• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

টোকিও অলিম্পিক্সে অংশগ্রহণকারী অ্যাথলিটদের স্বস্তি দেবে এই নিয়ম

করোনা পরিস্থিতিতে পিছিয়ে গিয়েছে টোকিও অলিম্পিক্স। সবকিছু ঠিকঠাক চললে ২৩ জুলাই থেকে জাপানের টোকিওতে বসবে অলিম্পিক্সের আসর। তার আগে সংক্রমণ এড়াতে অ্যাথলিটদের কী কী করণীয় তা জানিয়ে প্রকাশিত হল রুলবুক। কঠোর সুরক্ষাবিধি মানা হলেও একটি নিয়ম নিঃসন্দেহে স্বস্তি দেবে অংশগ্রহণকারী অ্যাথলিটদের।

কোয়ারান্টিনের দরকার নেই

কোয়ারান্টিনের দরকার নেই

করোনা পরিস্থিতিতে যেটা প্রথমেই মনে আসে তা হল কোয়ারান্টিন। খেলার দুনিয়া ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হতে শুরু হলেও কোয়ারান্টিন কাটিয়েই মাঠে নামতে হচ্ছে ক্রীড়াবিদদের। অস্ট্রেলিয়ায় কোয়ারান্টিনের কঠোর নিয়ম অস্ট্রেলীয় ওপেনে অনেকের প্রস্তুতিতে ব্যাঘাত ঘটিয়েছে বলেও অভিযোগ। ক্রিকেট, ফুটবল-সহ বিভিন্ন খেলাতেও বায়ো বাবলের মধ্যে থাকতে হচ্ছে খেলায়াড়দের। যদিও অলিম্পিক্সের জন্য ৩৩ পৃষ্ঠার ভাইরাস রুলবুকে জানানো হয়েছে, যে সমস্ত অ্যাথলিট জাপানে অলিম্পিক্সে অংশ নিতে যাবেন তাঁদের কোয়ারান্টিনে থাকতে হবে না। তবে মেনে চলতে হবে বিভিন্ন সুরক্ষাবিধি। টিকা নিতে পারেন অ্যাথলিটরা, তবে তা অংশগ্রহণকারীদের জন্য বাধ্যতামূলক নয়।

কোভিড পরীক্ষা নিয়েও স্বস্তি

কোভিড পরীক্ষা নিয়েও স্বস্তি

কোভিড-পর্বে কোভিড পরীক্ষাও খুব গুরুত্বপূর্ণ। ফুটবল বা ক্রিকেটের ক্ষেত্রেও দেখা গিয়েছে, দলে থাকা সত্ত্বেও কোভিড পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে না পেরে অনেককে মাঠের বাইরে থাকতে হয়েছে। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই এমন হয়েছে যাঁরা উপসর্গহীন। রুলবুকে বলা হয়েছে, অলিম্পিক্সে অংশগ্রহণকারীদের কোভিড পরীক্ষা হবে। তবে চারদিন অন্তর। তবে জাপান রওনা হওয়ার অন্তত ৭২ ঘণ্টা আগে এবং জাপানে পৌঁছানোর পর তিনি যে কোভিড নেগেটিভ, সেই প্রমাণ পেশ করতে হবে সকলকেই। কেউ করোনা পজিটিভ ধরা পড়লে অলিম্পিক্সে অংশ নিতে পারবেন না।

 ইচ্ছেমতো ঘোরাফেরা নয়

ইচ্ছেমতো ঘোরাফেরা নয়

কোয়ারান্টিনে থাকতে হবে না অ্যাথলিটদের, এ কথা আগেই উল্লেখ করা হয়েছে। এমনকী গেমস শুরুর আগে যেমন পৌঁছে যান ক্রীড়াবিদরা, সেখানকার আবহাওয়া, পরিবেশের সঙ্গে মানিয়ে নিতে জাপানেও তেমনটা হবে। গেমস শুরুর আগে জাপানে পৌঁছে ট্রেনিং ক্যাম্পে অনুশীলন করা যাবে। তবে ইচ্ছামতো ঘোরাফেরা করা যাবে না। রুলবুকে এ কথা জানিয়ে বলা হয়েছে, প্রয়োজনে গণপরিবহণ ব্যবহার করতে হলে নিতে হবে আগাম অনুমতি। এমনকী জিম, ট্যুরিস্ট এরিয়া, দোকান, রেস্তোরাঁ ও বারে অ্যাথলিটরা যেতে পারবেন না। অফিসিয়াল গেমস ভেন্যু ও বাছাই কিছু জায়গার মধ্যেই নিজেদের চলাফেরা সীমাবদ্ধ রাখতে হবে বলে রুলবুকে বলা হয়েছে।

 নিয়ম না মানলে কড়া পদক্ষেপ

নিয়ম না মানলে কড়া পদক্ষেপ

অলিম্পিক্সের ভাইরাস রুলবুকে আরও বলা হয়েছে, অংশগ্রহণকারীরা একে অন্যের সঙ্গে হাত মেলাতে বা বুকে জড়িয়ে ধরতে পারবেন না। ট্রেনিং বা ইভেন্টে অংশ নেওয়ার সময়, খাওয়া বা ঘুমানোর সময়-সহ কয়েকটি ক্ষেত্র বাদে সব সময় অ্যাথলিটদের মাস্ক পরে থাকতে হবে। সংক্রমণ এড়ানোর জন্য জারি করা এই সুরক্ষাবিধি লঙ্ঘন করলে লঙ্ঘনকারীকে অলিম্পিক্সে অংশ নিতে দেওয়া হবে না বলেও জানিয়ে দিয়েছেন আয়োজকরা।

বিরাটের এই গুণের প্রশংসা জামাইকার স্প্রিন্টারের

English summary
No Quarantine For Athletes Participating In Tokyo Olympics
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X