চলন্ত গাড়িতে স্কার্টের ভিতরে হাত দিয়েছিল পরিবারের বন্ধু , চাঞ্চল্যকর বয়ান মহিলা শিল্পীর

  • Posted By:
Subscribe to Oneindia News
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS
For Daily Alerts

    বেশ কিছুদিন ধরেই 'মি টু' পোস্ট ঘিরে সরগরম সোশ্যাল মিডিয়া। একের পর এক মহিলা , তাঁদের সঙ্গে ঘটে যাওয়া যৌন হেনস্থা তথা মহিলাদের ওপর যৌন হেনস্থার ঘটনার প্রতিবাদ করে এই সোশ্যাল মিডিয়া পোস্টিং শুরু করেছেন। এবিষয়ে বহু মহিলাই নিজের অভিজ্ঞতার কথা সোশ্যাল মিডিয়ায় জানিয়ে সাবধান করেছ বাকি মহিলাদের। এরকমই একজন স্ট্যান্ড আপ কমেডিয়ান মল্লিকা দুয়া।

    চলন্ত গাড়িতে স্কার্টের ভিতরে হাত দিয়েছিল পরিবারের বন্ধু , চাঞ্চল্যকর বয়ান মহিলা শিল্পীর

    নিজের পোস্ট-এ এক নক্কারজনক ঘটনার কথা জানান মল্লিকা। তিনি বলেন, তখন তাঁর বয়স ৭ বছর। সে সময়ে একদিন তাঁর মা সামনের সিটে বসে গাড়ি চালাচ্ছিলেন। পিছনে মল্লিকা ও তাঁর ১১ বছর বয়সী দিদি বসেছিল। এরকম এক অবস্থায়, জনৈক ব্যাক্তি তাঁর স্কার্চের ভিতরে হাত ঢুকিয়ে যৌনতার চরমতম ঘৃণ্য ঘটনা ঘটিয়েছেন। পরে যদিও সেই ব্যাক্তিকে মারধর করেন মল্লিকার বাবা।

    Me too.

    A post shared by Mallika Dua (@mallikadua) on Oct 16, 2017 at 1:19am PDT

    উল্লেখ্য , সোশ্যাল মিডিয়ায় যৌন হেনস্থা বিরোধী অভিযান এই ' মি টু ' শুরু হয় হলিউডের প্রযোজক হার্ভে ওয়েইস্টেইনের যৌন অত্য়াচারের ঘটনাকে ঘিরে। সেখানে একের পর এক অভিনেত্রী এই প্রযোজক সম্পর্কে সোশ্যাল মিডিয়ায় মুখ খোলেন। আর সেই অভিযানই তকমা পায় ' মি টু'-র।

    English summary
    It all started with a flood of sexual assault allegations against Harvey Weinstein that were kept hidden by several Hollywood actresses and other women for the longest time. One by one, when these women came forward to reveal about such incidents, other women on social media also started narrating their own horrifying stories, and so did comedienne Mallika Dua AKA Makeup Didi.

    Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
    সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.

    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more