Tap to Read ➤

দীপাবলিতে সতর্ক থাকুন হাঁপানি আক্রান্ত ব্যক্তিরা, না হলেই বিপদ

এই সময়ে ধুলো-বালি এড়িয়ে চলুন
paramita das
হিন্দুদের কাছে দুর্গাপুজোর পর একটি বড় উৎসব হল দীপাবলি। এই সময়ে অনেকেই নতুন পোশাক পরেন। মোমবাতি ও প্রদীপ জ্বালিয়ে বাড়ি আলোকিত করে তোলেন অনেকেই।
তাছাড়া এই বিশেষ দিনে আতস বাজি জ্বালানো হয়। বোম, কালিপটকা, ফুলঝুড়ি, তুবড়ি জ্বালাতে দেখা যায় সকলকে। চারিদিকে আলোর রোশনাইয়ে ভরে ওঠে।
তবে এত খুশির মাঝেও কিছু বিপদের সম্মুখীন হন অনেকেই। কারণ এই সময়ে ঋতু পরিবর্তনের কারণে অনেকেরই ঠাণ্ডা লেগে যায়। তাছাড়া বাজি থেকে দূষণ তৈরি হয়, তাতে অ্যালার্জিতে আক্রান্ত হতে দেখা যায়, অনেকেই। তাছাড়া হাঁপানি, ব্রঙ্কাইটিস রোগে আক্রান্ত হন অনেকেই।
আর যারা এই রোগে আগে থেকেই আক্রান্ত আছেন তাদেরও এই সময়ে খুব সাবধানে থাকা উচিত।
হাঁপানি হলে বুকে ব্যাথা, শ্বাসকষ্ট, কাশি হয়, তারই মাঝে শ্বাস নিতে অসুবিধা হয়। তাই এই সময়ে যারা এই টিপসগুলি মেনে চললে এই অ্যাজমা বা হাঁপানি থেকে মুক্তি পাবেন।
যে সকল ব্যক্তি হাঁপানি রোগে আক্রান্ত তারা দীপাবলির সময়ে কম খাবার খান। তেল ও চর্বিযুক্ত খাবার এই সময়ে এড়িয়ে চলুন।
আপনি যেখানে যাবেন সঙ্গে রাখবেন আপনার ইনহেলার। না হলে বিপদ হতে পারে।
বাজির খারাপ ধোঁয়া আপনার নাকে যাতে প্রবেশ না করতে পারে সেদিকে নজর রাখুন, তাই এন-৯৫ মাস্ক পরে থাকুন।
দীপাবলির সময়ে শরীর হাইড্রেট রাখুন। তাই সারাদিন হালকা গরম জল খান। শরীরে টক্সিন এতে দূর হবে।
দরকার না হলে বাড়ি থেকে বের হবেন না, কারণ এই সময়ে ধুলো এড়িয়ে চলাই ভালো। সেই সঙ্গে ধূমপান এড়িয়ে চলুন।
যে সকল ব্যক্তি হাঁপানি আক্রান্ত তারা এই সময়ে মদ খাবেন না। এতে আপনার শরীর আরও খারাপ হতে পারে।