• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

লকডাউনে গিয়েছে কাজ! ঋণের দায়ে মর্মান্তিক পরিণতি যুবকের

  • |

লকডাউনে চলে গিয়েছিল কাজ। কিন্তু তার আগেই নেওয়া ধার ওই যুবকের বিপদ যেন আরও বাড়িয়ে দিয়েছিল। যে সংস্থা থেকে ধার নিয়েছিলেন ওই যুবক, সেখান থেকেও বারবার চাপ আসছিল। যার জেরে মর্মান্তিক পরিণতি। পরিত্রাণ পেতে বেছেনিলেন আত্মহত্যার পথ। ঘটনাটি উত্তর ২৪ পরগনার নিমতা। আর যুবকের নাম হল প্রবীর মুখোপাধ্যায়।

গত ডিসেম্বরে ঋণ নেন ওই যুবক

গত ডিসেম্বরে ঋণ নেন ওই যুবক

পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, গত ডিসেম্বরে একটি ঋণদানকারী সংস্থা থেকে ঋণ নিয়েছিলেন প্রবীর মুখোপাধ্যায়। নিয়ম ছিল প্রতি সপ্তাহে ঋণের টাকা শোধ করতে হবে। সেই মতো চলছিল কাজ।

লকডাউনেই লাগে ধাক্কা

লকডাউনেই লাগে ধাক্কা

কিন্তু লকডাউন শুরু হতেই কাজ চলে যায় প্রবীর মুখোপাধ্যায়ের। তখন একদিকে কাজের খোঁজ, অন্য দিকে ঋণ মেটানোর চিন্তা। তবে ঋণ পরিশোধ করে উঠতে পারেননি তিনি। ঋণ পরিশোধ তাঁর কাছে অসম্ভব হয়ে ওঠে।

টাকার জন্য চাপ ঋণ দানকারী সংস্থার

টাকার জন্য চাপ ঋণ দানকারী সংস্থার

পরিবারের অভিযোগ লকডাউনের মধ্যে ঋণদানকারী সংস্থা বারবার ঋণ শোধ করার জন্য চাপ দিতে থাকে। ওই যুবকের সঙ্গে ঋণ মেটাতে দুর্বব্যবহার করা হচ্ছিল বলেও অভিযোগ পরিবারের।

ক্ষোভে ফুঁসছে পরিবার

ক্ষোভে ফুঁসছে পরিবার

এক দিকে কাজ হারানোর জ্বালা, অন্য দিকে ঋণ মেটানোর জন্য চাপ। যুবক প্রবীর মুখোপাধ্যায় নিজের ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেন। আত্মহত্যা করেন। যা নিয়ে ঋণদানকারী সংস্থার ওপর ক্ষিপ্ত পরিবার থেকে পাড়া প্রতিবেশী সবাই। পুলিশের কাছে ঋণদানকারী সংস্থার নামে অভিযোগ করা হয়েছে।

Positive Story : ১১ বছর পর কলকাতার মাটি স্পর্শ করবে লন্ডন থেকে আগত বিমান

মোদী সরকার কি চিনের সমর্থনে? আমেরিকায় বসে লাদাখ ইস্যুতে নয়া টুইট বিস্ফোরণ রাহুল গান্ধীর

English summary
Youth Commits suicide in Nimta dur to burden of loan
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X