• search

কেন অ্যাশকে সরিয়ে বিপাশাকে নেওয়া হল এই বলিউড ছবিটিতে! গোপন 'কারণ'টি জানেন কি

Subscribe to Oneindia News
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS
For Daily Alerts

    গোটা বলিউড তাঁর মতো তারকাকে কুর্নিশ জানায় । বলিউড সুন্দরী ঐশ্বর্যকে নিজেদের ফিল্মে পেতে মরিয়া হয়ে চেষ্টা করেছেন এযাবৎকালের বহু প্রযোজক পরিচালক। তিনি স্টার নন! তিনি বলিউডের সুপারস্টার। কিন্তু এই ঐশ্বর্যউ এবার বাদ পড়লেন ফিল্মে 'ও কৌন থি' ছবি থেকে।

    কেন অ্যাশকে সরিয়ে বিপাশাকে নেওয়া হল এই বলিউড ছবিটিতে! গেপন কারণটি জানেন কি

    জানা গিয়েছে, ঐশ্বর্যকে সরিয়ে ছবিতে জায়গা করে নিয়েছেন বিপাশা। তবে কেন এতবড় সুপারস্টারকে সরিয়ে সেই জায়গায় বিপাশা বসুকে রাখা হল,তা নিয়ে বেশ গুঞ্জন বলিউডে। বিভিন্ন সূত্রের দাবি, ক্রমাগত বক্স অফিসকে ফ্লপ ফিল্ম দিয়ে চলেছেন ঐশ্বর্য রাই। 'জসবা'থেকে 'ফ্যানে খান' , প্রতিটি ফিল্মই পর পর মুখ থুবড়ে পডে়ছে। আর তার জেরেই সম্ভবত এই ফিল্ম থেকে বেড়িয়ে যেতে হল অ্যাশকে।

    [আরও পড়ুন: একদিকে যিশু-জয়া অন্যদিকে অঞ্জন-অপর্ণা! কাকে ছেড়ে কাকে দেখবেন এই ভিডিও-তে]

    উল্লেখ্য, 'ফ্যানে খান' ছবির জন্য বেশ কসরৎ করেছিলেন অ্যাশ । তবে সেভাবে সাফল্য পায়নি ছবি। শুধু তাই নয় ,এর আগে সঞ্জয় গুপ্তার ছবি 'জাসবা'-এ একইভাবে ফ্লপ হয়। অনেকেরই ধারণা এর ফলে ঐশ্বর্যর কেরিয়ারে বেশ প্রভাব পড়ছে। যার ফল 'ও কৌন থি' ছবি থেকে তাঁর বাদ পড়ার ঘটনা।

    [আরও পড়ুন: 'জলেবি' ছবির এই ট্রেলার কি মনে পড়াচ্ছে প্রসেনজিৎ-ঋতুর 'প্রাক্তন'কে! দেখে নিন ]

    [আরও পড়ুন:'ইগো' -ই কি শেষ করে দিয়েছে কাল্কি-অনুরাগের দাম্পত্য! মুখ খুললেন অভিনেত্রী]

    English summary
    When Aishwarya Rai Bachchan was on a sabbatical after the birth of Aaradhya Bachchan, fans eagerly waited for her comeback with a bated breath. And, in 2015, Aishwarya Rai Bachchan returned to the silver screen with Sanjay Gupta's Jazbaa; however, the film couldn't do exceptional business at the box office. Then, Aishwarya Rai appeared in Omung Kumar's Sarbjit and despite being praised by the critics, the film failed to create any magic at the theatres.

    Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
    সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.

    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more