এদিকে, এদিন অর্ধশতরান করার ফাঁকে এক নজিরও গড়ে ফেলেন রুট। চলতি বছর ১৪টি টেস্টে ২৬ ইনিংসে তাঁর রান সংখ্যা হলো ১৬০৬। বিশ্বের চতুর্থ ব্যাটার হিসেবে এক ক্যালেন্ডার ইয়ারে ১৬০০-র বেশি টেস্ট রান করলেন রুট। ২০০৮ সালে শেষবার এই নজির গড়েছিলেন দক্ষিণ আফ্রিকার প্রাক্তন অধিনায়ক গ্রেম স্মিথ (১৫ টেস্টে ১৬৫৬ রান), ৬টি করে সেঞ্চুরি ও হাফ সেঞ্চুরি করেছিলেন। ২০০৬ সালে পাকিস্তানের মহম্মদ ইউসুফ ১১ টেস্টে ১৭৮৮ রান করেছিলেন টেস্টে। এখনও অবধি এক ক্যালেন্ডার ইয়ারে সেটিই সর্বাধিক রান। ৯টি শতরান ও ৩টি অর্ধশতরান পেয়েছিলেন। ১৯৭৬ সালে ভিভ রিচার্ডস ১১ টেস্টে ১৭১০ রান করেছিলেন সাতটি শতরান ও পাঁচটি অর্ধশতরান-সহ। রুট চলতি বছরে ৬টি শতরান ও তিনটি অর্ধশতরান করেছেন। এদিন তিনি একে একে টপকে যান সুনীল গাভাসকর (১৮ টেস্টে ১৫৫৫ রান), সচিন তেন্ডুলকর (১৪ টেস্টে ১৫৬২) ও মাইকেল ক্লার্ক (১১ টেস্টে ১৫৯৫)-কে। ভারতীয়দের মধ্যে ক্যালেন্ডার ইয়ারে সবচেয়ে বেশি টেস্ট রান করেছিলেন সচিন ২০১০ সালে, গাভাসকর ১৫৫৫ রান করেন ১৯৭৯ সালে।

English summary
Australia Lead By 282 Runs At Stumps Of Day 3 In Adelaide. Joe Root Overtakes Sachin Tendulkar, Michael Clarke And Sunil Gavaskar In The List Of Most Runs In A Calendar Year.
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X