• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

রকেট চালিত গ্রেনেড ব্যবহার হয়েছিল মোহালি বোমা হামলায়, ধরা পড়ল সিসিটিভি ফুটেজে

Google Oneindia Bengali News

মোহালিতে পাঞ্জাব পুলিশের গোয়েন্দা সদর দফতরে হামলার একটি সিসিটিভি ফুটেজ সামনে এসেছে। সামনের রাস্তায় লাগানো একটি সিসিটিভি ক্যামেরায় এই হামলার ফুটেজ রেকর্ড করা হয়েছে। ফুটেজের প্রথম অংশে গোয়েন্দা সদর দফতরের কাছে স্বাভাবিক যান চলাচল দেখা যাচ্ছে। তারপর ভিডিওতে হঠাৎ আলোর ঝলকানি দেখা যায় যা পাঞ্জাব পুলিশের গোয়েন্দা সদর দফতরে রকেটের আঘাতের ফলে হয়েছিল।

রকেট চালিত গ্রেনেডেই হয়েছে হামলা!

রকেট চালিত গ্রেনেডেই হয়েছে হামলা!

সোমবার সন্ধ্যায় একটি রকেট চালিত গ্রেনেড পাঞ্জাব পুলিশের গোয়েন্দা শাখার সদর দফতরে হামলা করা হয়৷ যা দফতরের এক তলার জানালা ভেঙে দেয়। পুলিশের মতে, বিস্ফোরণে কেউ হতাহত হয়নি! রাজনৈতিক দলগুলি এই ঘটনাকে 'শকিং' বলে অভিহিত করেছে। মোহালির ৭৭ নম্বর সেক্টরে পাঞ্জাব পুলিশের এই গোয়েন্দা দফতরটিত সন্ধ্যা ৭টা ৪৫ মিনিটে বিস্ফোরণ ঘটে বলে জানা গিয়েছে৷ ঘটনাটিকে একটি বড় গোয়েন্দা ব্যর্থতা হিসাবে দেখা হচ্ছে! কারণ মোহালির এই অফিসটিতে পাঞ্জাবের কাউন্টার ইন্টেলিজেন্স উইং, বিশেষ টাস্ক ফোর্স এবং কিছু অন্যান্য ইউনিট রয়েছে।

হামলার ঘটনায় গ্রেফতার এক!

হামলার ঘটনায় গ্রেফতার এক!

পাঞ্জাব পুলিশ জানিয়েছে এই হামলায় জড়িত সন্দেহেপাঞ্জাবের তারান জেলা থেকে একজনকে আটক করা হয়েছে। তার নাম নিশান সিং। তিনি তারন তারান জেলার কুল্লা গ্রামের বাসিন্দা। পুলিশ জানিয়েছে, মোহালির ঘটনায় অভিযুক্তের ভূমিকার বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। পুলিশের মতে, নিশান এই হামলায় হামলাকারীদের রসদ সরবরাহ করেছিলেন বলে মনে করা হচ্ছে! যদিও সিং ইতিমধ্যেই বেশ কয়েকটি ফৌজদারি মামলায় অভিযুক্ত৷ যার মধ্যে একটি 'খুনের চেষ্টা' এবং আরেকটি মাদকদ্রব্য ও সাইকোট্রপিক পদার্থ আইনের মামলা রয়েছে৷ এর পাশাপাশি পাঞ্জাব পুলিশ ইতিমধ্যেই বেশ কয়েকজন সন্দেহভাজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে৷

প্রথম থেকেই রকেটের সাহায্যে গ্রেনেড হামলার কথা বলে আসছিল পাঞ্জাব পুলিশ!

প্রথম থেকেই রকেটের সাহায্যে গ্রেনেড হামলার কথা বলে আসছিল পাঞ্জাব পুলিশ!

পাঞ্জাব পুলিশ সূত্রে জানানো হয়েছে, হামলায় ব্যবহৃত লঞ্চারটি উদ্ধার করা হয়েছে। গোয়েন্দা সংস্থাগুলি জানিয়েছে এই হামলার সঙ্গে পাকিস্তান-ভিত্তিক সন্ত্রাসী ও খালিস্তানি চরমপন্থী গোষ্ঠীর ওভারগ্রাউন্ড সন্ত্রাসীরা রয়েছে৷ প্রথম থেকেই সন্ত্রাসী যোগ ও রকেটের সাহায্যে গ্রেনেড হামলার কথা বলে আসছিল পাঞ্জাব পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগ। সিসিটিভি ফুটেজ রকেটের সাহায্যে গ্রেনেড হামলার বিষয়টি স্পষ্ট করেছে।

পাঞ্জাবেন নতুন মুখ্যমন্ত্রী ভগবন্ত মান বলেছেন, ঘটনায় জড়িত কাউকে ছাড়া হবে না!

পাঞ্জাবেন নতুন মুখ্যমন্ত্রী ভগবন্ত মান বলেছেন, ঘটনায় জড়িত কাউকে ছাড়া হবে না!

মঙ্গলবার টুইটে পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী লেখেন, 'মোহালিতে বিস্ফোরণের তদন্ত করছে পাঞ্জাব পুলিশ। যারা পাঞ্জাবের শান্তিপূর্ণ পরিবেশ নষ্ট করার চেষ্টা করবে তাদের কোনওভাবেই রেহাই দেওয়া হবে না৷ একইসঙ্গে আম আদমি পার্টির প্রধান মুখপাত্র মালবিন্দর সিং কাং বলেছেন, 'অপরাধীরা কোনভাবেই ছাড় পাবে না! তিনি বলেছেন, মোহালিতে বিস্ফোরণটি দুর্ভাগ্যজনক। তবে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। পুরো বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে৷ অপরাধীরা কেনও উপায়েই রেহাই পাবে না। রাজ্যের কষ্টার্জিত শান্তি ও সম্প্রীতিতে কাউকে আঘাত করতে দেওয়া হবে না!'

English summary
Rocket-propelled grenades were used in the Mohali bombing, captured on CCTV footage
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X