• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

ধেয়ে আসছে সুপার সাইক্লোন 'আম্ফান'! তাণ্ডবলীলা চালিয়ে কী কী ক্ষতি করতে পারে বাংলার বুকে

বঙ্গোপসাগরে শক্তি বাড়িয়ে সুপার সাইক্লোনে রূপান্তরিত হয়েছে ঘূর্ণিঝড় আম্ফান। বুধবার বিকেল থেকে সন্ধ্যার মধ্যে ঘণ্টায় ১৮০ কিমি থেকে ২০০ কিমি বেগে পশ্চিমবঙ্গের দিঘা এবং বাংলাদেশের হাতিয়া দ্বীপপুঞ্জের মধ্যে দিয়ে বয়ে যাবে এটি। যার ফলে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হতে পারে। পশ্চিমবঙ্গের উপকূলবর্তী জেলাগুলিতে। ক্ষতির মুখে বাংলাদেশেরও বিস্তীর্ণ অঞ্চল।

কী ধরনের ক্ষতির মুখে পড়তে পারে বাংলা

কী ধরনের ক্ষতির মুখে পড়তে পারে বাংলা

  • সব ধরনের কাঁচা বাড়ির ব্যাপক ক্ষতি হবে। পুরনো পাকার কাঠামোরও ক্ষতি হতে পারে। বেঙে পড়তে পারে বাড়িঘর।
  • রেলপথ ও সকড়পথের যোগাযোগ ব্যবস্থায় বিপুল ক্ষতি হতে পারে।
  • বিভিন্ন স্থানে রেল ও সড়কপথে রাস্তা সংযোগ বিঘ্ন ঘটতে পারে।
  • ভেঙে পড়তে পারে বিদ্যুতের খুঁটি। তার ছিঁড়ে লন্ডভন্ড হওয়ার সম্ভাবনা প্রবল।
  • ফসল, বৃক্ষরোপণ, বাগানের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হতে পারে।

ভেঙে পড়তে পারে লম্বা গাছ। খেজুর, তাল নারকেল গাছের পাশাপাশি বড় বড় গুল্ম গাছ উপড়ে পড়তে পারে। বড় নৌকা এবং জাহাজগুলির নোঙ্গর ছিঁড়ে যেতে পারে।

 সতর্কতামূলক ব্যবস্থা প্রশাসনের

সতর্কতামূলক ব্যবস্থা প্রশাসনের

  • ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের এই তাণ্ডবরূপ দেখে আগাম সতর্কতামুলক ব্যবস্থা নিয়েছে রাজ্য প্রশাসন।
  • দিঘা-মন্দারমণি-সহ সমস্ত উপকূলবর্তী পর্যটনকেন্দ্র থেকে পর্যটকদের সরিয়ে নিতে শুরু করেছে।
  • মৎস্যজীবীদের মাছ ধরতে যেতে নিষেধ করা হয়েছে।
  • সুন্দরবনের কাকদ্বীপ ও সাগরদ্বীপের বিস্তীর্ণ অংশেও ক্ষয়ক্ষতি হতে পারে আম্ফানের জেরে।
  • সেদিকে নজর রাখতে উপকূলরক্ষী বাহিনী নামানো হয়েছে দিঘা ও সুন্দরবন এলাকাতেও।
২১ বছর পর এমন শক্তিশালী রূপ নিয়েছে ঘূর্ণিঝড়, তৈরি প্রশাসন

২১ বছর পর এমন শক্তিশালী রূপ নিয়েছে ঘূর্ণিঝড়, তৈরি প্রশাসন

বর্তমানে সুপার সাইক্লেন অম্ফান দিঘা থেকে মাত্র ৬০০ কিলোমিটার দূরে অবস্থান করছে। তার ঘূর্ণাবর্তের গতিবেগ প্রায় ২৬৫ কিলোমিটার। অর্থাৎ ২৬৫ কিলোমিটার বেগে ঘুরতে ঘুরতে বাংলার উপকূলের দিকে এগিয়ে আসছে আম্ফান। তা ১৮০ থেকে ২০০ কিমি বেগে আছড়ে পড়ার সম্ভাবনা। আবহবিদরা বলছেন এমন শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় ২১ বছর পর হতে চলেছে। এই পরিস্থিতিতে সুপার সাইক্লোনের মুখে দাঁড়িয়ে রয়েছে বাংলা। কোন পথ দিয়ে এগোবে সাইক্লোন। কোন কোন জেলায় এর প্রভাব পড়বে। তা নিয়ে উদ্বেগে ক্রমশই বাড়ছে। প্রশাসনের তরফে সমস্তরকম বন্দোবস্ত করা হয়েছে। করোনা সংক্রমণের আবহেই সুপার সাইক্লোনের মোকাবিলায় কোমর বেঁধে নেমেছে প্রশাসন।

প্রবল ঝড়ে সবথেকে ক্ষতিগ্রস্ত হবে বাংলার তিন জেলা

প্রবল ঝড়ে সবথেকে ক্ষতিগ্রস্ত হবে বাংলার তিন জেলা

হাওয়া অফিস সূত্রে জানা গিয়েছে, বুধবার প্রবল এই ঝড় আছড়ে পড়তে পারে বাংলার উপকূলে। দিঘা ও হাতিয়ার মাঝামাঝি জায়গা দিয়ে বাংলার স্থলপথে প্রবেশ করবে ঘূর্ণিঝড়। কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গের সাত জেলায় তা তাণ্ডব চালাবে। দক্ষিণবঙ্গের অন্য জেলাগুলিতে এই আম্ফানের প্রভাবে প্রবল বৃষ্টি হবে। মঙ্গলবার সাত জেলায় ৭০ থেকে ১১০ মিলিমিটার বৃষ্টি হতে পারে। তার সঙ্গে বইবে ৫০ থেকে ৬৫ কিলোমিটার বেগে ঝোড়া হাওয়া। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ঝড়ের গতিবেগ আরও বাড়বে। সবথেকে প্রভাব বেশি পড়বে বাংলার তিন জেলায়।

বন্ধুর পাল্লায় পড়ে নাম খারাপ গুজরাতের মুখ্যমন্ত্রীর, সামনে আনলেন ফিরহাদ হাকিম

English summary
Weather updates of West Bengal and Kolkata in Bengali: Super Cyclone ‘Amphan’ may be damaged in West Bengal coast districts. Bengal’s seven districts are affected with heavy rain and storm,
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X