Tap to Read ➤

সুধা মূর্তির জীবন অনুপ্রেরণা ভারতের প্রতিটি নারীর কাছে

লিঙ্গ বৈষম্য নিয়ে স্বয়ং জেআরডি টাটাকে প্রশ্ন করে পরাস্ত করেছিলেন সুধা মূর্তি! সাধারণ জীবনযাপন অথচ অসাধারণ কর্মকাণ্ড, জেনে নিন এই অনন্য নারী সম্পর্কে
১৯৫০ সালের ১৯ অগস্ট সার্জেন আর এইচ কুলকার্নি ও বিমলা দেবীর ঘরে জন্ম নেন সুধা কুলকার্নি
কম্পিউটার বিজ্ঞানী এবং প্রকৌশলী হিসাবে নিজের পেশাগত জীবন শুরু করেন সুধা মূর্তি
ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অব ইঞ্জিনিয়ার্স থেকে ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং স্বর্ণপদকজয়ী ছিলেন সুধা মূর্তি
টেলকো-র চাকরির বিজ্ঞাপনে লিঙ্গ বৈষম্য নিয়ে খোদ জে আর ডি টাটাকে চিঠি লেখেন সুধা, সেই চাকরি পান তিনিই
১৯৭৮ সালের ১০ ফেব্রুয়ারি বেঙ্গালুরুতে মূর্তি পরিবারের বাড়িতে হয় সুধা ও নারায়ণের বিয়ের অনুষ্ঠান
নিজের সব আপত্তি দূরে সরিয়ে রেখে সুধা হয়ে ওঠেন নারায়ণ মূর্তির 'ইনফোসিস' গঠনের অন্যতম কাণ্ডারি
১৯৯৬ সালে তৈরি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা 'ইনফোসিস ফাউন্ডেশন'-এর পুরোধা হলেন সুধা মূর্তি
কন্নড় ও ইংরেজি ভাষায় শিশুদের জন্য বেশ কয়েকটি বই লিখেছেন সুধা মুর্তি, তাঁর সংস্থা ইতিমধ্যে ৭০ হাজার পাঠাগার তৈরি করেছে