• search
For Quick Alerts
ALLOW NOTIFICATIONS  
For Daily Alerts

রাজ্যসভার 'নিয়ম ভঙ্গ', দীনেশ ত্রিবেদীর 'অভূতপূর্ব' পদত্যাগ নিয়ে তদন্তের দাবি তৃণমূলের

কয়েকদিন আগেই রাজ্যসভাতে দাঁড়িয়ে অভাবনীয় ভাবে সাংসদ পদ এবং দল ছাড়েন দীনেশ ত্রিবেদী। এবার দীনেশকে রাজ্যসভায় সেভাবে বক্তব্য পেশ করতে দেওয়া নিয়ে সরব হল তৃণমূল কংগ্রেস। তৃণমূলের অভিযোগ, দীনেশকে বলতে দেওয়ার সুযোগ কেন দেওয়া হল, তার তদন্ত করা উচিত। আলাদা ভাবে এই বিষয়ে সরব হয়েছেন তৃণমূলের সাংসদ সুখেন্দু শেখর রায়।

দীনেশ ত্রিবেদী বিজেপিতে গেলে কী যুক্তি দেবে তৃণমূল?
ইস্তফা দেওয়ার নির্দিষ্ট নিয়ম আছে

ইস্তফা দেওয়ার নির্দিষ্ট নিয়ম আছে

তাছাড়াও তৃণমূল কংগ্রেস আরও অভিযোগ করে, রাজ্যসভার গ্যালারিতে নির্দিষ্ট আসন নির্ধারিত ছিল দীনেশ ত্রিবেদীর জন্য। সেখান থেকে নেমে এসে কী করে তিনি কাউন্সিল এলাকায় বসলেন ও কথা বলতে শুরু করলেন? এছাড়া সেই সময়ে স্পিকারের আসনে থাকা ডেপুটি চেয়ারম্যানের ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন তোলা হয়েছে। যদিও দীনেশের বলার সময়ে রাজ্যসভার ডেপুটি চেয়ারম্যান একাধিকবার বলেছিলেন, 'ইস্তফা দেওয়ার নির্দিষ্ট নিয়ম আছে। নিয়ম মেনে ইস্তফা দিতে হবে।'

রাজ্যসভায় দীনেশের 'বিস্ফোরণ'

রাজ্যসভায় দীনেশের 'বিস্ফোরণ'

সেদিন রাজ্যসভায় পশ্চিমবঙ্গের রাজনৈতিক হিংসা নিয়ে সরাসরি অভিযোগ করেন তৃণমূল কংগ্রেসের সাংসদ দীনেশ ত্রিবেদী৷ রাজ্যসভায় দাঁড়িয়ে তিনি প্রশংসা করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিরও৷ সংসেদর উচ্চকক্ষে তখন পিন ড্রপ সায়েলেন্স বিরাজমান৷ আচমকা এই বক্তব্যে অন্য সাংসদরা ঠিক কতটা হতবাক হয়েছেন, তাঁর আভাস দীনেশের ঠিক পিছনের সারিতে বসা এনসিপির প্রফুল প্যাটেলের মুখ দেখেই বোঝা যাচ্ছিল৷

তৃণমূলে দীনেশের যাত্রাপথ

তৃণমূলে দীনেশের যাত্রাপথ

২০০৯ সালের পর ২০১৪ সালেও দীনেশ ত্রিবেদী ব্যারাকপুর আসন থেকে জিতেছিলেন। ২০১৯-এ ওই আসনের দাবিদার ছিলেন অর্জুন সিং। তবে মমতা দীনেশকেই প্রাধান্য দিয়েছিলেন। এরপরই টিকিট না পেয়ে, এবং তৃণমূলে গুরুত্ব না পেয়ে বিজেপি-তে যান অর্জুন। বিজেপির হয়ে অর্জুন দীনেশকে হারিয়ে দেন। পরে দীনেশকে রাজ্যসভায় পাঠান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

রাজ্য-রাজনীতিতে উত্তাপ

রাজ্য-রাজনীতিতে উত্তাপ

এদিকে বিধানসভা নির্বাচন যত এগিয়ে আসছে রাজ্য-রাজনীতিতে উত্তাপ তত বাড়ছে। বিশেষ করে শাসকদল থেকে একের পর এক হেভিওয়েট নেতার গেরুয়া শিবিরে যোগ রীতিমতো চিন্তায় ফেলছে তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। প্রথমে শুভেন্দু অধিকারী দিয়ে শুরু হয় দলবদলের পালা। প্রথমে মন্ত্রিত্ব থেকে পদত্যাগ। তারপর দল ছেড়ে গেরুয়া শিবিরে নাম লেখান। এরপর একে একে মিহির গোস্বামী থেকে শুরু করে রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়। অনেক হেভিওয়েটই তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেন। এবার দীনেশ ত্রিবেদী। আজ রাজ্যসভায় সাংসদ পদ থেকে ইস্তফা দেন তিনি। তাঁর এই ইস্তফায় বিজেপি যোগের জল্পনা শুরু হয়েছে।

English summary
TMC asked for probe into how Dinesh Trivedi was given permission to speak in Rajya Sabha
চটজলদি খবরের আপডেট পান
Enable
x
Notification Settings X
Time Settings
Done
Clear Notification X
Do you want to clear all the notifications from your inbox?
Settings X