• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

‌করোনা নিয়ে ভুয়ো খবর রুখতে কেন্দ্রকে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ওয়েবসাইট তৈরির নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের

২১ দিনের লকডাউন নিয়ে দু’‌টি আবেদনের শুনানিতে সুপ্রিম কোর্ট মঙ্গলবার কেন্দ্রকে কোভিড–১৯–এর তথ্য রয়েছে এমন একটি ওয়েবসাইট ও বিশেষজ্ঞদের নিয়ে প্যানেল গঠন করার নির্দেশ দিয়েছে। এই নির্দেশ পাওয়ার ২৪ ঘণ্টার মধ্যে তা কার্যকর করতে হবে বলে জানিয়েছে শীর্ষ আদালত।

পরিযায়ী শ্রমিকদের নিয়ে দু’‌টি আবেদন

পরিযায়ী শ্রমিকদের নিয়ে দু’‌টি আবেদন

লকডাউনের মাঝে ভিন রাজ্যে কাজে যাওয়া শ্রমিকদের কাজে আতঙ্কিত হয়ে বাড়ি ফিরতে মরিয়া। এই ইস্যু নিয়ে সুপ্রিম কোর্টে আবেদন জানিয়েছিলেন আইনজীবী অলোক শ্রীবাস্তব ও রেশমি বনসাল। মঙ্গলবার সেই আবেদনের শুনানি হচ্ছিল ভিডিও কনফারেন্সে। নোভেল করোনা ভাইরাসের প্রকোপ কমাতে ২৪ মার্চ সন্ধ্যায় ২১ দিনের লকডাউনের ঘোষণা হয় যা ২৫ মার্চ মধ্যরাত থেকেই শুরু হয়ে যায় দেশে।

শ্রমিকদের কাউন্সেলিংয়ের ব্যবস্থা

শ্রমিকদের কাউন্সেলিংয়ের ব্যবস্থা

মঙ্গলবার শুনানির সময়, কেন্দ্রের প্রতিনিধিত্বকারী সলিসিটার জেনারেল তুষার মেহতা শীর্ষ আদালতকে জানিয়েছিলেন যে আন্তঃরাজ্য অভিবাসন (শ্রমিকদের) নিয়ে সম্পূর্ণ নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। তিনি সুপ্রিম কোর্টের সাংবিধানিক বেঞ্চের মুখ্য বিচারপতি এসএ বোবদে ও বিচারপতি এল নাগেশ্বর রাওকে বলেন, ‘‌আমরা আতঙ্কের সমাধানের জন্য কাউন্সেলিং করানোর বিষয়ে বিবেচনা করছি। ২২,৮০০ জন মানুষকে খাদ্য দেওয়া হয়েছে। তাঁরা হলেন প্রয়োজন রয়েছে এমন মানুষ, অভিবাসী ও দৈনি,ক শ্রমিক। তাঁদের নিরাপদ আশ্রয়ে রাখা হয়েছে।'‌

সুপ্রিম কোর্ট কেন্দ্রের পদক্ষেপে হস্তক্ষেপ করবে না

সুপ্রিম কোর্ট কেন্দ্রের পদক্ষেপে হস্তক্ষেপ করবে না

সোমবার সুপ্রিম কোর্টে শুনানির সময় আবেদনকারীদের উদ্দেশ্যে আদালত বলেছিল যে, ‘‌ইতিমধ্যে এই ইস্যুতে কেন্দ্র পদক্ষেপ করেছে সে বিষয়ে আদালত হস্তক্ষেপ করবে না। আমরা সব কিছু নিয়ে কাজ করব, তবে কেন্দ্র ইতিমধ্যে যা করেছে তা নিয়ে নয়'‌। শীর্ষ আদালত জানায় যে এই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের জন্য কেন্দ্র যে পদক্ষেপ নিয়েছে সেখানে সুপ্রিম কোর্ট অন্য নির্দেশ দিয়ে বিভ্রান্তিকর ধারণার সৃষ্টি করবে না। শীর্ষ আদালত তাও এই লকডাউনের পরিস্থিতিতে লক্ষ্য করে দেখেছে যে করোনা ভাইরাস প্রকোপের চেয়েও বড় সমস্যা পরিযায়ী শ্রমিকদের ভয় ও আতঙ্ক। বিভিন্ন শহর থেকে শ্রমিকরা তাঁদের নিজ নিজ গ্রামে পৌঁছানোর লক্ষ্যে কেন্দ্রের গৃহীত পদক্ষেপের বিষয়ে শীর্ষ আদালত একটি স্ট্যাটাস রিপোর্ট জমা দিতে বলেছিল কেন্দ্রকে। তুষার মেহতা সোমবারই আদালতকে আশ্বস্ত করে জানিয়েছিল যে এই পরিস্থিতি সমাধানের জন্য সব রাজ্য সরকারই প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করছে।

English summary
to stop fake news over coronavirus supreme court direct to central set up website
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X