• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

কলকাতা, শিলিগুড়িতে ২ নিয়ম! শিলিগুড়ির প্রশাসক পদে নতুন নাম নিয়ে জল্পনা শাসকের অন্দরে

  • |

শিলিগুড়ি কি রাজ্যের বাইরে, সেখানকার নাগরিকরা কি দ্বিতীয় শ্রেণির নাগরিক, রাজ্য সরকার শিলিগুড়ির প্রশাসক পদ নিয়ে বিজ্ঞপ্তি জারি করার পর এমনটাই মন্তব্য করেছেন সেখানকার বিদায়ী মেয়র অশোক ভট্টাচার্য। যদি রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের অনেকেই বলছেন অ্যাডমিনিস্ট্রেটর হিসেবে রঞ্জন সরকারের পথ প্রশ্ত করতেই কলকাতার থেকে আলাদা শিলিগুড়ির ৫ কংগ্রেস কাউন্সিলরকে প্রশাসক মণ্ডলীর সদস্য করা হয়েছে।

সব থেকে বড় প্যাকেজ মানুষকে ঘরে ফেরানো! মুখ্যমন্ত্রী পরিকল্পনাহীনতায় বাড়ছে করোনা বিপদ, বললেন অধীর

কলকাতার থেকে 'আলাদা' শিলিগুড়ি

কলকাতার থেকে 'আলাদা' শিলিগুড়ি

কলকাতায় নির্দেশিকা জারি করে ফিরহাদ হাকিমকে বোর্ড অফ অ্যাডমিনিস্ট্রেটরের প্রধান করা হয়েছে। সঙ্গে যাঁরা রয়েছেই, সবাই তৃণমূল সদস্য হিসেবে পরিচিত। কিন্তু শিলিগুড়ির ক্ষেত্রে তা হয়েছে আলাদা। সেখানে বিদায়ী মেয়রকে বোর্ড অফ অ্যাডমিনিস্ট্রেটরের প্রধান করে ছয় বর্তমান মেয়র পরিষদের সদস্যকে বোর্ড অফ অ্যাডমিনিস্ট্রেটরের সদস্য করা হয়েছে। সঙ্গে জুড়ে দেওয়া হয়েছে পাঁচ তৃণমূল কাউন্সিলরের নামও।

সংকীর্ণ রাজনীতির অভিযোগে দায়িত্ব প্রত্যাখ্যান অশোকের

সংকীর্ণ রাজনীতির অভিযোগে দায়িত্ব প্রত্যাখ্যান অশোকের

রাজ্য সরকারের নির্দেশিকার বিস্তারিত পাওয়ার পরেই অশোক ভট্টাচার্য বলেন রাজ্য সরকারে এই সিদ্ধান্ত অগণতান্ত্রিক, অনৈতিক। শিলিগুড়ির মানুষের প্রতি অমর্যাদাকর ও অপমানকর। রাজ্য সরকারের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ করে তিনি দায়িত্ব নিচ্ছেন না বলে জানিয়েদেন। পাশাপাশি দাবি করেন সারা রাজ্যের অন্য পুর কর্পোরেশনগুলিতে যে ধরনের প্রশাসকমণ্ডলী বসানো হয়েছে এই ক্ষেত্রেও তা অনুসরণ করা হোক।

শিলিগুড়ির বিরোধীনেতার অন্য দাবি

শিলিগুড়ির বিরোধীনেতার অন্য দাবি

বোর্ড অফ অ্যাডমিনিস্ট্রেটরের সদস্য হিসেবে যাঁদের রাখা হয়েছে, তাঁদের মধ্যে রয়েছেন শিলিগুড়ির বিরোধী দলনেতা রঞ্জন সরকারও। তাঁর দাবি রাজ্য সরকার আইন মেনেই প্রশাসক মোর্ড মনোনীত করেছে। তাঁর অভিযোগ তিনি(অশোক ভট্টাচার্য) রাজনীতি করার উদ্দেশেই রাজ্য সরকারের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছেন।

শিলিগুড়ি নিয়ে 'দুমুখো' নীতি তৃণমূলের

শিলিগুড়ি নিয়ে 'দুমুখো' নীতি তৃণমূলের

তবে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের অনেকেই বলছেন শিলিগুড়ি নিয়ে দুমুখো নীতি নিয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। সামনে কলকাতার মতো ব্যবস্থা দেখানো হলেও, যাতে প্রশাসক পদ নিয়ে তৃণমূল ভবিষ্যতে অসুবিধায় না পড়ে তার জন্য তৃণমূল কাউন্সিলরদের নাম ঢোকানো হয়েছে। আর এই ব্যবস্থায় যে অশোক ভট্টাচার্যরা ব্যবস্থা মেনে নেবেন না, তা বিলক্ষণ জানত তৃণমূলের সর্বোচ্চ মহল। তবে অনেকেই বলছেন এই পদক্ষেপ নিয়ে শিলিগুড়ির প্রশাসক পদে কি রঞ্জন সরকারকে বসানোর পদ প্রশস্ত করা হল, সেই প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে বিভিন্ন মহলে।

English summary
TMC's Ranjan Sarkar May be the administrator of Siliguri Municipal Corporation.
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X