'খাদিজার ঘটনা মানুষের মনকে গভীরভাবে নাড়া দিয়েছে'

  • Posted By: BBC Bengali
Subscribe to Oneindia News
আবার মিষ্টি হাসি ছড়িয়ে পড়েছে খাদিজা বেগমের মুখে
SHARNAN HAQUE
আবার মিষ্টি হাসি ছড়িয়ে পড়েছে খাদিজা বেগমের মুখে

বাংলাদেশে বহুল আলোচিত খাদিজা বেগম হত্যা চেষ্টার মামলায় বুধবার রায় দেওয়ার কথা রয়েছে।

প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে প্রত্যাখ্যাত হওয়ার পর গত বছরের ৩রা অক্টোবর মাসে সিলেটে কলেজ ছাত্রী খাদিজা বেগমকে চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর আহত করেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্র এবং ছাত্রলীগের স্থানীয় এক নেতা বদরুল আলম।

হাসপাতালে দীর্ঘ চিকিৎসার পর খাদিজা বেগম সম্প্রতি বাড়িতে ফিরেছেন।

আরো পড়তে পারেন:

টিভি থেকেও তথ্য চুরি করছে সিআইএ: উইকিলিকস

মালয়েশিয়ায় সৌদি বাদশাহকে হত্যার ষড়যন্ত্র?

শেখ মুজিবের ৭ই মার্চের ভাষণের নেপথ্যে

এই হামলার একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে এবং এ নিয়ে সারাদেশে তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছিলো।

খাদিজা বেগম (হামলার শিকার হবার আগে)
SHAKIR HOSSAIN
খাদিজা বেগম (হামলার শিকার হবার আগে)

আইন ও শালিস কেন্দ্রে ইভ টিজিং নিয়ে কাজ করেন নীনা গোস্বামী। তিনি বলছেন, ''এর আগেও একটার পর একটা ঘটনা ঘটেছে, তবে এবার একটু ভিন্নতা দেখা যাওয়ায় এটি বড় ঘটনা হয়েছে। এখানে সাধারণ মানুষ প্রতিবাদী হয়েছে, তারা আসামীকে ধরে পুলিশের কাছে সোপর্দ করেছে। তাদের মধ্যে চিন্তা তৈরি হয়েছে যে, কোথায় আমরা বসবাস করছি?''

নীনা গোস্বামী বলছেন, ''এই ঘটনার ভিডিও চিত্র ফেসবুকে আলোড়ন তৈরি করে, মানুষের হাতে হাতে চলে যায়। ফলে এটি মানুষের মনকে গভীরভাবে নাড়া দিয়েছে, তারা এটি ভালোভাবে নেননি। এটির বিচার হোক, সবাই সেটি চেয়েছেন।''

''সবাই সচেতন হয়েছে, রাতারাতি বদলে গেছেন, এটা হয়তো এখনি বলা যাবে না। তবে একটি বার্তা পরিষ্কার হয়েছে, এ ধরণের ঘটনা ঘটালে কেউ ছাড় পাবে না।'' বলছেন আইন ও শালিস কেন্দ্রের এই কর্মকর্তা।

তিনি বলছেন, ''এটাই সবচেয়ে ইতিবাচক দিক। সরকারও খুব ভালো ভূমিকা রেখেছে। এই ঘটনার বিচারের জন্য সবাই যে এক কাতারে দাঁড়িয়েছেন। সবাই প্রতিবাদী হলে যে এ ধরণের ঘটনার যে কত তাড়াতাড়ি বিচার হতে পারে, এটাও একটি উদাহরণ।''

আরো খবর;

সেই খাদিজা এখন হাঁটাচলা করেন, বললেন 'ভাল আছি’

খাদিজা হত্যা চেষ্টা: ৩৪ দিন পর অভিযোগপত্র দায়ের

বাবাকে 'আব্বু’ ডাকল খাদিজা, মাকে ডাকল 'আন্টি’

BBC
English summary
Khadija's story has deeply moved people of Bangladesh . Khadija once rejected someone's proposal and then the person tried to kill her.She got seriously injured.
Please Wait while comments are loading...