• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

বিজেপিতে শুরু নতুন যুদ্ধ! দিলীপ-সুকান্তদের সমন্বয় রাখতে গিয়ে শুভেন্দুরা যখন ব্রাত্য

Google Oneindia Bengali News

বিজেপিতে রদবদল চলছে। চলছে পরিমার্জনের পালা। একুশের ভোট-পরবর্তী সময়ে যেভাবে ভাঙনের পথে চলেছে বিজেপি, তা আটকানোই এখন মূল লক্ষ্য। সেই কারণে কলকাতা পুরভোটে ভরাডুবির পরই তড়িঘড়ি রাজ্য কমিটি গঠন করা হয়। তার পরপরই জেলা সভাপতি পদেও আনা হয় পরিবর্তন। কিন্তু এই ব্যাপক রদবদলে বিজেপিতে শুরু হয়েছে বিদ্রোহ।

নয়া রাজ্য কমিটি রাজ্য সভাপতি পরিবর্তনের পর

নয়া রাজ্য কমিটি রাজ্য সভাপতি পরিবর্তনের পর

একুশের নির্বাচনের পরেই বিজেপির রাজ্য সভাপতি হন সুকান্ত মজুমদার। দিলীপ ঘোষকে সরিয়ে সুকান্ত মজুমদারকে রাজ্য বিজেপিতে আনার পরই মনে হয়েছিল এবার উত্তরবঙ্গকে বেশি গুরুত্ব দিতে চাইছে বিজেপি। কিন্তু এতদিন রাজ্য কমিটি গঠন হয়নি রাজ্য সভাপতি পরিবর্তনের পরও। এতদিনে নতুন রাজ্য কমিটি গঠন হল।

দিলীপ ঘোষ ঘনিষ্ঠ নেতা-নেত্রীরা জেলার মাথায়

দিলীপ ঘোষ ঘনিষ্ঠ নেতা-নেত্রীরা জেলার মাথায়

স্বভাবতই রাজ্য কমিটিতে দিলীপের রাশ হালকা হল। দিলীপ-ঘনিষ্ঠ নেতাদের সরিয়ে নতুন মুখ আনা হল অনেক। কিন্তু তাতে খারাপ প্রভাব পড়তে পারে ভেবেই তড়িঘড়ি জেলা সভাপতিও পরিবর্তন করা হল। সেখানে অবশ্য গুরুত্ব পেলেন দিলীপ ঘনিষ্ঠরা। অনেক দিলীপ ঘোষ ঘনিষ্ঠ নেতা-নেত্রীরা জেলার মাথায় বসলেন।

শুভেন্দু অধিকারীর গড়েও দিলীপ ঘোষের রাজ

শুভেন্দু অধিকারীর গড়েও দিলীপ ঘোষের রাজ

বিজেপির এই রদবদলে প্রথমেই বলতে হয় দুই মেদিনীপুরের কথা। দুই মেদিনীপুরে দিলীপ ঘোষের অনুগামীকে জেলা সভাপতি পদে বসানো হয়েছে। পশ্চিম মেদিনীপুর দিলীপ ঘোষের হোম ডিস্ট্রিক্ট। সেখানে দিলীপ ঘোষ ঘনিষ্ঠ জেলা সভাপতি তো হবেনই, কিন্তু শুভেন্দু অধিকারীর গড়েও দিলীপ ঘোষ ঘনিষ্ঠ নেতাকে মাথায় বসানো হয়েছে।

শুভেন্দুর গড়ে দুই সাংগঠনিক জেলাতেই দিলীপ ঘনিষ্ঠরা

শুভেন্দুর গড়ে দুই সাংগঠনিক জেলাতেই দিলীপ ঘনিষ্ঠরা

পূর্ব মেদিনীপুরে দুই সাংগঠনিক জেলাতেই দিলীপ ঘনিষ্ঠরা সভাপতি হয়েছেন। বিজেপির তমলুক সাংগঠনিক জেলার সভাপতি নিযুক্ত হয়েছেন তপন বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি আগে সিপিএম নেতা ছিলেন। লক্ষণ শেঠ ঘনিষ্ঠ নেতা। লক্ষণ শেঠের সঙ্গে বিজেপিতে যোগ দিয়ে জেলা কমিটির সদস্য হয়েছিলেন। পরে জেলা সভাপতি হয়েছিলেন। মহিষাদলের বাসিন্দা তপন বন্দ্যোপাধ্যায় জেলায় দিলীপ ঘোষ ঘনিষ্ঠ নেতা হিসেবে সুপরিচিত। তিনি এবার জেলা সভাপতি হয়েছেন। তমলুক সাংগঠনিক জেলা সভাপতি নবারুন নায়েককে দলের রাজ্য সম্পাদক করা হয়েছে।

শুভেন্দু ঘনিষ্ঠ নেতারা বিজেপির সাংগঠনিক পদে ঠাঁই পাননি

শুভেন্দু ঘনিষ্ঠ নেতারা বিজেপির সাংগঠনিক পদে ঠাঁই পাননি

আর কাঁথি জেলার সভাপতি নিযুক্ত হয়েছেন আর এক দিলীপ-ঘনিষ্ঠ নেতা সুদাম পণ্ডিত। সুদাম অবশ্য দীর্ঘদিনের বিজেপিকর্মী। দলের জেলা সাধারণ সম্পাদক পদে ছিলেন। বিজেপির কাঁথি জেলার সভাপতি অনুপ চক্রবর্তীকে সরিয়ে তাঁকে নতুন জেলা সভাপতি হিসেবে বেছে নেওয়া হয়। এগরার সাতমাইল এলাকার বাসিন্দা সুদাম পণ্ডিত। এই জেলায় শুভেন্দু ঘনিষ্ঠ নেতারা বিজেপির সাংগঠনিক পদে তেমন ঠাঁই পাননি।

বিজেপি নতুন রণসজ্জায় ফিরতে চাইছে লড়াইয়ে

বিজেপি নতুন রণসজ্জায় ফিরতে চাইছে লড়াইয়ে

শুধু শুভেন্দু গড়েই নয়, বিজেপির এই রদবদলে বহু ক্ষেত্রেই বিদ্রোহের আঁচ দেখা গিয়েছে। মতুয়া মহলে বিজেপির পাঁচ বিধায়ক তো দলের হোয়াটস অ্যাপ গ্রুপ ছেড়ে কড়া বার্তা দিয়েছেন। রাজ্যজুড়ে প্রভাব পড়েছে রাজ্য কমিটিতে বদল ও ৩০ জন জেলা সভাপতিকে অপসারিত করার বিষয়ে। বিজেপি এবার নতুন দল তৈরি করে জেলার পুরসভা ভোটে ঝাঁপিয়ে পড়তে চাইছে। সেই লক্ষ্যে মোট ৪২টি সাংগঠনিক জেলা তৈরি করা হয়েছে। তার মধ্যে ৩০টিতেই রদবদল করে বিজেপি নতুন রণসজ্জায় ফিরতে চাইছে লড়াইয়ে।

English summary
BJP now faces new trouble after reshuffling state committee and district level leadership.
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X