• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts
Oneindia App Download

সাংবাদিক নিগ্রহের মামলায় খানিক স্বস্তি সলমন খানের, শুনানি পিছল মে পর্যন্ত

Google Oneindia Bengali News

কখনও কৃষ্ণসার হরিণ, তো কখন মদপ্য অবস্থায় ফুটপাথে শুয়ে থাকা অসহায়দের গাড়ি চাপা দেওয়া, এরকম একাধিক মহা বিতর্ক যেখানে সেখানে উঠে এসেছে একতাই নাম। আর সেটা হল বলিউডের 'ভাই' সালমান খান। আর সেই অভিযোগের লম্বা তালিকায় সম্প্রতি জুড়েছে আরও এক ঘটনা, আর তা হল কর্তব্যরত সাংবাদিককে চরম হেনস্থা করার অভিযোগ। আর এই নিয়ে যে অভিযোগ সংক্রান্ত মামলা চলছিল তাতেই খানিক স্বস্তি পেলেন বলিউডের এই সুপারস্টার।

খানিক স্বস্তি সলমন খানের

অপরাধ তাঁর ছবি তোলা, আর এর জন্য সলমনের নিরাপত্তারক্ষীদের হাতে বেধরক মার খান এক কর্তব্যরত সাংবাদিক। অন্তত এমনটাই দাবি জানিয়ে অভিযোগ করেছিলেন নিগৃহীত সাংবাদিক অশোক পাণ্ডে। পাশাপাশি তিনি আরও অভিযোগ জানান, নিরাপত্তারক্ষীদের সঙ্গে স্বয়ং সলমন এসে তাঁকে মারধর করেন। এমনকি কেড়ে নেওয়া হয় তাঁর চ্যানেল বুম, ভেঙে ফেলা হয় তাঁর ক্যামেরা ও মোবাইল। আর এরপরেই পুলিশের দ্বারস্থ হন অশোক পাণ্ডে। আর সেই মামলার রায় পিছিয়ে যেতেই কিছুটা হলেও স্বস্তি পেলেন সলমন।

একেই তো সাংবাদিক নিগ্রহের মামলার খাঁড়া ঝুলছে, তার উপর মাথা চারা দিয়েছে তাঁর পুরনো এক কীর্তি। 'হম সাথ সাথ হ্যায়' সিনেমার শুটিং করার সময় রাজস্থানের সরকারী সংরক্ষিত পশু কৃষ্ণসার হরিণ হত্যা করার অভিযোগে যে মামলা চলছিল সেই মামলা আবার উঠেছে রাজস্থানের আদালতে। তার উপর সাংবাদিকের ফোন ছিনিয়ে নেওয়া ও মারধরের ঘটনার অভিযোগও সামিল। শুটিং ফাঁকে এইসব মামলার হাজিরাও দিতে হয় তাঁকে।

ঘটনাটি ঘটেছিল ২০১৯ সালে। মাঝেমধ্যেই রাস্তা দিয়ে সাইকেল চালিয়ে যাতায়াত করেন সলমন খান। দিল্লির লাল কেল্লার সামনে গিয়ে তিনি একবার সাইকেল চালাচ্ছিলেন। তখন সেখানে সকলেই তাঁর ছবি তুলতে ব্যস্ত হয়ে পড়েন। সেখানে থাকা সাংবাদিক অশোক পাণ্ডেও তাঁর ছবি ও ভিডিও তুলতে থাকেন। কিন্তু সেখানেই বাধে বিপত্তি। অনুমতি না নিয়ে কেন তাঁর ছবি তুলছেন, এই বলে সাংবাদিককে বেধরক মারধর করা হয় বলে অভিযোগ।

জানা গিয়েছে সাংবাদিক অশোক পাণ্ডেকে নিগ্রহের ঘটনায় শুনানি হওয়ার কথা ছিল চলতি সপ্তাহেই। কিন্তু তা থেকে খানিক রেহাই মিলেছে সলমনের। পাশাপাশি সলমনের বিরুদ্ধে জারি সমনে বম্বে হাইকোর্টের পক্ষ থেকে স্থগিতাদেশ দেওয়া হয়েছে ৫ মে পর্যন্ত। সেইসঙ্গে সলমনের আইনজীবী আবাদ পোন্ডা আদালতে জানান, সলমন নাকি সাংবাদিককে কিছুই বলেননি। তাই ব্যক্তিগত হাজিরার ক্ষেত্রে সলমনকে ছাড় দেওয়া হয়েছে ৯মে পর্যন্ত।

English summary
Little shy of relieve for Salman Khan, the hearing in the case of harassment of journalists is slippery till May
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X