• search

ঐতিহাসিক ভবনগুলিতে হামলার ছক জঙ্গিদের

Subscribe to Oneindia News
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS
For Daily Alerts

    লখনৌ, ২৪ এপ্রিল : উত্তরপ্রদেশের বিভিন্ন ঐতিহাসিক ভবনগুলিতে হামলায় ওড়ানোর ছক কষছে জঙ্গিরা। উত্তরপ্রদেশ পুলিশের রিমান্ডে থাকা দুই জঙ্গি এহতাসাম ও ফৈজান নিজেদের বয়ানে এমনই দাবি করেছে।

    ধৃত ওই দুই জঙ্গি পুলিশি জেরার সামনে জানিয়েছে, উত্তরপ্রদেশের পুরনো শহর লখনৌতে তারা ঐতিহাসিক বিধানভবনে হামলা চালানোর উদ্দেশ্যে ইতিমধ্যেই ভবনের ভিডিওগ্রাফও করে ফেলেছিল। এরপর তারা উত্তরপ্রদেশের মহাকরণে ঢোকার যাবতীয় চেষ্টা করলে , পুলিশি তৎপরতায় তা ব্যার্থ হয়।

    ঐতিহাসিক ভবনগুলিতে হামলার ছক জঙ্গিদের

    উত্তরপ্রদেশ এটিএসের তরফে দুই জঙ্গিকে জিজ্ঞাসাবাদারে পর জানা যায়, সেরাজ্যের বিখ্যাত ইমারতগুলিতে হামলার ছক কষে জঙ্গিরা। এছাড়াও ভবিষ্যতে শিয়া মুসলমানদের ওপরও হামলার পরিকল্পনা ছিল সন্ত্রাসবাদীদের।

    নাশকতার পরিকল্পনাকে বাস্তবায়িত করতে বিজনৌরে যাওয়ার কথা ছিল মুম্বই থেকে ধৃত আরেক জঙ্গি নিজামের। দেশের ৫ রাজ্যে অভিযান চালিয়ে বহু সন্দেহভাজন জঙ্গিকে ধরে, এমনই তথ্য পেয়েছে পুলিশ। এখনও জঙ্গিদের আরেক লিঙ্কম্যানের খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ। মূলত, বড়সড় হামলার থেকে জঙ্গি শিবিরগুলি ভারতে আতঙ্কের পরিবেশ তৈরি করার দিকে মনোনিবেশ করে চলেছে বলে দাবি পুলিশের।

    English summary
    Terror suspects were planning to target Lucknow’s historical buildings.Two terror suspects—Ehtesham and Faizan—who are at present in UP Police remand, have confessed that they were planning to target historical buildings of Old City in Lucknow and had also videographed the Vidhan Bhawan (state assembly) and made futile attempts to enter the secretariat for a reconnaissance.

    Oneindia - এর ব্রেকিং নিউজের জন্য
    সারাদিন ব্যাপী চটজলদি নিউজ আপডেট পান.

    We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more