• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

(ছবি) আইএনএস বিরাটকে নিয়ে চমকপ্রদ তথ্য যা প্রতিটি ভারতবাসীর জানা উচিত

দীর্ঘ তিনদশক পরিষেবা দেওয়ার পরে ভারতীয় নৌবাহিনীর 'এয়ারক্রাফ্ট কেরিয়ার' আইএনএস বিরাটকে কাজ থেকে তুলে নেওয়া হচ্ছে। মুম্বইয়ে এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এই ঘোষণা হবে।

নৌবাহিনীর ক্ষেত্রে ভারত সারা পৃথিবীতে অন্যতম বড় ও সাড়াজাগানো শক্তি। ভারতের এই শক্তিশালী হওয়ার পিছনে আইএনএস বিরাট, বিক্রান্তের মতো রণতরীর হাত রয়েছে। এতবছরের ভারতীয় নৌসেনায় কাটানোর পরে এই রণতরী ইতিহাসের পাতায় চলে গিয়েছে। সারা পৃথিবীতে সবচেয়ে বেশি সময় ধরে কাজ করা রণতরী হিসাবে ইতিমধ্যেই গিনেস রেকর্ডসে নাম তুলেছে এই রণতরী। আর কী কী অজানা তথ্য রয়েছে এই আইএনএস বিরাটকে ঘিরে, তা জেনে নিন একনজরে।

প্রায় ৬ দশক আগে তৈরি রণতরী

প্রায় ৬ দশক আগে তৈরি রণতরী

১৯৫৯ সালে এই রণতরীটি তৈরি হয়। তখন নাম ছিল এইচএমএস হার্মেস। সবচেয়ে বেশি সময় রণতরী হিসাবে নৌসেনায় কাজ করে এটি গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে নাম তুলেছে।

১৯৮৭ সালে ভারতে আগমন

১৯৮৭ সালে ভারতে আগমন

১৯৫৯ সাল থেকে ব্রিটিশ নৌসেনায় সার্ভিস দেওয়ার পরে ১৯৮৭ সালে ৬.৫ কোটি টাকা দিয়ে আইএনএস বিরাটকে কিনে নেয় ভারতীয় নৌসেনা। তখন এটির নাম হয় আইএনএস বিরাট।

তিন দশকের পরিষেবা

তিন দশকের পরিষেবা

আইএনএস বিরাট ভারতীয় নৌসেনার হয়ে গত তিন দশকে সাতটি সাগরে ৫ লক্ষ নটিক্যাল মাইলের বেশি পাড়ি দিয়েছে। এই আইএনএস বিরাটের কম্যান্ডিং অফিসার থেকে তিনজন ভারতীয় নৌসেনা প্রধান হয়েছেন।

হেলিকপ্টার ও যুদ্ধজাহাজ বহন

হেলিকপ্টার ও যুদ্ধজাহাজ বহন

এয়ারক্র্যাফ্ট কেরিয়ারের পাশাপাশি বেশ কয়েকধরনের সেনা হেলিকপ্টারের জায়গা এতদিন ছিল আইএনএস বিরাট। আইএনএএস ৩০০, এমকে৪২বি, এমকে৪২সি, হেলিকপ্টার চেতন, ধ্রুব ও কামোভ ৩১-কেও আইএনএস বিরাটে ব্যবহার করা হয়েছে।

নৌবাহিনীতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা

নৌবাহিনীতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা

১৯৮৯ সালে শ্রীলঙ্কায় শান্তি ফেরানোর প্রক্রিয়া অপারেশন জুপিটারের ক্ষেত্রে দারুণ ভূমিকা নিয়েছিল আইএনএস বিরাট। এরপরে ২০০১-০২ সালে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে অপারেশন পরাক্রমের ক্ষেত্রেও আইএনএস গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিয়েছে।

দৈর্ঘ্যে-প্রস্থে বিরাট

দৈর্ঘ্যে-প্রস্থে বিরাট

২২৬.৫ মিটার দীর্ঘ ৪৮.৭৮ মিটার প্রস্থ বিশিষ্ট ২৮ হাজার ৭০০ টনের আইএনএস বিরাটে ১৫০ জন নৌসেনা অফিসার ও ১৫০০ জন নাবিক কাজ করেন।

বিরাটকে নিয়ে পরবর্তী পরিকল্পনা

বিরাটকে নিয়ে পরবর্তী পরিকল্পনা

অন্ধ্রপ্রদেশ সরকার জানিয়েছে, আইএনএস বিরাটকে মিউজিয়াম হিসাবে গড়ে তুলতে তারা আগ্রহী। তবে সেই বিষয়ে এখনও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। তবে বিশাখাপত্তনমের সৈকতে এটিকে রেখে তাতে মিউজিয়াম ও বিলাসবহুল হোটেল গড়ে তোলা হবে।

English summary
Indian Navy : Facts about the INS Viraat aircraft carrier we all should know
For Daily Alerts
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X
We use cookies to ensure that we give you the best experience on our website. This includes cookies from third party social media websites and ad networks. Such third party cookies may track your use on Oneindia sites for better rendering. Our partners use cookies to ensure we show you advertising that is relevant to you. If you continue without changing your settings, we'll assume that you are happy to receive all cookies on Oneindia website. However, you can change your cookie settings at any time. Learn more