• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

করোনা সতর্কতায় গ্রাম ভাগ করে নিল গ্রামবাসীরা

  • By আভীক
  • |

করোনা অসতর্কতায় মূল সড়ক থেকে গ্রামের মাঝে ব্যারিকেড দিয়ে গ্রাম আলাদা করে নিলো গ্রামবাসীরা। ব্যারিকেডের গায়ে ফেললো করোনা সচেতনতা ছাপানো পোস্টার। করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে ২১ লকডাউন এর ইতিমধ্যেই ১৪ দিন লকডাউন পেরিয়েছি আমরা। তারই মধ্যে গ্রামবাসীদের মধ্যে যে আতঙ্ক ছড়িয়েছে তার চূড়ান্ত রঘুনাথপুর দাসপাড়া।

করোনা সতর্কতায় গ্রাম ভাগ করে নিল গ্রামবাসীরা

গানের মূল সড়ক থেকে ব্যারিকেড দিয়ে গ্রাম ভাগ করে নিল গ্রামবাসীরা। তবে তাদের বক্তব্য, সামাজিক বয়কট নয় শারীরিক বয়কট। সচেতনতা বার্তা দিতে ব্যারিকেড সহ গ্রামের মোড়ে মোড়ে ফেলল ছাপানো কর্ণ সচেতনতা পোস্টার। তাতে লেখা আছে নিয়ম করে কিভাবে হাত ধুতে হবে কিভাবে খাবার খেতে হবে কিভাবে করোনা থেকে বাঁচা যাবে তার খুঁটিনাটি তথ্য। গ্রামবাসীদের এই কাজে এগিয়ে এসেছে কলেজপড়ুয়া রাই। তারাই সমাজের শিক্ষিত সমাজকে সচেতন। তাই তাদের দেখানো পথে এগিয়ে এল বাকিরাও।

উত্তর 24 পরগনার মাটিয়া থানার দাসপাড়া। জনসংখ্যা প্রায় প্রায় ১০০০। রাজ্য সড়ক ২ টাকি রোড থেকে গ্রামকে আলাদা করতে। মূল রাস্তার মুখে বাঁশের বেরিকেট লাগানো রয়েছে। ছাপানো পোস্টার বড় বড় অক্ষরে লেখা রয়েছে দশটি সতর্কতার বার্তা।

এক নম্বরেই রয়েছে বহিরাগতদের প্রবেশ নিষেধ। দু'নম্বরে স্যানিটাইজার দিয়ে বারবার হাত ধোওয়া, তিন মাক্স পরে বাইরে বেরোনোর কথা। চার দূরত্ব বজায় রাখা বাজারে ভিড় জমায়েত না করা। দেশ ও রাজ্যের লকডাউন কে মান্যতা দেওয়া ভিন রাজ্যের থেকে গ্রামের যুবক ফিরলে তাকে পুলিশ ও স্বাস্থ্য দপ্তরের সঙ্গে যোগাযোগ করে স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা।

যাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ তাঁকেই বসানো হল উচ্চপদে, গর্জে উঠলেন বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়

সব মিলিয়ে এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছে আমজনতা। রয়েছে দিনে ও রাত্রে কড়া পাহারাও। পাহারাদার হিসেবে পালা করে আট থেকে আশি সকলেই। যতদিন লকডাউন চলবে ততদিন বন্ধ থাকবে গ্রামের মূল রাস্তা লাগানো থাকবে করোনা সচেতনতা পোস্টার।

English summary
Villagers of North 24 Parganas shares warning of Coronavirus
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X