Tap to Read ➤

সাগরে এগোচ্ছে মৌসুমী বায়ু, জারি নয়া সতর্কতা

সাগরে এগোচ্ছে মৌসুমী বায়ু, মৎস্যজীবীদের উদ্দেশে জারি সতর্কতা
আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমী বায়ুর জন্য পরিস্থিতি অনুকূল। আগামী ৪৮ ঘন্টায় তা আরব সাগরের দক্ষিণ-পশ্চিম অংশ, আরব সাগরের দক্ষিণ-পূর্বের অংশ, মালদ্বীপ, দক্ষিণ ও পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপসাগর এবং উত্তর-পূর্ব বঙ্গোপসাগরে প্রবেশ করবে।
একটি অক্ষরেখা পূর্ব বিহার থেকে অন্ধ্রপ্রদেশের উত্তর উপকূল পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। এছাড়াও বঙ্গোপসাগর থেকে দক্ষিণ-পশ্চিম বাতাস দেশের উত্তর-পূর্ব এবং সংলগ্ন এলাকায় প্রবেশ করছে। যার জেরে আগামী ৫ দিন বিহার, ঝাড়খণ্ড, ওড়িশা , পশ্চিমবঙ্গ এবং সিকিমে ঝড়-বৃষ্টির পূর্বাভাস ।
উত্তর-পূর্বের অরুণাচল প্রদেশ, নাগাল্যান্ড, মনিপুর, মিজোরাম, ত্রিপুরায় ২৫-২৮ মের মধ্যে এবং অসম-মেঘালয়ে ২৫, ২৬, ২৮, ২৯ মে বিচ্ছিন্নভাবে ভারী বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস।
উত্তর-দক্ষিণ অক্ষরেখা এবং আরব সাগর থেকে আসা পশ্চিমা বায়ুর কারণে আগামী ৫ দিন কেরল-মাহে, লাক্ষাদ্বীপে বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বিচ্ছিন্ন বৃষ্টিপাত হতে পারে। এছাড়াও অন্ধ্রপ্রদেশ, তেলেঙ্গানা, কর্নাটক, তামিলনাড়ু, পুদুচেরি, কাড়াইকালে একই পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে। 
দক্ষিণ-পশ্চিম আরব সাগরে আগামী ৫ দিন ঘন্টায় ৪০-৫০ কিমি বেগে ঝোড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। সর্বোচ্চ বেগ হতে পারে ঘন্টায় ৬০ কিমি। গুজরাত উপকূলে এই পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে ২৭-২৯ মের মধ্যে। এই তিনদিনের জন্য মৎস্যজীবীদের সাগরে না যেতে পরামর্শ দিয়েছে হাওয়া অফিস।
বজ্রবিদ্যুৎ-সহ ঝোড়ো হাওয়া এবং বিচ্ছিন্নভাবে হাল্কা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে জম্মু ও কাশ্মীর এবং হিমাচল প্রদেশে। ২৮ ও ২৯ মে বিচ্ছিন্নভাবে বৃষ্টি হতে পারে উত্তরাখণ্ড, পঞ্জাব, হরিয়ানা, চণ্ডীগড়, দিল্লি, উত্তর প্রদেশ, রাজস্থানে।
পশ্চিম রাজস্থানে ২৮ ও ২৯ মে বিচ্ছিন্নভাবে ধূলোর ঝড় হতে পারে।
আগামী ৫ দিন দেশের কোনও অংশেই সেভাবে তাপপ্রবাহের সেরকম কোনও সম্ভাবনা নেই। তবে ২৭ ও ২৮ মে দক্ষিণ-পশ্চিম রাজস্থানে বিচ্ছিন্নভাবে তাপপ্রবাহের পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে।