• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

সব ভোটকর্মীই এবার করোনা যোদ্ধা, নির্বাচন কমিশন এবং স্বাস্থ্যমন্ত্রকের বিশেষ পদক্ষেপ

এবার নির্বাচনের (election) কাজে যুক্ত সব ভোটকর্মীকেই প্রথমসারির করোনা যোদ্ধা (front line workers) হিসেবে চিহ্নিত করা হবে। এমনটাই জানিয়েছেন মুখ্য নির্বাচন কমিশনার (cec) সুনীল অরোরা। তিনি আরও জানিয়েছেন, করোনা পরিস্থিতির কারণে রাজ্যগুলিতে বাড়তি বুথ (extra booth) তৈরি করা হবে। অন্যদিকে ভোটকর্মীদের সবাইকে করোনার টিকা দিতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দিয়েছে স্বাস্থ্যমন্ত্রক।

ভোটকর্মীরাও করোনা যোদ্ধা

ভোটকর্মীরাও করোনা যোদ্ধা

সম্প্রতি কেরলে গিয়েছিলেন মুখ্য নির্বাচনী কমিশনার সুনীল অরোরা। সেখানে গিয়েই তিনি ভোটকর্মীদের প্রথম শ্রেণির করোনা যোদ্ধার মর্যাদা দেওয়ার কথা বলেন। তিনি বলেছেন, মালাপ্পুরম, পালাক্কাড, ওয়ানাডের মতো এলাকা, যেখানে করোনা সংক্রমণ বেশি, সেই সব জায়গায় ভোটকর্মীদের করোনার কিট দেওয়া হবে। এইসব এলাকাগুলিতে অতিরিক্ত বাহিনীও মোতায়েন করা হবে বলে তিনি জানিয়েছেন। এছাড়াও করোনা রোগীদের জন্য ভোটের সময় বাড়ানোর ব্যাপারটি কমিশন ভেবে দেখবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

ভোটকর্মীদের করোনার টিকা নিশ্চিত করতে ব্যবস্থা কেন্দ্রের

ভোটকর্মীদের করোনার টিকা নিশ্চিত করতে ব্যবস্থা কেন্দ্রের

পশ্চিমবঙ্গের পাশাপাশি একইসঙ্গে ভোট হতে চলেছে কেরল, অসম, তামিলনাড়ু এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল পুদুচেরিতেও। এর মধ্যে কেরলের করোনা পরিস্থিতি এখনও চিন্তাজনক। তবে এইসব রাজ্যের সব ভোটকর্মীদের যাতে করোনার টিকা দেওয়া হয়, তার নিশ্চিত করতে ব্যবস্থা নিয়ে সংশ্লিষ্ট মহলকে নির্দেশ দিয়েছে স্বাস্থ্যমন্ত্রক। এইসব রাজ্যে ভোটকর্মীদের প্রথম শ্রেির করোনা যোদ্ধার মর্যাদা দেওয়ার কথাও বলা হয়েছে। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, প্রথম শ্রেণির করোনা যোদ্ধার মর্যাদা যাঁরা পেয়েছেন, কিংবা যাঁদের দেওয়া হয়েছে, তাঁরা সবার আগে করোনার টিকা পেয়েছে। যেমন চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীরা। স্বাস্থ্যমন্ত্রকের এই ব্যবস্থা তাদের করোনা সংক্রমণের আশঙ্কা থেকে মুক্তি দেবে বলেই মনে করছেন ভোটকর্মীরা।

ভোটকর্মীদের তালিকায় থাকেন যাঁরা

ভোটকর্মীদের তালিকায় থাকেন যাঁরা

সাধারণভাবে ভোট কর্মীদের তালিকায় রাজ্য ও কেন্দ্রীয় সরকারিকর্মীরা ছাড়াও রাখা হয় স্কুলের শিক্ষক, অশিক্ষক কর্মী এবং ব্যাঙ্ককর্মীরাও। এইসব কর্মীদের প্রথম শ্রেণির করোনা যোদ্ধার তালিকায় আনার কেন্দ্রের সিদ্ধান্ত যথেষ্টই তাৎপর্যপূর্ণ। জানা গিয়েছে, করোনার টিকাকরণের সর্বোচ্চ কমিটির সুপারিশের পাশাপাশি জনস্বার্থের কথাও ভাবা হয়েছে কেন্দ্রের এই পদক্ষেপের আগে। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যসচিব রাজেশ ভূষণ তাঁর চিঠিতে এইসব কথাই উল্লেখ করেছেন।

 টিকাকরণ শুরুর পর প্রথম নির্বাচন

টিকাকরণ শুরুর পর প্রথম নির্বাচন

দেশে করোনা পরিস্থিতিতে প্রথম নির্বাচন হয়েছিল বিহারে, গত নভেম্বরে। আর টিকাকরণ শুরু হওয়ার পরে প্রথম নির্বাচন হতে চলেছে এই পাঁচ রাজ্যে। সেই পরিস্থিতিতে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যসচিব জানিয়েছেন, আসন্ন নির্বাচনে যাঁরা ভোটকর্মী হিসেবে কাজ করতে চলেছেন, তাঁদের সবার তালিকা তৈরি করে কো-উইন পোর্টালে আপলোড করতে সংশ্লিষ্ট মহলকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এতে এইসব কর্মীদের টিকাকরণের কাজে সুবিধা হবে।

মুর্শিদাবাদঃ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ছাত্রছাত্রীদের গৃহে আজ বিদ্যার দেবী সরস্বতীর আরাধনা

মইদুলের মৃত্যুতে সক্রিয় লালবাজার, বাম নেতা ফুয়াদ হালিমকে চিঠি কলকাতা পুলিশের

English summary
Health Ministry says all election officials will be treated as frontline workers for Corona vaccine
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X