• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

বুথে কেন্দ্রীয় বাহিনীর সামনেই ছাপ্পা! সরানো হল প্রিসাইডিং অফিসারকে

বুথে কেন্দ্রীয় বাহিনীর সামনেই ছাপ্পা ভোটের অভিযোগ। ঘটনাটি ঘটেছে কেতুগ্রামের খাজা স্কুলের বুথে। খবরটি বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে সম্প্রচারের পরেই নড়েচড়ে বসে নির্বাচন কমিশন। সরিয়ে দেওয়া হয় প্রিসাইডিং অফিসারকে।

 বুথে কেন্দ্রীয় বাহিনীর সামনেই ছাপ্পা! সরানো হল প্রিসাইডিং অফিসারকে

কেতুগ্রামের খাজা স্কুল। সকাল থেকে ভোট শুরু হয় খানিকটা অস্বাভাবিক ভাবে। বুথে রয়েছেন প্রিসাইডিং অফিসার। কিন্তু তিনি চুপ করে বসে রয়েছেন। আর বুথে যাঁরা ঢুকছেন, তাঁরা কোথায় ভোট দিচ্ছেন, তা দেখছেন বুথের মধ্যে থাকা এক ব্যক্তি। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে ওই ব্যক্তি তৃণমূলের স্থানীয় নেতা। গ্রামের সবাই যাতে তৃণমূলে ভোট দেয় তার জন্য অনুরোধ করা হয়েছিল। কিন্তু তাতেও বিশ্বাস করতে পারেনি শাসক দল। এবার গ্রামের মানুষকে তৃণমূলের প্রতীকে ভোট দেওয়ার কথা বলে দিচ্ছেন, ভোট দেওয়ার আগের মুহুর্তে।

[আরও পড়ুন: পুলিশ বলছে লোক ঢুকেছে পাঁচিল পেরিয়ে! সকাল থেকে বিক্ষিপ্ত গণ্ডগোল বহরমপুরে]

খবর পাওয়ার পরেই সেখানে যায় বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমের প্রতিনিধিরা। অভিযোগ, সকাল সাতটা থেকে নটা পর্যন্ত এই ভাবেই ভোটগ্রহণ চলতে থাকে। ক্যামেরার সামনেও ভীত হয়ে যায়নি সেই তৃণমূল নেতা। পরে অবশ্য নির্বাচন কমিশনের তরফ থেকে প্রিসাইডিং অফিসারকে সরিয়ে দেওয়া হয়।

[আরও পড়ুন:কেন্দ্রীয় বাহিনীর দাবি! বুথ ছেড়ে বেরিয়ে গেলেন পোলিং অফিসার]

[আরও পড়ুন:লোকসভা নির্বাচনের সমস্ত খবর পেতে ক্লিক করুন ]

English summary
TMC leaders monitoring vote process in Ketugram in front of presiding officer
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X