• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

নয়া গোপনীয়তা বিধি নিয়ে হোয়াটসঅ্যাপ ও ফেসবুককে নোটিস সুপ্রিম কোর্টের

নতুন নিরাপত্তা বিধি নিয়ে বেশ কয়েকদিন ধরে গ্রাহক ও কেন্দ্রের সঙ্গে তরজা চলছে হোয়াটসঅ্যাপের । বিষয়টি গড়িয়েছে সুপ্রিম কোর্ট পর্যন্ত। নতুন নিরাপত্তা বিধিকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে আবেদন জমা পড়েছে শীর্ষ আদালতে। সোমবার সেই সংক্রান্ত আবেদনের ওপর ভিত্তি করে সুপ্রিম কোর্ট হোয়াটসঅ্যাপ ও তার অভিভাবক সংস্থা ফেসুককে নোটিস পাঠানো হয়। চার সপ্তাহের মধ্যে এই টেক জায়ান্টের থেকে সুপ্রিম কোর্ট জবাব চেয়েছে।

নয়া গোপনীয়তা বিধি নিয়ে হোয়াটসঅ্যাপ ও ফেসবুককে নোটিস সুপ্রিম কোর্টের

এদিন শীর্ষ আদালতের তিরস্কারের মুখে পড়ে হোয়াটসঅ্যাপ। সুপ্রিম কোর্টের একক বেঞ্চের নেতৃত্বে থাকা মুখ্য বিচারপতি এস এ বোবদে হোয়াটসঅ্যাপ ও ফেসবুককে বলেন, '‌আপনারা হয়ত ২-৩ মার্কিন ডলার ট্রিলিয়ন সংস্থা, কিন্তু মানুষের নিরাপত্তা তার চেয়েও বেশি মূল্যবান এবং তাঁদের গোপনীয়তাকে সুরক্ষা দেওয়া আমাদের কর্তব্য।'‌ আবেদনে বলা হয়েছে, ভারতে নতুন গোপনীয়তা বিধি কার্যকর করা থেকে বিরত থাকুক হোয়াটসঅ্যাপ এবং নির্দেশ দেওয়া হোক যে ইউরোপিয়ান দেশগুলির জন্য এই গোপনীয়তা বিধি তৈরি করে তা প্রয়োগ করা হোক।

বরিষ্ঠ আইনজীবী শ্যাম দিভান আবেদনকারীর পক্ষ থেকে আদালতকে বলেন, '‌জানুয়ারিতে হোয়াটসঅ্যাপ নতুন গোপনীয়তা বিধি নিয়ে আসে। ইউরোপের জন্য এক সেট গোপনীয়তা বিধি এবং ভারতের জন্য আলাদা গোপনীয়তা বিধি। যেই সময় ব্যক্তিগত তথ্য সুরক্ষা বিলটি যখন মুলতুবি অবস্থায় রয়েছে, তখন এই ঘটনাটি ঘটে।'‌ তিনি এও বলেন, '‌ইউরোপিয়ান ও ভারতীয়দের মধ্যে অনেক পার্থক্য রয়েছে। জানুয়ারিতে হোয়াটসঅ্যাপ তাদের পরিষেবার শর্তাদি এবং গোপনীয়তা নীতি পুনর্নবীকরণ করেছিল, যা কার্যকর করার কথা ছিল ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে। যদিও সেই তারিখের মেয়াদ বাড়িয়ে ১৫ মে করে দেওয়া হয়েছে, কারণ এই নতুন বিধি নিয়ে রোষের মুখে পড়েছে হোয়াটসঅ্যাপ।'‌

সম্প্রতি হোয়াটসঅ্যাপের পক্ষ থেকে তাদের নতুন প্রাইভেসি পলিসি সামনে আসার পর থেকেই শুরু হয় প্রবল বিতর্ক। ফেসবুকের অধিগৃহিত মেসেজিং অ্যাপটির নতুন প্রাইভেসি পলিসি অনুযায়ী, ফেসবুকের সঙ্গে হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীদের সমস্ত তথ্য ভাগ করে নেওয়ার কথাই জানানো হয়। আর যার পর থেকেই প্রশ্ন উঠে যায় এন্ড-টু-এন্ড এনক্রিপশন নিয়ে। ব্যক্তিগত তথ্য তাহলে আর কতটা সুরক্ষিত থাকবে সে নিয়ে তৈরি হয় আশঙ্কা। যদিও ব্যক্তিগত গোপনীয়তা রক্ষা করতে হোয়াটসঅ্যাপ দায়বদ্ধ তা কিছুদিন আগেই নিজেদের অ্যাকাউন্ট থেকে স্ট্যাটাস দিয়ে জানিয়ে দিয়েছিল।

English summary
The Supreme Court sent notices to WhatsApp and Facebook about the new privacy rules,
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X